ঢাকা, শুক্রবার, ১১ ফাল্গুন ১৪২৪, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮
Risingbd
অমর একুশে
সর্বশেষ:

নেত্রকোনায় শাশুড়িকে হত্যার দায়ে জামাতার ফাঁসি

ইকবাল হাসান : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০২-১৩ ৫:০২:৩৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০২-১৩ ৫:০২:৩৭ পিএম

নেত্রকোনা সংবাদদাতা : নেত্রকোনায় শাশুড়ি ফাতেমা আক্তারকে (৫০) কুপিয়ে হত্যার দায়ে মেয়ের জামাতা আলমগীর হোসেনকে (৩২) ফাঁসির আদেশ এবং ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন আদালত।

নেত্রকোনা জেলা ও দায়রা জজ কে এম রাশেদুজ্জামান রাজা আজ মঙ্গলবার দুপুরে জনাকীর্ণ আদালতে আসামির উপস্থিতিতে এ রায় প্রদান করেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, নেত্রকোনা সদর উপজেলার সিংহের বাংলা ইউনিয়নের মোবারকপুর গ্রামের আবদুল কাদিরের বাক-প্রতিবন্ধী মেয়ে রিনা আক্তারকে একই গ্রামের মৃত জব্বার আলীর ছেলে আলমগীর হোসেন ১১ বছর পূর্বে বিয়ে করে। বিয়ের পর জামাতা আলমগীর যৌতুক হিসেবে তার শ্বশুরবাড়ি থেকে একটি গরু কিনে দেওয়ার জন্য স্ত্রী রিনার ওপর নির্যাতন শুরু করে। নির্যাতন সইতে না পেরে রিনা ২০১৬ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি তার মায়ের কাছে চলে আসে। আলমগীর তার স্ত্রীকে জোরপূর্বক বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার জন্য গেলে শাশুড়ি তাকে বাধা দেন। এতে আলমগীর ক্ষিপ্ত হয়ে ২০১৬ সালের ১ মার্চ রাত সাড়ে ৮টার দিকে শাশুড়ি ফাতেমা খাতুনকে বাড়ির পাশে দা দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় নিহতের ছেলে রাসেল মিয়া বাদী হয়ে পরদিন আলমগীর হোসেনের বিরুদ্ধে নেত্রকোনা মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ তদন্ত শেষে একই বছরের ২৫ এপ্রিল আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে। বিজ্ঞ বিচারক মামলার আটজন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আসামি আলমগীর হোসেনের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার দুপুরে এ রায় প্রদান করেন।

সরকার পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন ভারপ্রাপ্ত পিপি অ্যাডভোকেট সাইফুল আলম প্রদীপ এবং আসামি পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট মুখলেছুর রহমান।



রাইজিংবিডি/নেত্রকোনা/১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/ইকবাল হাসান/মুশফিক

Walton
 
   
Marcel