ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩ কার্তিক ১৪২৫, ১৮ অক্টোবর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

ঢাকা ও চট্টগ্রামে খানাশুমারির তথ্য সংগ্রহ শুরু

হাসান মাহামুদ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০১-১৪ ৯:১৮:৪৩ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০১-১৪ ১০:৪৮:২৫ পিএম
ফাইল ফটো

নিজস্ব প্রতিবেদক : ন্যাশনাল হাউজহোল্ড ডাটাবেজ (এনএইচডি) প্রকল্পের তথ্যভাণ্ডার শুমারির দ্বিতীয় পর্যায়ের তথ্য সংগ্রহের কাজ আজ রোববার থেকে শুরু হচ্ছে।

এ পর্যায়ে ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের সব জেলা, ময়মনসিংহ বিভাগের নেত্রকোনাসহ মোট ২৫টি জেলায় ১ কোটি ৬০ লাখ পরিবারের তথ্য সংগ্রহ করা হবে। এটি চলবে ২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস) সূত্র জানিয়েছে, এভাবে তিন পর্যায়ে সারা দেশের প্রায় ৩ কোটি ৬০ লাখ খানা থেকে সরাসরি তথ্য সংগ্রহ করা হবে।

বিবিএসের মহাপরিচালক আমীর হোসেন ও এনএইচডি প্রকল্পের পরিচালক শফিকুল আলম রাইজিংবিডিকে জানিয়েছেন, এরই মধ্যে প্রথম পর্যায়ে রংপুর, বরিশাল ও ময়মনসিংহ বিভাগের ১৭টি জেলায় ৮৬ লাখ ৯ হাজার পরিবার থেকে তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। তৃতীয় পর্যায়ে সিলেট, খুলনা বিভাগসহ ২২ জেলায় তথ্য সংগ্রহ করা হবে।

তিনি আরো জানান, প্রত্যেকটি খানায় গিয়ে তথ্য সংগ্রহকারীরা তথ্য সংগ্রহ করবে। এ সময়ে জাতীয় পরিচয়পত্র ও জন্মসনদের নম্বর প্রয়োজন হবে। তাই তথ্য প্রদানকারীরা সে বিষয়ে সহযোগিতা করবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

দেশে দরিদ্রের সংখ্যা কমছে। বর্তমানে দেশে দারিদ্র্যের হার ২৩ দশমিক ৯ ও অতিদরিদ্র ১২ দশমিক ৯ শতাংশ। এ অগ্রগতি টেকসই করতে এবং দারিদ্র্যের হার আরো কমাতে কাজ করছে সরকার। যারা পিছিয়ে পড়ছে, তাদের এগিয়ে নিতে বিভিন্ন উদ্যোগ বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

এনএইচডি প্রকল্পের আওতায় যে তথ্যভাণ্ডার গঠন করা হবে তার মাধ্যমে দারিদ্র্যপ্রবণ জনগোষ্ঠীকে চিহ্নিত করা হবে। আশা করা হচ্ছে, ফলে ধনী-দরিদ্রের বৈষম্য কমাতে দারিদ্র্য বিমোচনে সম্পদ হস্তান্তর ও কর্মসূচি বাস্তবায়ন সহজ হবে। প্রসঙ্গত, এর আগে নির্বাচন কমিশনসহ বিভিন্ন সংস্থা এ ধরনের কাজ করেছে।

এছাড়া এই তথ্যভাণ্ডার সরকারের প্রায় ২৩টি মন্ত্রণালয় সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির উপকারভোগী নির্বাচনে ব্যবহার করবে এবং এর সহায়তায় খানার আর্থসামাজিক শ্রেণিবিন্যাসের মাধ্যমে দরিদ্র ও অতিদরিদ্রের প্রকৃতি ও স্বরূপ নির্ধারণ করা সহজ হবে।

প্রসঙ্গত, প্রকল্পটি বাস্তবায়নে মোট ব্যয় হচ্ছে ৭২৭ কোটি ৩৫ লাখ টাকা। এর মধ্যে দাতা সংস্থা বিশ্বব্যাংক ঋণ দিচ্ছে ৬৮৬ কোটি টাকা। বাকি টাকা সরকারি তহবিল থেকে ব্যয় করা হবে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৪ জানুয়ারি ২০১৮/হাসান/সাইফ

Walton Laptop
 
     
Walton