ঢাকা, শনিবার, ৬ শ্রাবণ ১৪২৫, ২১ জুলাই ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

বিচ্ছিন্ন চর মোজাম্মেলের মানুষ স্বাস্থ্য সেবা বঞ্চিত

ফয়সল বিন ইসলাম নয়ন : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৭-০৭ ৩:৩৮:৪৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৭-০৭ ৪:০৬:৫৯ পিএম

ভোলা সংবাদদাতা: দ্বীপজেলা ভোলা’র তজুমদ্দিন উপজেলায় মেঘনা নদীর বুকে জেগে উঠা বিচ্ছিন্ন জনপদ চর মোজাম্মেল। এখানে প্রায় ১৫ হাজার মানুষের বাস। ২০০৩ সালে এ চরে জন বসতি শুরু হয়।

সুদীর্ঘ ১৫ বছর ধরেই চর মোজাম্মেলের বাসিন্দারা স্বাস্থ্যসুবিধা বঞ্চিত। জন বসতি গড়ে ওঠার শুরু থেকেই এখানে আজও গড়ে উঠেনি কোন  সরকারি বা বেসরকারি  চিকিৎসা কেন্দ্র। নেই কোন ক্লিনিক বা হাসপাতাল।  এতে গর্ভবতী মায়েদের বেশি দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। জেলা বা উপজেলা সদরে চিকিৎসা নিতে গিয়ে পথে মৃত্যুর ঘটনাও ঘটছে।

এ চরে বসবাসরত অসহায় মানুষেরা চিকিৎসা সেবা পেতে সরকারের দায়িত্বশীল মহলের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন। অন্যদিকে ভোলা সিভিল সার্জন জানিয়েছেন সরকারের উর্ধ্বতনমহলে খুব দ্রুত সেখানে ক্লিনিক স্থাপনের প্রস্তাব পাঠানো হবে।

এখানকার মানুষের আয়ের উৎস্য কৃষি ও মৎস্য শিকার। চর মোজাম্মেল থেকে সংশ্লিষ্ট তজুমদ্দিন উপজেলা সদরে যেতে উত্তাল মেঘনা পাড়ি দিতে হয়। ট্রলারে  ১ ঘন্টারও বেশি সময় লাগে। থাকে জীবনের ঝুঁকিও। এতে জনপ্রতি ট্রলার ভাড়া দিতে হয় ৭০/৮০ টাকা । তাও আবার দিনে  ১/২ টি ট্রলার যাতায়াত করে ওই চরে। রোগী নিয়ে যেতে হলে ট্রলার রির্জাভ করে খরচ পরে ৪/৫ হাজার টাকা।দরিদ্র এ মানুষের পক্ষে এত টাকা খরচ অনেক সময় সম্ভব হয়না।

অন্যদিকে চর মোজাম্মেলে পর্যাপ্ত টিউবওয়েল না থাকায় নদী কিংবা খালের পানি পান করে রোগাক্রান্ত হচ্ছে শিশু ও বৃদ্ধরা।

চর মোজাম্মেলের মানুষের প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য মাঝে মধ্যে তজুমদ্দিন থেকে চিকিৎসক পাঠিয়ে চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন বলে জানান ইউপি চেয়ারম্যান ।

এব্যাপারে ভোলার সিভিল সার্জন ডা. রথীন্দ্রনাথ মজুমদার জানান, চর মোজাম্মেলে ক্লিনিক না থাকায় শীত মৌসুমে ট্রলার নিয়ে স্বাস্থ্য কর্মীরা চিকিৎসা সেবা দিতে যায়। চর মোজাম্মেলে কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপনের জন্য একটি প্রস্তাব পাঠানো হবে বলেও জানান তিনি।

 

 

 

 

রাইজিংবিডি/ভোলা /৭ জুলাই ২০১৮/ফয়সল বিন ইসলাম নয়ন /টিপু

Walton Laptop