ঢাকা, বুধবার, ১১ মাঘ ১৪২৪, ২৪ জানুয়ারি ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

‘রাখাইনে নিহত ১০ রোহিঙ্গা বিদ্রোহী ছিল না’

শাহেদ হোসেন : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০১-১৩ ২:১৩:১৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০১-১৫ ৯:৩৪:২০ এএম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মিয়ানমার রাখাইন রাজ্যের একটি গণকবর থেকে পাওয়া ১০ রোহিঙ্গার লাশ বেসামরিক নাগরিকের বলে দাবি করেছে আরকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মি (আরসা)। শনিবার টুইটারে দেওয়া এক বিবৃতিতে রোহিঙ্গা বিদ্রোহী গোষ্ঠীটি এ দাবি করেছে।

গত ১৮ ডিসেম্বর মিয়ানমার সেনাবাহিনী রাখাইনের রাজধানী সিতউই থেকে প্রায় ৫০ কিলোমিটার উত্তরে উপকূলীয় ইন দীন গ্রামে একটি গণকবরে ১০ জনের মৃতদেহ পাওয়ার কথা জানায়। এরপর ঘটনা তদন্তে একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাকে নিয়োগ করে সেনাবাহিনী। বুধবার মিয়ানমারের সেনাপ্রধান মিন অং হ্লাইংয়ের ফেইসবুক পেজে ওই রোহিঙ্গাদের বিদ্রোহী দাবি করে বলা হয়েছে, নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা তাদেরকে হত্যা করেছে বলে তদন্তে জানা গেছে এবং এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। রাখাইনে রোহিঙ্গা নিধন অভিযান শুরুর পর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে ভুল স্বীকার রীতিমতো বিরল ঘটনা।

শনিবার আরসা বলেছে, ‘আমরা ঘোষনা দিচ্ছি, যে ১০ নিরাপরাধ বেসামরিক নাগরিকের মৃতদেহ ইন দীন গ্রামের গণকবরে পাওয়া গেছে তারা আরসার সদস্য নয়, তাদের সঙ্গে আরসার কোনো সংশ্লিষ্টতাও নেই।’

পর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে ভুল স্বীকারকে স্বাগত জানিয়ে আরসা বলেছে,  ‘বার্মার সন্ত্রাসী সেনাবাহিনী যুদ্ধাপরাধের যে স্বীকারোক্তি দিয়েছে তাকে আমরা অভিনন্দন জানাচ্ছি।’



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৩ জানুয়ারি ২০১৮/শাহেদ

Walton