ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩ পৌষ ১৪২৫, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

টানা বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে হাওরের বোরো

রুমন চক্রবর্তী : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৫-১৫ ১২:১১:০৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৮-১২ ১:২৭:০৯ পিএম

কিশোরগঞ্জ সংবাদদাতা : কিশোগঞ্জের নিকলী উপজেলায় কয়েক দিনের টানা বৃষ্টিতে তলিয়ে গেছে বোরো ধানের জমি।

এ উপজেলার সিংপুর ইউনিয়নের গোড়াদীঘা জোয়ারের হাওরে প্রতিদিনই বাড়ছে বৃষ্টির পানি। এ পর্যন্ত প্রায় এক হাজার হেক্টর জমির পাকা ও আধাপাকা বোরো ধানের জমি পানিতে তলিয়ে গেছে। ফলে বাধ্য হয়ে পানির নিচে তলিয়ে যাওয়া ধান শ্রমিকদের অর্ধেক ভাগ দিয়ে কাটতে শুরু করেছে কৃষক। আবার অনেকে ভাগে দিয়েও কাটতে পারছে না পাকা ধান।

অনেকের জন্যই ‘মরার উপর খাঁড়ার ঘা’ হয়ে দাঁড়িয়েছে শ্রমিক সংকট। প্রতি বছরই জেলার বাহির থেকে ধান কাটা মৌসুমে শ্রমিকরা ধান কাটতে আসে। কিন্তু চলতি মৌসুমে দেখা মিলছে না এসব ধান কাটা শ্রমিকের। ফলে হাওরের কৃষকরা তলিয়ে যাওয়া ধান সংগ্রহ নিয়েও বিপদে পড়েছে।

সরেজমিনে গোড়াদীঘা জোয়ারের হাওরসহ বিভিন্ন হাওর ঘুরে দেখা গেছে, শেষ মুহূর্তে এসে শ্রমিক সংকটে পড়ে এলাকার কৃষকরা দিশেহারা। শ্রমিক সংকটের কারণে অনেক কৃষক তাদের পরিবারের সদস্যদের দিয়েও ধান কাটাচ্ছে। বর্তমানে নিকলীতে শ্রমিকরা প্রতিদিন ১০০০-১২০০ টাকা করে মজুরি নিচ্ছে।

গোড়াদীঘা জোয়ারের হাওরে পাঁচ একর জমিতে বোরো চাষ করেছিলেন কৃষক জজ মিয়া । এ পর্যন্ত সবই ঠিক ছিল। কিন্তু রোববার সকালে ধান কাটতে এসে দেখেন জমির ওপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। ধান কাটার জন্য যে শ্রমিক ঠিক করেছিলেন, তাদের নিয়ে হতাশ হয়ে বাড়ি ফিরতে হয়েছে। কৃষকদের অভিযোগ, এ অবস্থায় উপজেলার কৃষি বিভাগের লোকজনদের মাঠে পাচ্ছেন না তারা। তাই সঠিক পরামর্শও পাওয়া যাচ্ছে না।

নিকলী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হারুন-অর-রশিদ জানান, গোড়াদীঘা জোয়ারের হাওরে  অতিবৃষ্টির কারণে পানি জমে আগাম বন্যা দেখা দিয়েছে। শুধু জোয়ারের হাওরের জমিই নয়, উপজেলার অন্যান্য হাওরেও জমির পাকা বোরো ধান নিয়ে বিপদে পড়েছেন কৃষক। রাস্তাগুলো বেশি খারাপ থাকায় হাওর থেকে ধান আনতে মহা বিপাকে পড়েছেন কৃষকরা।

নিকলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ ইয়াহ্ ইয়া খাঁন জানান, ঘোড়াউত্রা নদীর নাব্যতা না থাকায় অতিবৃষ্টির কারণে পানি বেড়ে গিয়ে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। প্রতি বছর যদি নদী ড্রেজিং ব্যবস্থা হতো, তাহলে হয়তো এমন সমস্যায় কৃষকদের পড়তে হতো না।




রাইজিংবিডি/কিশোরগঞ্জ/১৫ মে ২০১৮/রুমন চক্রবর্তী/টিপু

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC