ঢাকা, সোমবার, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ২০ নভেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

‘অপচয় দুর্নীতির চেয়েও বেশি খারাপ’

এম এ রহমান : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৪-২০ ৪:২১:০৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৪-২০ ৪:২১:০৭ পিএম

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : অপচয় দুর্নীতির চেয়েও বেশি খারাপ। অপচয় কমলে দুর্নীতিও কমবে বলে মনে করেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর ঢাকা চেম্বার অব কমার্সের (ডিসিসিআই) অডিটেরিয়ামে ‘রোড টু ২০৩০ : স্ট্রাটেজিক প্রোপার্টিজ’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ডিসিসিআই এবং ইকোনোমিক রিপোর্টার্স ফোরাম (ইআরএফ) যৌথভাবে এই সেমিনার আয়োজন করে।

সেমিনারে উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন ইআরএফের সভাপতি মো. সাইফ ইসলাম দিলাল। আর মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ডিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট মো. আবুল কাশেম খান।

এম এ মান্নান বলেন, দেশের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রীর অনেক আন্তরিকতা রয়েছে। একনেক সভায় দেখেছি অনেক সুন্দর প্রস্তাব অনুমোদনের পর আমাদের আমলাতান্ত্রিক নামক মেশিনে ঢোকার পর কেন যেন হারিয়ে যায়, কেমন যেন হয়ে যায়। অনেক কিছু দীর্ঘমেয়াদি জটিলতায় পড়ে যায়। আসলে আমাদের অনেক কিছুর অপচয় হচ্ছে।

তিনি বলেন, আমি অপচয় দেখলে অনেক কষ্ট পাই। আমার মনে হয় অপচয় দুর্নীতির চেয়েও বেশি খারাপ। এ অপচয় যদি কমাতে পারতাম তাহলে দুর্নীতি কমাতে পারতাম। আর কাজ না করা অপচয়ের চেয়ে আরো বেশি খারাপ। এ থেকে পরিত্রাণ না পেলে বাংলাদেশ আধুনিক ও উন্নত দেশে পরিণত হতে পারবে না।

অর্থ প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের এমন সংস্কৃতি চলছে যে, প্রধানমন্ত্রীর চেয়ে শক্তিশালী কেউও যদি ক্ষমতায় আসে তাহলেও কিছু করতে পারবে না। তবে আমাদের পরিবর্তন হচ্ছে। ২২ বছরের পাকিস্তানি ভাইরাস এখনো রয়ে গেছে। এখানে কোনো কাজ আধুনিক ও বিজ্ঞানসম্মতভাবে করা যায় না। তবে আমরা বিশ্বাস করি আমরা সঠিক পথেই রয়েছি। আমাদের উন্নতি হবেই।

তিনি বলেন, আশার কথা হচ্ছে আমাদের প্রাইভেট সেক্টর আগাচ্ছে। তাদের সঙ্গে এরূপ ধারাবাহিক ডায়ালগ ও সেমিনার করতে থাকলে সমস্যা থেকে বেরুতে পারব। আমাদের দেশে মোটামুটি সবাই অর্থনীতি ভালো বুঝে। একজন কৃষকও বুঝে কী করলে দেশের উন্নয়ন হবে। একজন কৃষক অর্থনীতি সম্পর্কে যে ধারণা রাখে তা আমাদের দীর্ঘ পড়াশোনা করে অর্জন করতে হয়। এটা অবশ্যই ইতিবাচক বিষয়।

সেমিনারে আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ইকোনোমিক জোনস অথরিটির (বেজা) নির্বাহী চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী,  ইআরএফের সাধারণ সম্পাদক ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল অর্থসূচকের সম্পাদক মো. জিয়াউর রহমান, ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেসের সম্পাদক মো. মোয়াজ্জেম হোসেনসহ ডিসিসিআই ও ইআরএফের নেতৃবৃন্দ।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২০ এপ্রিল ২০১৭/এম এ রহমান/মুশফিক

Walton
 
   
Marcel