ঢাকা, সোমবার, ২ পৌষ ১৪২৫, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

মোহামেডানে বিধ্বস্ত অগ্রণী ব্যাংক

আবু হোসেন পরাগ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০২-১৯ ৫:৪৭:৫৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০২-১৯ ৬:০২:৩০ পিএম
ইরফান শুক্কুরের হাতে ম্যাচসেরার পুরস্কার তুলে দিচ্ছেন ওয়ালটন গ্রুপের সিনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর মিলটন আহমেদ (ডান থেকে দ্বিতীয়)

ক্রীড়া প্রতিবেদক : আগের দিন সন্ধ্যায় সিলেটে খেলেছেন জাতীয় দলের হয়ে। ম্যাচ শেষ করেই রাতের গাড়ি ধরে ফিরেছেন ঢাকায়। সকালে আবার নেমে গেলেন মাঠে। তবে ভাগ্য বদলেনি সৌম্য সরকারের।

সিলেটে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শেষ টি-টোয়েন্টিতে সৌম্য ৪ বলে করেছিলেন শূন্য রান। আজ ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে আরো দুই বল কম খেলেছেন, রান সেই শূন্যই। তার দল অগ্রণী ব্যাংকও হেরেছে বিশাল ব্যবধানে। নবাগত দলটিকে ১৫৯ রানে হারিয়েছে মোহামেডান। ৩৩৬ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ১৭৬ রানেই গুটিয়ে গেছে অগ্রণী।

এবারের ওয়ালটন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচেই হেরেছিল মোহামেডান। পরের দুই ম্যাচেই জিতল তারা। সমান ম্যাচে অগ্রণী ব্যাংকের এটি দ্বিতীয় হার।

এই ম্যাচ দিয়েই মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে ফিরেছে ওয়ালটন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ। সকালে টস হেরে ব্যাট করতে নেমেছিল মোহামেডান। ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ৩৩৫ রান করলেও মোহামেডানের ইনিংসে ছিল না কোনো সেঞ্চুরি।

সেঞ্চুরি থেকে ৮ রান দূরে থাকতে আউট হয়েছেন ইরফান শুক্কুর। ৮৩ বলে ৮ চার ও ২ ছক্কায় তার ৯২ রানই মোহামেডানের হয়ে সর্বোচ্চ ইনিংস। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৭৭ রান করেন রকিবুল হাসান। তার ৮৫ বলের ইনিংসে ছিল ৮টি চার। ভালো শুরুর পরও একটা সময় পথ হারানো মোহামেডানের বড় সংগ্রহের কৃতিত্ব এই দুজনেরই।

দুই ভাই রনি তালুকদার (২৬) ও জনি তালুকদার (৪৩) ৭১ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়েছিলেন। এরপর দ্রুতই মোহামেডানের স্কোর হয়ে যায় ৪ উইকেটে ১২১! সেখান থেকে পঞ্চম উইকেটে ১১২ রানের জুটি গড়েন রকিবুল ও শুক্কুর। শেষ দিকে বিপুল শর্মার ২৯ বলে ৪১ ও এনামুল হকের ৯ বলে ২০ রানের ছোট্ট ঝোড়ো ইনিংসে সাড়ে তিনশ’র কাছাকাছি পুঁজি পায় মোহামেডান।

বড় লক্ষ্য তাড়ায় ইনিংসের তৃতীয় বলেই সৌম্যকে হারায় অগ্রণী ব্যাংক। বাঁহাতি ব্যাটসম্যানকে বোল্ড করেন পেসার শুভাশিস রায়। আরেক ওপেনার আজমীর আহমেদও ফিরে যান দ্রুতই। অগ্রণীর স্কোর তখন ২ উইকেটে ১৩!

শুরুর ধাক্কটা আর সামলে উঠতে পারেনি অগ্রণী ব্যাংক। ৩৭.৪ ওভারে ১৭৬ রানেই অলআউট হয়ে যায় তারা। সর্বোচ্চ ৪০ রান করেন ধীমান ঘোষ। আর কেউ ত্রিশের ঘরেই যেতে পারেননি।

মোহামেডানের হয়ে ২টি করে উইকেট নিয়েছেন চারজন- শুভাশিস, কাজী অনিক, এনামুল হক ও বিপুল শর্মা। তাইজুল ইসলাম ও শামসুর রহমান পেয়েছেন একটি করে উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

মোহামেডান: ৫০ ওভারে ৩৩৫/৭ (জনি ৪৩, রনি ২৬, শামসুর ১, আমিনুল ১৭, রকিবুল ৭৭, ইরফান ৯২, বিপুল ৪১*, এনামুল ২০*; সৌম্য ২/৩২, আল-আমিন ২/৭০, শফিউল ২/৮৩, রাজ্জাক ২/৭২, ইসহাক ১/৩৮)

অগ্রণী ব্যাংক: ৩৭.৪ ওভারে ১৭৬ (আজমীর ৭, সৌম্য ০, শাহরিয়ার ২২, রহমতউল্লাহ ২২, ধীমান ৪০, সালমান ১৭, জাহিদ ১৭, রাজ্জাক ২৩, শফিউল ১৪, ইসহাক ৬, আল-আমিন ১*, বিপুল ২/২২, শুভাশিস ২/২৯, এনামুল ২/৩৫, অনিক ২/৪২, তাইজুল ১/২১, শামসুর ১/২৪)

ফল: মোহামেডান ১৫৯ রানে জয়ী

ম্যান অব দ্য ম্যাচ : ইরফান শুক্কুর।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/পরাগ

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC