ঢাকা, রবিবার, ৪ ভাদ্র ১৪২৫, ১৯ আগস্ট ২০১৮
Risingbd
শোকাবহ অগাস্ট
সর্বশেষ:

খুলনায় ৭ পুলিশ কর্মকর্তা ও একটি ইউনিট পুরস্কৃত

মুহাম্মদ নূরুজ্জামান : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০২-১২ ৬:২৮:২৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০২-১৭ ১২:১৮:১৫ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা : খুলনা মহানগরীতে মাদকদ্রব্য ও চোরাই পণ্য উদ্ধার এবং অপরাধ দমনে  গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখায় পুলিশের সাত কর্মকর্তা ও একটি ইউনিটকে পুরস্কৃত করা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ সদর দপ্তরের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভা শেষে সংশ্লিষ্টদের হাতে এ পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। সভায় পুলিশ কমিশনার হুমায়ুন কবির, পিপিএম সভাপতিত্ব করেন।

পুরস্কারপ্রাপ্তদের মধ্যে অপরাধ পর্যালোচনা সভা শেষে মাদকদ্রব্য ও চোরাই পণ্য উদ্ধার এবং অপরাধ দমনের গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার স্বীকৃতিস্বরূপ শ্রেষ্ঠ জোনাল সহকারী পুলিশ কমিশনার হিসেবে খালিশপুর জোনের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার এসএম আল-বেরুনী, শ্রেষ্ঠ উদ্ধারকারী অফিসার হিসেবে সোনাডাঙ্গা মডেল থানার এসআই হরষিৎ মন্ডল, শ্রেষ্ঠ ট্রাফিক অফিসার হিসেবে সার্জেন্ট রিয়াজ উদ্দিন ভূঁইয়া, শ্রেষ্ঠ সিটিএসবি অফিসার হিসেবে এসআই শেখ আব্দুস সবুর, শ্রেষ্ঠ তদন্তকারী অফিসার হিসেবে খালিশপুর থানার এসআই মিজানুর রহমান, শ্রেষ্ঠ চৌকস অফিসার হিসেবে খুলনা থানার এসআই রফিকুল ইসলাম  ও এএসআই (নিঃ) আবু সুফিয়ান মোল্লা। এছাড়া সব ইউনিটের মধ্যে শ্রেষ্ঠ ইউনিট হিসেবে সোনাডাঙ্গা মডেল থানার পক্ষে অফিসার ইনচার্জ মো. মমতাজুল হক ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট  গ্রহণ করেন।

সভায় জানুয়ারি মাসের অপরাধ পর্যালোচনাপূর্বক খুলনা মহানগরীর সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশ কমিশনার আট দফা নির্দেশনা প্রদান করেন। এগুলো হচ্ছে- শিশু নির্যাতন সম্পর্কিত বিষয়সমূহের ক্ষেত্রে অনেক বেশি গুরুত্ব নিয়ে আসামি গ্রেপ্তার ও তদন্তকরণ, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নয়নের জন্য দৃশ্যমান পুলিশিং ব্যবস্থা গ্রহণ ও প্রোঅ্যাক্টিভ পুলিশিং জোরদারকরণ, অপরাধ নিবারণের জন্য সবাইকে সজাগ থাকা, অপরাধ ঘটলে দ্রুত তা উদঘাটন করে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার, পুলিশ ও কমিউনিটি পুলিশিং সদস্যদের নিয়ে মাদকাসক্ত ও মাদক ব্যবসায়ীদের তালিকা তৈরি করে তাদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা, যানজট নিরসনে অবৈধ পার্কিংয়ের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ, জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দমনে বিশেষ অভিযান পরিচালনা, ভাড়াটিয়াদের তথ্য হালনাগাদকরণ, ইভটিজিংয়ের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ এবং মহানগরীর ৩১টি ওয়ার্ডে বিট পুলিশিং কার্যক্রম এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য আরো বেশি জনসম্পৃক্ততা বৃদ্ধির ওপর জোর দেওয়া।



রাইজিংবিডি/খুলনা/১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/মুহাম্মদ নূরুজ্জামান/মুশফিক

Walton Laptop
 
     
Walton