ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

ফরিদপুরে অপহৃত স্কুলছাত্র উদ্ধার হয়নি

মো. মনিরুল ইসলাম টিটো : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৬-২২ ৯:৩৫:৩৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৬-২২ ৯:৩৫:৩৭ পিএম

ফরিদপুর প্রতিনিধি : ফরিদপুরে স্কুলছাত্র অন্তর অপহরণের দুই সপ্তাহ পেরিয়ে  গেলেও পুলিশ তাকে উদ্ধার করতে পারেনি। 

ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার তালমা ইউনিয়নের পাগলপাড়া গ্রামে অপহরণের ঘটনা ঘটে। শুক্রবার বিকেলে ফরিদপুর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে অপহৃত ছাত্রের মা জান্নাতি বেগম এই তথ্য জানিয়ে তাকে উদ্ধারের দাবি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে জান্নাতি বেগম দাবি করেন, গত ০৭ জুন রাত ৮টার দিকে তার বড় সন্তান, তালমা নাজিম উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র আলাউদ্দিন মাতুব্বর অন্তর (১৪) তারাবির নামাজ আদায় করতে বাড়ির অদূরে মসজিদে যায়। এরপর সে আর ফিরে আসেনি। অনেক খোঁজাখুজি করে তাকে না পেয়ে পর দিন নগরকান্দা থানায় অভিযোগ দেওয়া হয়। ওই দিন রাতে অন্তরের সঙ্গে থাকা মোবাইল ফোন থেকে পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে এসএমএস আসে। ওই নম্বর দিয়ে ফোন করে অন্তরকে অক্ষত পেতে মুক্তিপণের টাকা পরিশোধ করতে বলা হয়। এ ঘটনায় ১৫ জুন থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

তিনি বলেন, অপহরণকারীরা মুক্তিপণের জন্য চাপ দিলে পুলিশের সঙ্গে আলোচনা করে ১ লাখ ৪০ হাজার টাকা পরিশোধ করার সম্মতিতে রাত ১টার দিকে অপহরণকারীদের চাহিদা মতো তালমা এলাকার পাট ক্ষেতের মধ্যে মেশিন ঘরে টাকা রেখে আসার সিদ্ধান্ত হয়। থানা পুলিশের একটি দলকে সঙ্গে নিয়ে জান্নাতি বেগম মেশিনঘরে টাকা রেখে ৫০ থেকে ৬০ গজ দূরে অবস্থান নেয়। কিছুক্ষণ পর অপহরণকারীরা দুটি টর্চলাইলের আলো দিয়ে ওইস্থান থেকে টাকা নিয়ে নিরাপদে চলে যায়।

জান্নাতি বেগম দাবি করেন, এ সময় পুলিশকে তাদের আটক করতে পরামর্শ দেওয়া হলেও পুলিশ অন্তরকে জীবিত উদ্ধার করতে হলে অপহরণকারীদের এখন আটক করা যাবে না জানিয়ে অপহরণকারীদের আটক করেনি।

তিনি অপহৃত ছেলেকে উদ্ধারে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

জান্নাতি বেগম অভিযোগ করেন, পাশের বিল নালিয়া গ্রামের খোকন মাতুব্বর দুর্ধর্ষ প্রকৃতির লোক। দুই মাস আগে খোকন মাতুব্বরের নারী ঘটিত ঘটনা দেখে ফেলেছে অভিযোগ করে অন্তর ও তার পরিবারকে শাসিয়ে যায়।

জান্নাতি বেগমের খালাত ভাই সাইফুল ইসলাম সাব্বির জানান, জান্নাতি বেগমের আরেক ছেলে আরিফ মাতুব্বর পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্র। স্বামী আবুল হোসেন মাতুব্বর ১২ বছর গ্রিসে অবস্থান করছেন।

এ প্রসঙ্গে নগরকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ লুৎফর রহমান জানান, অপহরণের ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের পর সন্দেহভাজন হিসেবে খোকন মাতুব্বর, সুজন মাতুব্বর ও পিপরুল গ্রামের কামাল মাতুব্বরকে আটক করা হয়েছে। মুক্তিপণের টাকা লেনদেনের বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না বলে দাবি করেন।

 

 

 

রাইজিংবিডি/ফরিদপুর/২২ জুন ২০১৮/মো. মনিরুল ইসলাম টিটো/বকুল

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC