ঢাকা, বুধবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২৩ মে ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

রুবি ভিলায় নিহতরা জেএমবির সদস্য

আহমদ নূর : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০১-১২ ৩:১৮:৪৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০১-১৩ ৮:০৬:৪৮ এএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীর নাখালপাড়ায় জঙ্গি আস্তানা রুবি ভিলায় নিহত তিন তরুণ জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জিএমবি) সদস্য বলে জানিয়েছেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়নের (র‌্যাব) মুখপাত্র কমান্ডার মুফতি মাহমুদ খান।

শুক্রবার দুপুরে জঙ্গি আস্তানার পাশেই সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘গোয়েন্দা তথ্য অনুযায়ী, ঢাকায় একটি সেল গঠন করে বড় ধরনের নাশকতার পরিকল্পনা ছিল জঙ্গিদের। এমন সংবাদের ভিত্তিতে রাতে রুবি ভিলায় অভিযান চলানো হয়। অভিযানের সময় জঙ্গিরা র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে গ্রেনেড ও গুলি ছুড়ে। পাল্টা জবাবে র‌্যাবও গুলি ছুড়ে। গোলাগুলিতে জঙ্গিরা নিহত হয়েছেন।’

‘আস্তানা থেকে দুইটি পিস্তল, তিনটি আইইডি, বিস্ফোরক জেল উদ্ধার করা হয়েছে। এ ছাড়া ঘটনাস্থলে পড়ে থাকা একটি লাশের নিচে থেকে একটি গ্রেনেড, গ্যাসের চুলার ওপর থেকে একটি গ্রেনেড ও সুইসাইডাল ভেস্ট উদ্ধার করা হয়েছে।’

মুফতি মাহমুদ জানান, ওই বাসার ৫ ও ৬ তলায় ভাড়াটিয়ারা মেস করে থাকেন। ৫ তলার সবকটি ফ্ল্যাট মিলিয়ে ২১ জনের মতো লোক ছিলেন। এর মধ্যে জঙ্গিরা যে ফ্ল্যাটে ছিলেন সেখানে সাতজন ছিলেন। নিহত তিনজন ছাড়া বাকিরা জঙ্গিবাদের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট নয়। নিহতরা একটি কক্ষেই থাকতেন।

তিনি বলেন, ‘গত বছরের ২৮ ডিসেম্বর জাহিদ নামে এক জঙ্গি এই বাড়ি ভাড়া নিতে আসেন। বাসা ভাড়া নেওয়ার সময় জানিয়েছিলেন তিনি একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। তিনি ও তার দুই ভাই একটি কক্ষে থাকার কথা বলেন। মাসিক ৫ হাজার ৩০০ টাকায় ওই ফ্ল্যাটের একটি কক্ষ ভাড়া নেন। ভাড়া বাবদ ২ হাজার টাকা ওই দিনই দিয়েছিলেন। ৪ জানুয়ারি জাহিদ একা বাসায় উঠেছিলেন। ৮ জানুয়ারি অন্য দুজন আসেন। ওই ফ্ল্যাটে যারা থাকতেন তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, পরে আসা দুজনকে বাসা থেকে বের হতে তারা দেখেননি।’  

মুফতি মাহমুদ জানান, বাড়ির মালিক সাব্বির হোসেন বিমানের ফ্লাইট অফিসার ছিলেন। বাড়ির ভাড়ার ব্যাপারে কেয়ারটেকার রুবেল দেখাশুনা করতেন। তিনিই বাসা ভাড়া দিয়েছিলেন। তা তাকে জিজ্ঞাসাবাদে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘আমাদের ক্রাইম সিন ম্যানেজমেন্ট শেষ হয়েছে। সেখান থেকে আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। অনুসন্ধানে তাদের ব্যাপারে আরো তথ্য পাওয়া যাবে।’

২০১৩ ও ২০১৬ সালে রুবি ভিলায় অভিযান চালিয়ে বেশ কয়েকজন জেএমবি সদস্যকে র‌্যাব আটক করেছিল বলেও জানান মুফতি মাহমুদ।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে পশ্চিম নাখালপাড়ার পুরাতন এমপি হোস্টেলসংলগ্ন ১৩/১ নম্বর হোল্ডিংয়ের রুবি ভিলা ঘিরে রাখে চালায় র‌্যাব। বাসায় তল্লাশির একপর্যায়ে ভেতরে থেকে র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ও গ্রেনেড ছুড়ে জঙ্গিরা। এ সময় র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। এ ঘটনায় র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হয়েছেন। তাদের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব। এর আগেই ওই ভবনের ৬৫ জন বাসিন্দাকে নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১২ জানুয়ারি ২০১৮/নূর/এসএন

Walton Laptop
 
   
Walton AC