ঢাকা, শনিবার, ৫ কার্তিক ১৪২৪, ২১ অক্টোবর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

সুস্বাস্থ্য নিয়ে যে ধারণাগুলো ভুল (পর্ব-৩)

আফরিনা ফেরদৌস : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৬-১২-১৬ ৮:৫২:৩৬ এএম     ||     আপডেট: ২০১৬-১২-১৬ ৮:৫২:৩৬ এএম
প্রতীকী ছবি

আফরিনা ফেরদৌস : মানুষ এখন স্বাস্থ্য সচেতন। সুস্থ থাকার জন্য কোন খাবার খেতে হবে, কোনটা খাওয়া যাবে না-তা নিয়েও ভাবছে মানুষ।

 

এমন অনেক অভ্যাস আমাদের রয়েছে যেগুলো আমরা স্বাস্থ্যকর মনে করি। কিন্তু আদতে তা আমাদের ভুল ধারণা। তাই স্বাস্থ্যকর মনে করা সেসব অভ্যাস বদলে ফেলা দরকার।

 

স্বাস্থ্যকর মনে করা ৩৭টি অভ্যাস পরিবর্তন নিয়ে ছয় পর্বের প্রতিবেদনে আজ তৃতীয় পর্বে থাকছে ৮টি অভ্যাস।

 

প্রতিদিন মাল্টিভিটামিন গ্রহণ : ডাক্তার স্টিভেন বলেন, একটি গবেষণায় দেখা যায় আমেরিকানরা বছরে প্রায় ৬ বিলিয়ন ডলার খরচ করে শুধু মাল্টিভিটামিন ওষুধের পিছনে। এটি নষ্ট ছাড়া কিছুই নয়। কারণ এই মাল্টিভিটামিনগুলো আমাদেরকে ক্রনিক ব্যথা থেকে মুক্তি দেয় ঠিকই কিন্তু একটানা অনেক দিন ধরে খেলে এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থেকেই যায়। বেশিরভাগ ভিটামিন এবং অন্যান্য নিউট্রিশনের মূল উৎস হল ফল। তাই প্রতিদিন মাল্টিভিটামিনের ওষুধ না খেয়ে বরং ফল খাওয়া ভালো।

 

প্রত্যেকবার খাওয়ার পর অ্যান্টাসিড সেবন : ডাক্তার ক্যারেন বলেন, বুকে সামান্য জ্বালাপোড়া হওয়া মানেই কিন্তু এই নয় যে, আপনার অ্যাসিডিটির সমস্যা রয়েছে। অনেক সময় নিম্ন খাদ্যনালীর স্পিঞ্চটারের ব্যথাকেও আমরা অ্যাসিডিটি বলে মনে করি। এতে অবশ্য ব্যথা দূর করা সম্ভব হয় কিন্তু বার বার এই ধরনের অ্যাসিডিটির ওষুধ খাওয়ার জন্য বাজে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থেকে যায় শরীরে। তাই কোনো ওষুধ সেবনের পূর্বে ভালো করে ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

 

লো ফ্যাট ডায়েট : ডাক্তার ক্যারেন বলেন, মানুষের শরীরে ফ্যাটের দরকার আছে। ফ্যাট এড়িয়ে চলার জন্য আপনি সবজি এবং ফল খাচ্ছেন তা খারাপ নয়। ফ্যাটের মাত্রা ধরে রাখতে মাছের ফ্যাট সব থেকে ভালো। এতে আপনি মোটা হবেন না আবার আপনার শরীরে ফ্যাটের চাহিদা পূরণ হয়ে যাবে। অনেক সময় শরীরে ফ্যাটের চাহিদার কারণে, অনেক ফ্যাটযুক্ত খাবার খাওয়া সত্ত্বেও ওজন বৃদ্ধি পায় না। তাই ফ্যাটকে একেবারে এড়িয়ে না চলে ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে ফ্যাট জাতীয় খাবার খেতে পারেন।

 

সুগার ফ্রি খাবারের দিকে মনোযোগ : ডাক্তার জোলেনের মতে, আমরা বেশি সচেতনতার বশে সুগার ফ্রি মিষ্টি বা পানীয় বেছে নিই। কিন্তু জানেন কি এই খাবারগুলো তৈরির সময় চিনি বাদ দেওয়া হয় তবে স্বাদ বজায় রাখার জন্য এতে কৃত্রিম চিনি মেশানো হয়। যা হয়তো আসল চিনির থেকে বেশি ক্ষতিকর আপনার শরীরের জন্য।

 

খাদ্য তালিকার প্রতি অনীহা : ডাক্তার ভিক্টর বলেন, আমরা যখন নতুন কোনো খাদ্য তালিকা অনুসরণ করি তখন প্রথমেই মাথায় আসে যে সেটা পুরোপুরি মানতে হবে। আর এতে করে অনেকের মধ্যে খাদ্য তালিকার প্রতি অনীহা দেখা দেয়। আমরা যখন কোনো কিছু ভালোভাবে শুরু করতে পারি না তখন তা ভালোভাবে শেষ করার কথা কিভাবে ভাবতে পারি। তাই হুট করে এভাবে খাবার তালিকা বদলান বন্ধ করুন। আর আমি আজকের থেকে চিনি খাব না, এটা না বলে বরং কাল থেকে একটু একটু করে কম খাওয়ার অভ্যাস করুন।

 

ট্রেডমিলে দৌড়ানো : ট্রেডমিল হচ্ছে হাঁটা বা দৌড়ানোর একটি মেশিন। তবে এতে দৌড়ানোর থেকে হাঁটা ভালো। ডাক্তার ভিক্টরের মতে, অনেকে ট্রেডমিলে দৌড়ান ঠিকই কিন্তু ভালো ফল পান না, কারণ তারা মাঝ পথে দৌড়ানো বন্ধ করে। সাইকেলিং করার ক্ষেত্রেও এই একি কথা প্রযোজ্য।

 

দিনে দুই বার মুখ ধোয়া : ডাক্তার পার্কস বলেন, মানসম্মত ত্বকের যত্নের কথা বললে দিনে দুই বার মুখ ধোয়ার ব্যাপারটা ঠিক আছে। তবে তা সবার জন্য ঠিক নয়। আপনার ত্বক যদি অনেক তৈলাক্ত হয় তাহলে আপনার উচিত দিনে দুই বার মুখ ধোয়া। কিন্তু আপনার ত্বক যদি হয় শুষ্ক তাহলে ভুলেও দিনে দুই বার ত্বক ধোবেন না। এতে ত্বক আরো শুষ্ক হয়ে যাবে।

 

অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল সাবান ব্যবহার : ডাক্তার রবের মতে, অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল সাবান ব্যবহার করাটা বেশ পুরোনো কথা। বর্তমানে এটিকে আর জীবানুনাশক হিসেবে ধরা হয় না। কারণ একি সাবান যখন অনেকে ব্যবহার করেন তখন তা আর অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল থাকে না। বরং সেই সাবান থেকে এক জনের হাতের জীবাণু অন্য জনের হাতে ছড়াতে থাকে।

 

তথ্যসূত্র : রিডার্স ডাইজেস্ট

 

পড়ুন : * সুস্বাস্থ্য নিয়ে যে ধারণাগুলো ভুল (পর্ব-১)

 

* সুস্বাস্থ্য নিয়ে যে ধারণাগুলো ভুল (পর্ব-২)

 

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৬ ডিসেম্বর ২০১৬/ফিরোজ

Walton
 
   
Marcel