ঢাকা, সোমবার, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ২০ নভেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

‘ওয়ালটনের সঙ্গে ব্যবসায় দরকার বিশ্বাস ও কমিটমেন্ট রক্ষা’

রেজাউল করিম : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-১০-১৮ ৭:৩৪:০৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-১০-১৮ ৮:০৯:৪৬ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম : ওয়ালটন গ্রুপের অপারেটিং ডিরেক্টর (মার্কেটিং) মোহাম্মদ রায়হান বলেছেন, ওয়ালটনের সঙ্গে ব্যবসা করতে দরকার বিশ্বাস এবং কমিটমেন্ট রক্ষা করার মানসিকতা।

চট্টগ্রাম নগরীর লালখান বাজারস্থ পিটস্টপ রেস্টুরেন্টে লাবিব মার্কেটিং কোম্পানির আয়োজনে বুধবার দিনব্যাপী রিটেইলার এবং সাব-ডিলার কনফারেন্সে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

মোহাম্মদ রায়হান বলেন, ওয়ালটন কখনো একা নিজে লাভবান হতে চায় না। ওয়ালটন চায় যারা ওয়ালটনের সঙ্গে ব্যবসা করে, তারা নিজেরা যেন লাভবান হয়। নিজেরা ব্যবসায়িকভাবে প্রতিষ্ঠিত হয়।

ওয়ালটনের মার্কেটিং বিভাগের ঊর্ধ্বতন এই কর্মকর্তা সাব-ডিলার ও রিটেইলারদের উদ্দেশে বলেন, ওয়ালটন এখন একটি আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ড, বিশ্বের ২০টিরও বেশি দেশে ইলেক্ট্রনিকস পণ্যে ওয়ালটন বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছে। তাই ওয়ালটন পণ্য নিয়ে যারা ব্যবসা করছেন, তারা নিজেরাও গর্ব করতে পারেন।  



তিনি জানান, ওয়ালটন সব সময় তার গ্রাহকদের সর্বোচ্চ সেবা নিশ্চিত করে থাকে। পণ্যের সার্ভিস নিশ্চিত করতে সারা দেশে আন্তর্জাতিক মানের ৫৭টি সার্ভিস পয়েন্ট চালু করেছে। আগামীতে সার্ভিস পৌঁছে যাবে গ্রাহকদের দোড়গোড়ায়। প্রতিটি এক্সক্লুসিভ ডিলার পয়েন্টে সার্ভিস সেন্টার চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে। তাই ওয়ালটনের পণ্য কিনে কাউকে যেন ন্যূনতম ভোগান্তির শিকার হতে না হয়, সেই ব্যাপারে গুরুত্ব দিয়ে গ্রাহক সেবা সুনিশ্চিত করছে কোম্পানিটি। সাব-ডিলার এবং রিটেইলারদের সর্বোচ্চ মুনাফা এবং সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করতে বিভিন্ন নীতিমালা সংশোধনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।    

ওয়ালটনের মার্কেটিং বিভাগের এসিস্টেন্ট জেনারেল ম্যানেজার শাহ শহীদ চৌধুরীর সঞ্চালনায়, লাবিব মার্কেটিং কোম্পানির চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শাখাওয়াত হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন ওয়ালটনের ফার্স্ট সিনিয়র ডেপুটি ডিরেক্টর মোহাম্মদ শফিউল্লাহ এবং সফিউল্লাহ লিটন, চট্টগ্রাম অঞ্চলের এরিয়া ম্যানেজার হারুন-অর-রশিদ, মার্কেটিং বিভাগের কর্মকর্তা আবদুস সবুর, চট্টগ্রাম লাবিব মার্কেটিং কোম্পানির ম্যানেজিং ডিরেক্টর মোহাম্মদ দিদারুল আলম, চাক্তাইয়ের ব্যবসায়ী আলহাজ্ব নুরুল আজিম, বহদ্দার হাটের ব্যবসায়ী দোস্ত মোহাম্মদ, হাজী মমতাজ বজল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব তসকির আহাম্মদ, ব্যবসায়ী মোহাম্মদ ইসমাইল প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটনের অক্সিজেন সার্ভিস পয়েন্ট ইনচার্জ মনি শঙ্কর। উপস্থিত সাব-ডিলারদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নুরুল আবসার, মনসুরুল হাসান জিয়া।

কনফারেন্সে ওয়ালটনের বিভিন্ন পণ্য বিশেষ করে মোবাইল ফোন, এলইডি টেলিভিশন, ফ্রিজ, হোম এপ্লাইয়েন্স ইত্যাদি পণ্যের উৎপাদন প্রক্রিয়া থেকে শুরু করে ভোক্তা পর্যায়ে পৌঁছানো পর্যন্ত বিভিন্ন বিষয় খুচরা বিক্রেতা এবং সাব ডিলারদের সামনে তুলে ধরা হয়। এ ছাড়া ওয়ালটনের চলমান প্রমোশনাল কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত করা হয়। চট্টগ্রাম মহানগরী এবং জেলার ৬৫ জন সাব-ডিলার এবং রিটেইলার কনফারেন্সে অংশ নেন।



কনফারেন্স শেষে প্রধান অতিথি সাব-ডিলারদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। এ ছাড়া পণ্য সর্বোচ্চ বিক্রয় এবং কোম্পানিকে সর্বোচ্চ রাজস্ব দেওয়ায় তিনজন সাব-ডিলারকে সম্মাননা ক্রেস্ট দেওয়া হয়। সব শেষে কৌতুক ও গান পরিবেশন করে ডিলারদের মুগ্ধ করেন এনটিভির ওয়ালটন হা শো’র বিজয়ী প্রতিযোগী মহারাজ ইমন, মিলা নোভা।



রাইজিংবিডি/চট্টগ্রাম/১৮ অক্টোবর ২০১৭/রেজাউল/বকুল

Walton
 
   
Marcel