ঢাকা, শুক্রবার, ২ ভাদ্র ১৪২৫, ১৭ আগস্ট ২০১৮
Risingbd
শোকাবহ অগাস্ট
সর্বশেষ:

আদালতে জবানবন্দি দিল শিশু মাহী

হাসান উল রাকিব : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৭-২২ ৮:৫৭:২৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৭-২৩ ১০:৩৯:২৭ এএম

নিজস্ব প্রতিবেদক, নারায়ণগঞ্জ : ফতুল্লায় এক দম্পতির বর্বর নির্যাতনের শিকার তাদের গৃহপরিচারিকা আট বছর বয়সী শিশু মাহী তার উপর চালানো নির্যাতনের  বর্ণনা দিয়ে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে।

আজ রোববার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আফতাবুজ্জামানের আদালতে ওই শিশুর জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়। পরে মাহীকে সমাজসেবা কার্যালয়ের অধীনে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার এসআই ইলিয়াস।

এ ব্যাপারে নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান জানিয়েছেন, নির্যাতিত শিশু মাহী আজ দুপুরে আদালতে নির্যাতনের ঘটনা বর্ণনা করে জবানবন্দি দিয়েছে। শিশু মাহীর মা ও বাবা এখনো পুলিশের সঙ্গে যোগযোগ না করায় আজ দুপুরে তাকে সমাজসেবা কর্মকর্তার জিম্বায় দেওয়া হয়েছে। গৃহকত্রী উর্মির মা লাভলী বেগমের মাধ্যমে শিশুটিকে তার বাড়িতে আনে। উর্মির মা কুমিল্লায় বসবাস করেন।  তাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল মাহীর মা-বাবাকে পুলিশের কাছে নিয়ে আসার। কিন্তু আজ বিকেল পর্যন্ত তারা পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করেনি।

শুক্রবার মধ্যরাতে ওই দম্পতি শিশুটিকে নির্যাতন করার সময় তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন গৃহকর্তা আতাউল্লাহর ঘরে গিয়ে ‘কী হয়েছে’ জানতে চায়। এ সময় ওই দম্পতি ঘরের দরজা না খুলে প্রতিবেশীদের সঙ্গে অশোভন আচরণ করেন। পরে প্রতিবেশীরা ঘরের দরজা ভেঙে নির্যাতিত শিশুকে উদ্ধার করে। এলাকাবাসী তাদের উত্তম মাধ্যম দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। তারা এখন কারাগারে।

তিন মাস আগে গৃহকত্রী উর্মি তার মা লাভলী বেগমের মাধ্যমে শিশু মাহীকে তার বাড়ির গৃহপরিচারিকার কাজে নেয়। শিশু মাহীর পালক বাবা ও মা গাজীপুরের একটি পোশাক কারখানায় কাজ করে। শিশু মাহীর সারা শরীরের আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। তার দুই হাতে খুন্তির পোড়া, ছেকার দাগ রয়েছে।



রাইজিংবিডি/নারায়ণগঞ্জ/২২ জুলাই ২০১৮/হাসান উল রাকিব/বকুল

Walton Laptop
 
     
Walton