ঢাকা, রবিবার, ৮ বৈশাখ ১৪২৬, ২১ এপ্রিল ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

অনিয়মের অভিযোগে কটিয়াদীতে ভোটগ্রহণ স্থগিত

রুমন চক্রবর্তী : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৩-২৪ ১২:০৫:৪০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৩-২৪ ৫:৩৪:০২ পিএম

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি : কিশোরগঞ্জের ১৩ উপজেলায় শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন শুরু হলেও অনিয়মের অভিযোগে কটিয়াদী উপজেলায় ভোটগ্রহণ স্থগিত করেছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা।

এছাড়া অনিয়মে জড়িত থাকার অভিযোগে কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শফিকুল ইসলাম ও কটিয়াদী থানার ওসি মো. শামসুদ্দিনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. তাজুল ইসলাম জানান, কটিয়াদী উপজেলায় মোট ৮৯টি ভোট কেন্দ্র রয়েছে। এ উপজেলায় রাতে বিভিন্ন কেন্দ্রে সিল মারার অভিযোগ পুরো উপজেলায় নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। পরবর্তীতে পুনঃনির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হবে।

কিশোরগঞ্জের পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ জানিয়েছেন, অনিয়মে জড়িত থাকার অভিযোগে কিশোরগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শফিকুল ইসলাম ও কটিয়াদী থানার ওসি শামসুদ্দিনকে ক্লোজ করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখতে তিনি একটি তদন্ত কমিটি করবেন বলে জানিয়েছেন।

রোববার সকাল ৮টা থেকে জেলার ১৩টি উপজেলার ৮৩৮টি কেন্দ্রে একযোগে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। কিন্তু অনিয়মের অভিযোগে সকাল ৯টার দিকে কটিয়াদীর ভোট স্থগিতের ঘোষণা দেন রিটার্নিং কর্মকর্তা তাজুল ইসলাম।

কটিয়াদীর ভোট স্থগিত ঘোষণা করা হলে, দুপুর ১২টার দিকে কটিয়াদীর বিভিন্ন কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্তরা ভোটের মালামাল কটিয়াদী উপজেলা পরিষদে নিয়ে আসেন।

কটিয়াদী ছাড়া অন্য উপজেলাগুলোতে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট হচ্ছে বলে খবর পাওয়া গেছে। তবে নির্বাচন নিয়ে ভোটারদের মধ্যে যে ধরনের উৎসাহ-উদ্দীপনা থাকার কথা তা দেখা যাচ্ছে না।

কিশোরগঞ্জের ১৩ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৪৩ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৭৫ ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫৫ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

নিরাপত্তার কাজে ৩৯ প্লাটুন বিজিবি ও র‌্যাবের ২৬টি টিম কাজ করছে।

পুরো জেলায় ভোটার সংখ্যা প্রায় ২২লাখ। এর মধ্যে মিঠামইন উপজেলায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী আছিয়া আলম বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়ে যাওয়ার কারণে সেখানে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন হচ্ছে না।

 

 

 

 

রাইজিংবিডি/কিশোরগঞ্জ/২৪ মার্চ ২০১৯/রুমন চক্রবর্তী/এনএ

Walton Laptop
     
Walton AC
Marcel Fridge