ঢাকা, শুক্রবার, ৮ আষাঢ় ১৪২৬, ২১ জুন ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

খুলনায় সংগীত শিল্পী শাওনের লাশ উদ্ধার

মুহাম্মদ নূরুজ্জামান : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৫-১৯ ৭:২৮:৫৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৫-১৯ ৭:২৮:৫৭ পিএম
Walton AC 10% Discount

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা : খুলনার রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী ও স্কুল শিক্ষিকা ফারহানা ইয়াসমিন শাওনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

রোববার নগরীর শেরে বাংলা রোডের ৩নং কাশিমনগর শিল্প এলাকার ভাড়া বাসা থেকে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে। অতিরিক্ত ঘুমের ওষুধ খাওয়ায় তার মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ ও চিকিৎসকরা।

শাওন নগরীর আলকাতরা মিল এলাকার শেখ আবদুল হকের মেয়ে। এক বোন ও এক ভাইয়ের মধ্যে শাওন বড়। তিনি ডুমুরিয়া সাজিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক ছিলেন। খুলনার ভাড়া বাসা থেকে শিক্ষকতা করতেন। পাশাপাশি রবীন্দ্র সংগীতের প্রশিক্ষক হিসেবে খ্যাতি ছিল তার। গত ৬ মে জাতীয় রবীন্দ্র সঙ্গীত সম্মিলন পরিষদ ডুমুরিয়া উপজেলা শাখার কমিটি গঠন করা হয়। এতে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দেওয়া হয় শাওনকে।

শাওনের সহকর্মী লিটন ঢালী জানান, ছয় মাস আগে স্বামী অপু খানের সঙ্গে ডিভোর্স হয় শাওনের। এ নিয়ে মানসিকভাবে তিনি কিছুটা বিপর্যস্ত ছিলেন। বাবার বাড়ি পাশে হলেও তিনি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আরেক শিক্ষক শাহানা আলিমার সঙ্গে কাশিমনগর এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন।

শাওনের রুমমেট শাহানা আলিমা জানান, সকালে ঘুম থেকে উঠে শাওনকে মানসিকভাবে কিছুটা বিপর্যস্ত দেখেন। দুই জনে কিছু কথা বলার পর যে যার কক্ষে চলে যান। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শাওনের ঘর থেকে কোনো শব্দ না আসায় তিনি ডাকাডাকি করেন। পরে আশপাশের বাড়ি থেকে অন্যরা এসে কাঁচের দরজা ভেঙে শাওনকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খুলনা সদর থানার ওসি হুমায়ুন কবীর জানান, মানসিকভাবে কিছুটা খারাপ থাকায় শাওন প্রায় ঘুমের ওষুধ খেতেন। পরিবার ও বন্ধুদের পক্ষ থেকে একাধিকবার তাকে ঘুমের ওষুধ খেতে নিষেধ করা হয়েছিল। কিন্তু তারপরও তিনি শুনতেন না।

তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে আত্মহত্যা করেছেন বলেই মনে হচ্ছে। তারপরও সঠিক কারণ খুঁজে বের করতে লাশ ময়না তদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।



রাইজিংবিডি/খুলনা/১৯ মে ২০১৯/মুহাম্মদ নূরুজ্জামান/বকুল

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge