ঢাকা, শুক্রবার, ৪ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৯ জুলাই ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

চার দেশের সমন্বয়ে হচ্ছে বাণিজ্য ফোরাম বিবিআইএন

: রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৬-০৬-২৭ ৬:৩৫:০০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৬-০৬-২৭ ৯:৪৮:২১ পিএম
Voice Control HD Smart LED

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশ, ভুটান, ইন্ডিয়া ও নেপালকে নিয়ে নতুন বাণিজ্য ফোরাম হতে যাচ্ছে। চার দেশের নামের প্রথম অক্ষর নিয়ে ফোরামটির নাম হচ্ছে- বিবিআইএন।

ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ (এফবিসিসিআই) এই ফোরামের উদ্যোক্তা। নতুন এই বিজনেস ফোরামের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হবে ১৪ জুলাই কলকাতায়।

সোমবার রাজধানীর মতিঝিলে ফেডারেশন ভবনে বিবিআইএন বিজনেস এক্সপোতে বাংলাদেশের অংশগ্রহণ নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমাদ।

তিনি আরো জানান, ১৫ জুলাই ভারতের শিলিগুড়িতে শুরু হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ-ভুটান-ইন্ডিয়া-নেপাল (বিবিআইএন) বিজনেস এক্সপো। এ এক্সপো চলবে ১৭ জুলাই পর্যন্ত। এ ছাড়া আগামী ১৪ জুলাই কলকাতায় বিবিআইএন বিজনেস ফোরামের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হবে।

আবদুল মাতলুব আহমাদ বলেন, বিবিআইএন বিজনেস এক্সপোর আয়োজন করতে যাচ্ছে ইন্ডিয়া চেম্বার অব কমার্স এবং ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ। এ ছাড়া এই এক্সপোতে অংশগ্রহণ করবে ফেডারেশন অব নেপাল চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি এবং ভুটান চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি।

এই এক্সপোতে অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর মধ্যে বিভিন্ন সভা-সেমিনার হবে। এ ছাড়া প্রত্যেক দেশ তাদের পণ্যসামগ্রী নিয়ে এক ছাদের নিচে হাজির হবে। অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর মধ্যে ট্রেড পলিসি এবং প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে বাণিজ্য-বাধা নিয়ে আলোচনা করা হবে। এখানে আমাদের পারস্পরিক ব্যবসায়িক সমস্যাগুলো চিহ্নিত করা হবে এবং এর সমাধানের পথ খোঁজা হবে।

এফবিসিসিআই সভাপতি জানান, ভারতের শিলিগুড়িতে অনুষ্ঠিতব্য বিবিআইএন বিজনেস এক্সপোতে বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত ও নেপালের ৬০টি স্টল বরাদ্দ থাকবে। এক্সপোতে বাংলাদেশে থেকে টেক্সটাইল ও কটন পণ্য, কৃষি ও উদ্ভিদজাত সামগ্রী, প্রক্রিয়াজাত খাদ্য, দুগ্ধজাত সামগ্রী, ইলেকট্রিক্যাল সামগ্রী, অবকাঠামো ও পরিবহনবিষয়ক পণ্য, কেমিক্যাল ও সার, তথ্যপ্রযুক্তি, চামড়াজাত পণ্য এবং অটোমোবাইল পণ্য প্রদর্শন ও বিক্রি করা হবে।

অনুষ্ঠানে আব্দুল মাতলুব আহমেদ বলেন, ঈদের ছুটিতে সরকারি ও বেসরকারি ব্যাংক বন্ধ থাকলে ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। এ জন্য ২ থেকে ৪ জুলাই— এ তিন দিন শুধু টাকা জমা দেওয়ার জন্য ব্যাংক খোলা রাখা জরুরি। তা না হলে ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারেন।


 


রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৭ জুন ২০১৬/হাসান/রফিক

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge