ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

ইসির শর্ত প্রতিপালন : ৩০ দিন পেল আ.লীগসহ ৫ দল

হাসিবুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-১২-০৭ ৭:১৩:৪৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-১২-০৮ ৯:৪১:৩৭ এএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজনৈতিক দলগুলো তাদের শর্ত প্রতিপালন করছে কি না, তা অবগত করতে ৩০ কার্যদিবস সময় দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশন সচিবালয় সূত্র থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

নির্বাচন কমিশন সূত্র জানায়, গত ৩১ নভেম্বর রাজনৈতিক দলগুলো তাদের শর্ত প্রতিপালন করছে কি না, তা জানাতে চিঠি দিয়েছিল ইসি। কিন্তু ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ ও সংসদের বিরোধী দল জাতীয় পার্টিসহ পাঁচটি দল সময় মতো জবাব দিতে পারেনি। তাই এই দলগুলো আরো সময় চাইলে ইসি তাদের ৩০ কার্যদিবস সময় দিয়েছে। এই সময়ের মধ্যে দলগুলোকে জবাব দিতে বলা হয়েছে।

এদিকে ১২টি দল নির্ধারিত সময়ে কোনো জবাব দেয়নি। এমনকি তারা ইসির কাছে অতিরিক্ত সময়ও চায়নি। তাই তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা কেনো নেওয়া হবে না, তা ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে ইসিতে জানাতে বলা হয়েছে।

ইসি সূত্র থেকে জানা গেছে, সম্প্রতি ইসির যুগ্ম সচিব আবুল কাসেম স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত চিঠি দুটি দলগুলোর কাছে পাঠানো হয়েছে।

সূত্র জানায়, ইসির নিবন্ধিত ৪০টি দলের অর্ধেকের মতো দল তাদের জবাব দিয়েছে। সময় চেয়েছে আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি, বাংলাদেশ মুসলিম লীগ (বিএমএল), জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি (জাগপা) ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি)।

এ ছাড়া বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি, তরিকত ফেডারেশন, গণতন্ত্রী পার্টি, ঐক্যবদ্ধ নাগরিক আন্দোলন, গণফোরাম, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলসহ (বাসদ) ১২ দল ইসির চিঠির কোনো জবাব দেয়নি এবং তারা জবাব দেওয়ার জন্য কোনো সময়ও চায়নি। তাই তাদের বিরুদ্ধে কোনো আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে না। তা আগামী ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে কমিশনে জানাতে বলা হয়েছে।

ইসি সূত্র জানায়, দলগুলো শর্তপূরণ করেই নিবন্ধিত হয়েছিল। তাদের বেশ কিছু বিষয় প্রতিপালনের বাধ্যবাধকতাও রয়েছে। এজন্য ইসির ঘোষিত কর্মপরিকল্পনা মেনে সর্বশেষ অবস্থা জানাতে নিবন্ধিত দলগুলোকে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

ইসির রোডম্যাপে বলা হয়েছে- নিবন্ধিত দলগুলো বিধি-বিধানের আলোকে পরিচালিত হচ্ছে কি না, খতিয়ে দেখার আইনানুগ দায় ইসির রয়েছে। তারা শর্ত যথাযথভাবে প্রতিপালন করছে কি না, তা খতিয়ে দেখতে সিদ্ধান্ত হয়েছে। যাতে সব নিবন্ধিত দল একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে পারে।

 

 

রাইজিংবিডি/ ঢাকা/৭ ডিসেম্বর ২০১৭/হাসিবুল/সাইফুল

Walton
 
   
Marcel