ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ আষাঢ় ১৪২৪, ২৭ জুন ২০১৭
Risingbd
ঈদ মোবারক
সর্বশেষ:

বাগেরহাটে ইউপি চেয়ারম্যান সাময়িক বরখাস্ত

আলী আকবর টুটুল : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৬-১৯ ৭:৩২:১৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৬-১৯ ৭:৩২:১৫ পিএম

বাগেরহাট প্রতিনিধি : বাগেরহাটের সদর উপজেলায় ৯৭৭ জন বয়স্ক, বিধবা ও প্রতিবন্ধীর ভাতার টাকা কম দেওয়ার অভিযোগে ইউনিয়ন পরিষদের এক চেয়ারম্যানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. মাহবুবুর রহমান স্বাক্ষরিত চিঠিতে গোটাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ শমসের আলীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

এ সংক্রান্ত চিঠি আজ সোমবার বাগেরহাট জেলা প্রশাসনে পৌঁছেছে। তবে চেয়ারম্যান শেখ শমসের আলী শুরু থেকেই ঘুষ গ্রহণেরঅভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন। তিনি সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক।

গত ২৬ মার্চ উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা আবুল মোকাররম মো. ফজলে এলাহী বাগেরহাট মডেল থানায় শমসের আলীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় গত ২২ মে আদালতে হাজির হয়ে জামিন চাইলে আদালত তা নামঞ্জুর করে শমসের আলীকে কারাগারে পাঠান। কিছু দিন কারাভোগের পর তিনি জামিনে মুক্ত রয়েছেন। ওই মামলাটি বর্তমানে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) তদন্ত করছে।

গত ১৯ মার্চ সদর উপজেলার গোটাপাড়া ইউনিয়নের ৯৭৭ জন বয়স্ক, বিধবা ও প্রতিবন্ধীর মধ্যে ভাতার টাকা বিতরণে ২০০ থেকে ৩০০ টাকা করে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ ওঠে শমসের আলীর বিরুদ্ধে। যার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। পরে উপজেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাজমুল হুদা তদন্তে নেমে চেয়ারম্যানের অভিযোগের সত্যতা পেয়ে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেন। এর দুই দিন পর জরুরিসভা করে শমসের আলী ইউনিয়নের ৪নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য ও প্যানেল চেয়ারম্যান শেখ শহিদুল ইসলামকে তিনমাসের জন্য ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দিয়ে ছুটিতে যান।

বাগেরহাট সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুল হাফিজ বিকেলে এই প্রতিবেদককে বলেন, স্থানীয় সরকার, পল্লি উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. মাহবুবুর রহমান স্বাক্ষরিত গোটাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ শমসের আলীকে সাময়িক বরখাস্ত করার আদেশের চিঠি হাতে পেয়েছেন।



রাইজিংবিডি/বাগেরহাট/১৯ জুন ২০১৭/আলী আকবর টুটুল/বকুল

Walton Laptop