ঢাকা, শনিবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২৬ মে ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

আশরাফুল-তাইবুরের সেঞ্চুরি ছাপিয়ে নায়ক লিটন

আবু হোসেন পরাগ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০২-১৩ ৫:০৮:৫৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০২-২৩ ৫:৫৭:৫৫ পিএম
লিটন দাসের হাতে ম্যাচসেরার পুরস্কার তুলে দিচ্ছেন ওয়ালটন গ্রুপের এজিএম অগাস্টিন সুজন বারৈ || ছবি: জনি সোম

ক্রীড়া প্রতিবেদক : এবারের ওয়ালটন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে প্রথমবারের মতো এক ম্যাচে সেঞ্চুরি পেলেন একই দলের দুজন। কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের হয়ে মোহাম্মদ আশরাফুল করলেন ১০৪, তাইবুর রহমান ১১৪। তবে জোড়া সেঞ্চুরি ছাপিয়ে ম্যাচের নায়ক লিটন দাস। তার ১২৩ বলে অপরাজিত ১৪৩ রানের ঝোড়ো ইনিংসে কলাবাগানকে ৮ উইকেটে হারিয়েছে প্রাইম দোলেশ্বর।

মঙ্গলবার বিকেএসপির ৪ নম্বর মাঠে আগে ব্যাট করতে নেমে ৪ উইকেটে ২৯০ রানের বড় সংগ্রহ পেয়েছিল কলাবাগান। তবে লিটনের খুনে ব্যাটিংয়ে ৩০ বল বাকি থাকতেই ম্যাচ জিতেছে দোলেশ্বর। তৃতীয় ম্যাচে এটি দোলেশ্বরের দ্বিতীয় জয়। কলাবাগান হারল প্রথম তিন ম্যাচই।

এদিন টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৪৭ রানেই ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় কলাবাগান। তবে চতুর্থ উইকেটে ১৮৮ রানের বড় জুটি গড়েন আশরাফুল ও তাইবুর। এই জুটি গড়ার পথেই আশরাফুল তুলে নেন লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে তার ষষ্ঠ সেঞ্চুরি। সেঞ্চুরির পথে লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে ৫ হাজার রানের মাইলফলকও ছুঁয়েছেন জাতীয় দলের প্রাক্তন অধিনায়ক। ১৩১ বলে ১১টি চারে তিনি ফেরেন ১০৪ রান করে।

 



আশরাফুল আউট হওয়ার পরের বলে সিঙ্গেল নিয়ে সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন তাইবুরও। লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে প্রথম সেঞ্চুরির স্বাদ পেলেন ২৬ বছর বয়সি এই ব্যাটসম্যান। ১০৯ বলে ৯টি চার ও ৩টি ছক্কায় ১১৪ রানে অপরাজিত ছিলেন তাইবুর। তার সঙ্গে মুক্তার আলীর ১৫ বলে ৩ ছক্কা ও ২ চারে ৪০ রানের ঝোড়ো ইনিংসে বড় পুঁজি পায় কলাবাগান।

কলাবাগানের ২৯০ রানের বড় সংগ্রহকেও মামুলি বানিয়ে ফেললেন লিটন। তার সঙ্গে উদ্বোধনী জুটিতে ৮৫ রান যোগ করে ব্যক্তিগত ৪০ রানে ফেরেন ইমতিয়াজ হোসেন। এরপর দ্রুতই ফেরেন ফজলে মাহমুদ (১৬)। তবে মার্শাল আইয়ুবের সঙ্গে জুটি বেঁধে দলকে জয়ে দিকে এগিয়ে নিয়ে যান লিটন।

লিটন ফিফটি পূর্ণ করেন ৪৮ বলে। ৯৪ থেকে মুক্তারকে ছক্কা হাঁকিয়ে সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন ৯৪ বলে। সেঞ্চুরি পেতে পারতেন মার্শালও। সেজন্য অবশ্য কলাগাবানকে আর কিছু রান বেশি করতে হতো! দল আগেই জিতে যাওয়ায় ৯১ রানে অপরাজিত থাকতে হয়েছে মার্শালকে। তৃতীয় উইকেটে লিটন-মার্শালের অবিচ্ছিন্ন জুটি ১৭০ রানের।

৭৩ বলে ৯ চার ও ২ ছক্কায় ৯১ রানে অপরাজিত ছিলেন মার্শাল। আর লিটন ১২৩ বলে ১৪ চার ও ৩ ছক্কায় ১৪৩ রানের টর্নেডো ইনিংসটি খেলেন। ম্যাচসেরার পুরস্কারও জিতেছেন তিনিই।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/পরাগ

Walton Laptop
 
   
Walton AC