ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ শ্রাবণ ১৪২৫, ১৭ জুলাই ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

দু-একদিনের মধ্যে মাদ্রাসার শিক্ষকদের সুসংবাদ দেওয়ার আশ্বাস

হাসান মাহামুদ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০১-১৪ ৪:৪৩:৪৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০১-১৫ ১০:০৪:২৪ এএম

সচিবালয় প্রতিবেদক : চাকরি জাতীয়করণের দাবিতে আমরণ অনশনরত স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসার শিক্ষকদের দু-একদিনের মধ্যে সুসংবাদ দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলী।

রোববার শিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর পক্ষ থেকে আন্দোলনরত শিক্ষকদের প্রতিনিধিকে আলোচনার জন্য ডাকা হয়। প্রতিমন্ত্রীর আহ্বানে সাড়া দিয়ে ২৫ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল সচিবালয়ের পাশে পরিবহন পুল ভবনে প্রতিমন্ত্রীর দপ্তরে যান।

এ সময় শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ সেখানে উপস্থিত ছিলেন। মন্ত্রী আন্দোলনরত শিক্ষকদের উদ্দেশে বলেন, চলমান সংকট নিরসনে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সক্রিয় প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। শিগগির এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রীকে অবহিত করা হবে।

বৈঠকের বিষয়ে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষকদের এক প্রতিনিধি রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘প্রতিমন্ত্রী অত্যন্ত বিনয়ের সাথে আমাদের আমরণ অনশন ভাঙার অনুরোধ করেছেন। বিষয়টি নিয়ে তিনি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করে দু-একদিনের মধ্যে একটি সুসংবাদ দিবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন’।

প্রতিমন্ত্রীর আশ্বাসের পর শিক্ষকদের কর্মসূচি চলমান থাকবে কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে শিক্ষক প্রতিনিধি বলেন, ‘আমরা দাবি আদায়ে পথে নেমেছি। দাবি আদায় ছাড়া ঘরে ফিরে যাব না। আমরা চাই, প্রধানমন্ত্রী আমাদের যৌক্তিক দাবিটি মেনে নিবেন। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরা আমরণ অনশন চালিয়ে যাব।’

বৈঠকের পর মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলী দাপ্তরিক কাজে ব্যস্ত হয়ে যাওয়ায় এ বিষয়ে তার মন্তব্য জানা যায়নি।

তবে বৈঠকের বিষয়ে অপর এক শিক্ষক নেতা রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘যেহেতু এটি অনানুষ্ঠানিক বৈঠক ছিল, সব কথা বলা যাচ্ছে না। তবে প্রতিমন্ত্রী মহোদয় আমাদের দাবির প্রতি সহানুভূতিশীল। ইতিবাচকভাবে দেখবেন বলে আমাদের আশ্বাস দিয়েছেন। আমরা তার সহানুভূতিকে সম্মান জানাই। কিন্তু আমরা দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাব’।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতির ব্যানারে ২০১৮ সালের প্রথম দিন থেকে ৮ জানুয়ারি পর্যন্ত প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান ধর্মঘট পালন করে আসছেন ইবতেদায়ি মাদ্রাসার শিক্ষকরা। পরে ৯ জানুয়ারি থেকে লাগাতার অমরণ অনশন কর্মসূচি পালন করছেন তারা।

আজ রোববার ষষ্ঠ দিনের মতো চলছে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসার শিক্ষকদের আমরণ অনশন। প্রচণ্ড শীত ও শৈতপ্রবাহের কারণে এ পর্যন্ত ১৪৫ জন শিক্ষক অসুস্থ হয়েছেন বলে জানা গেছে। এর মধ্যে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ১৮ জন। অসুস্থদের অধিকাংশই অতিরিক্ত শীতে নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত। কেউ কেউ স্যালাইন নিয়েই অনশন করছেন।

মাদ্রাসা বোর্ডের নিবন্ধন পাওয়া ১০ হাজারের মতো স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদরাসা আছে। এতে শিক্ষকের সংখ্যা প্রায় ৫০ হাজার। মাত্র ১ হাজার ৫১৯টি ইবতেদায়ি মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক ২ হাজার ৫০০ টাকা ও সহকারী শিক্ষকরা দুই হাজার ৩০০ টাকা ভাতা পান। বাকি শিক্ষকরা দীর্ঘদিন ধরে বিনা বেতনে চাকরি করছেন।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৪ জানুয়ারি ২০১৮/হাসান/রফিক

Walton Laptop
 
     
Walton