ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ২০ নভেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

অর্থের অভাবে তমার দ্বিতীয় দফা চিকিৎসায় অনিশ্চয়তা

শাহরিয়ার সিফাত : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-১০-১৬ ১০:০৪:৪১ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১০-১৬ ১:৫১:৩২ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক, টাঙ্গাইল ও ঢাকা : অর্থের অভাবে বন্ধ হওয়ার পথে ভাসকুলার ম্যালফরমেশন রোগে আক্রান্ত টাঙ্গাইলের বাসাইলের তমা আক্তারের চিকিৎসা।

চলতি সপ্তাহ থেকে রক্তনালীর টিউমারে আক্রান্ত তমার দ্বিতীয় দফা চিকিৎসা শুরুর কথা রয়েছে। কিন্তু প্রয়োজনীয় অর্থ না থাকায় তা অনেকটাই অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার যোশীহাটি পশ্চিমপাড়া গ্রামের দরিদ্র কৃষক আতাহার আলী ও শারমিন বেগম দম্পতির মেয়ে তমা। জন্ম থেকেই ভাসকুলার ম্যাফরমেশন বা রক্তনালীর টিউমারে আক্রান্ত। পাঁচ ভাই-বোনের মধ্যে সবার ছোট। জন্ম থেকেই মুখে টিউমারের মতো মাংসপিন্ডকে সঙ্গী করে বড় হয়েছে। বয়স বাড়ার সাথে সাথে বেড়েছে মাংসপিন্ডের আকৃতি। ছোট সময় পরিবারের পক্ষ থেকে তাকে দু-একবার চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হলেও, অর্থের অভাবে সেই রোগের কোনো চিকিৎসা করাতে পারেননি তমার বাবা-মা। এভাবেই বড় হয় তমা।

চলতি বছর জশিহাটি দাখিল মাদ্রাসা থেকে দাখিল পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয় তমা। এর আগে গত বছর তমাকে নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়। সে সময় দেশের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘রাইজিংবিডি ডটকমের’ সহায়তায় তমাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়। এছাড়া বাসাইলের তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সায়মা আক্তার তমাকে ঢাকায় নিতে সহযোগিতা করেন।

ঢাকায় নেওয়ার পর তমাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল  বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ও হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) ফ্রি বেডে চিকিৎসা নেওয়ার সুযোগ করে দেওয়া হলে, সেখানে বিভিন্ন পরীক্ষার পর চিকিৎসকরা নিশ্চিত হোন, তমা ভাসকুলার ম্যালফরমেশন বা রক্তনালী টিউমারে আক্রান্ত। দীর্ঘমেয়াদী চিকিৎসায় সেই রোগ নিরাময় সম্ভব।

পরবর্তীতে ২০১৭ সালের ২৪ এপ্রিল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের প্রধান সহকারী অধ্যাপক ডা. মো. ইকবাল মাহমুদ চৌধুরী রনির অধীনে শুরু হয় তমার চিকিৎসা। চিকিৎসায় তমার পরিবার প্রয়োজনীয় মেডিসিন ও পরীক্ষা-নিরীক্ষার খরচ বহনের অক্ষম থাকায়, তমার চিকিৎসার খরচ বহনের জন্য আহ্বান জানানো হয়। সে সময় দেশের স্বনামধন্য ইলেকট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিক্স ও হোম অ্যাপ্লায়েন্স প্রস্তুতকারী দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটন তমার পাশে দাঁড়ায়। ‘টাকার অভাবে বন্ধ হতে পারে তমার চিকিৎসা- এমন সংবাদ অনলাইন নিউজ পোর্টাল রাইজিংবিডিতে প্রকাশ হওয়ার পর তমার চিকিৎসার জন্য এক লাখ টাকা দিয়ে সহযোগিতা করে প্রতিষ্ঠানটি। এছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও বিভিন্ন গণমাধ্যমে তমার চিকিৎসা বিষয়ে জানতে পেরে আরো সাড়ে ৩ লাখ টাকা সাহায্য উঠে। সেই সাড়ে ৪ লাখ টাকা দিয়ে প্রায় ৮ মাস সময় ধরে তমার মুখে ৪টি অস্ত্রোপচার করা হয়।
 


চলতি সপ্তাহ থেকে তমার মুখে বিভিন্ন ধাপে আরো কয়েকটি অস্ত্রোপচারের কথা রয়েছে। কিন্তু সেই অস্ত্রোপচারের জন্য মেডিসিন ও পরীক্ষা-নিরীক্ষার প্রয়োজনীয় অর্থ না থাকায় দুশ্চিন্তায় তমার পরিবার।

তমার বাবা-মা জানান, প্রথম ধাপের চিকিৎসার সময় বিভিন্ন মাধ্যম থেকে মোট সাড়ে ৪ লাখ টাকা সাহায্য এসেছিল। যার প্রায় পুরোটাই চিকিৎসায় খরচ হয়েছে। সেখান থেকে ৩০ হাজার টাকা অবশিষ্ট রয়েছে। চলতি সপ্তাহ থেকে দ্বিতীয় ধাপের চিকিৎসা শুরু হলে প্রাথমিক টেস্টেই সেই টাকা খরচ হবে। এতে করে অপারেশন শুরু করা হয়তো সম্ভব হবে না।

তমার চিকিৎসক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের প্রধান সহকারী অধ্যাপক ডা. মো. ইকবাল মাহমুদ চৌধুরী রনি রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘তমার রোগটি একটি জটিল রোগ। চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় এটিকে বলে ভাসকুল্যার ম্যালফরমেশন। দীর্ঘমেয়াদী চিকিৎসায় এই  রোগের নিরাময় পুরোপুরি সম্ভব। ইতিমধ্যেই তমাকে চার দফা অপারেশন করা হয়েছে। তমার ৪ দফা অপারেশনের সাথে সংশ্লিষ্ট নানা বিষয়ে অনেক খরচ হয়ে গেছে। তার টিউমারের শতকরা ৬০ ভাগ নিরাময় করা গেছে। দ্রুত বাকি অংশ নিরাময়ের জন্য চিকিৎসা শুরু করতে হবে। পুরোপুরি সুস্থ হতে তমার প্লাস্টিক সার্জারিসহ ৩-৪টি অপারেশন করতে হবে। এতে প্রায় আড়াই থেকে তিন লাখ টাকা খরচ হতে পারে।’

তিনি বলেন, সবগুলো চিকিৎসা ধাপ শেষ করা গেলে তমার মুখমন্ডল স্বাভাবিক হয়ে আসবে। তাই সমাজের বিত্তশালীরা যদি তমার চিকিৎসার সাহায্যে এগিয়ে আসে, তবে তমার চিকিৎসায় আর্থিক যে প্রতিবন্ধকতা রয়েছে তা হয়তো দূর হয়ে যাবে। মেয়েটিও স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে পারবে।

তমার চিকিৎসার জন্য বিত্তবান ব্যক্তিদের কাছে অর্থ সহযোগিতা কামনা করেছেন তার পরিবারের সদস্যরা। তমার বাবার ব্যক্তিগত বিকাশ নম্বর- ০১৭৪৭-২৪৪৯০৬। এছাড়া ব্যাংকের মাধ্যমে অর্থ সাহায্য করা যাবে-শারমিন আক্তার, অ্যাকাউন্ট নম্বর: ৩৪০২০৩৪৩, অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড, আইশরা ব্রাঞ্চ, বাসাইল, টাঙ্গাইল।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৬ অক্টোবর ২০১৮/সিফাত/সাওন/সাইফ

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC