ঢাকা, বুধবার, ৩ কার্তিক ১৪২৪, ১৮ অক্টোবর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

অ্যাজমা থাকুক নিয়ন্ত্রণে

ঝুমকি বসু : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০১-১১ ১১:৫৩:৫৪ এএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০১-১৬ ৮:০৩:২৫ পিএম
প্রতীকী ছবি

ঝুমকি বসু :  অ্যাজমা বা হাঁপানি শ্বাসতন্ত্রের একটি রোগ। শ্বাসনালীর ভেতরের দেওয়ালের খানিকটা ফুলে ওঠা হল এ রোগের প্রধান কারণ।

এ অবস্থায় শ্বাসনালীতে যদি ধুলা, ঠাণ্ডা বা গরম বাতাস প্রবেশ করে তাহলে অ্যাজমা বেড়ে যায়। তাই শীত আসার সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে এর প্রকোপ। এ বিষয়ে কথা হয় বারডেম হাসপাতাল ও ইব্রাহিম মেডিকেল কলেজের মেডিসিন ও বক্ষব্যাধি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. এম. দেলোয়ার হোসেনের সঙ্গে। তার কাছ থেকে জানা যায় অ্যাজমার লক্ষণ, কারণ, চিকিৎসা ও প্রতিকার সম্পর্কে নানা তথ্য।

অ্যাজমার লক্ষণ

* কাশি

* শ্বাসকষ্ট এবং নিশ্বাসের সঙ্গে বাঁশির মতো শব্দ হওয়া

* নিশ্বাস বন্ধ হয়ে যাওয়া

* বুকে ব্যথা

 

অ্যাজমার কারণ

* বংশগতভাবে হাঁপানির ধাত

* পশুর চামড়া, লোম, ফুলের রেণু, পাখির পালক, ধুলা ইত্যাদি

* ধোঁয়া, দূষণ, রঙের গন্ধ

* অ্যালার্জি সৃষ্টিকারী খাবার। যেমন- ডিম, চিংড়ি, বেগুন, ইলিশ মাছ ইত্যাদি

* মানসিক চাপ। 

 

চিকিৎসা

* চিকিৎসার প্রথম ধাপ হল নিয়মিত চেক-আপ করানো। নিয়ম মেনে ওষুধ সেবন করা।

* যে জিনিসের প্রভাবে হাঁপানি প্রকট হয় সেগুলো এড়িয়ে চলা।

* ওষুধ বা ইনহেলার হাতের কাছে রাখা।

* অ্যাজমার আক্রমণ থেকে বাঁচতে যথাযথ চিকিৎসা জরুরি। সঠিক নিয়মে চিকিৎসা চালিয়ে গেলে অ্যাজমা নিয়ন্ত্রণে রেখে স্বাভাবিক জীবনযাপন করা সম্ভব।

 

অ্যাজমার আক্রমণ থেকে বাঁচার উপায়

* বাসায় এমন পশু-পাখি না রাখা যেগুলো থেকে অ্যালার্জির প্রকোপ বাড়তে পারে। 

* ধূমপান ছাড়ুন, ধূমপায়ীর আশে-পাশে থাকবেন না।

* যতটা পারেন ধুলা-বালি, ফুলের রেণু এড়িয়ে চলুন।

* কিছু ব্যায়াম আছে যা অ্যাজমা বাড়ায়। তাই চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ব্যায়াম করবেন না।

* কড়া গন্ধের প্রসাধনী এড়িয়ে চলুন।

* সপ্তাহে একবার বিছানার চাদর, বালিশের কাভার বদলান।

* শীতে বাইরে বেরনোর সময় পর্যাপ্ত গরম কাপড় ব্যবহার করুন।

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ জানুয়ারি ২০১৭/ফিরোজ

Walton
 
   
Marcel