ঢাকা, বুধবার, ১১ মাঘ ১৪২৪, ২৪ জানুয়ারি ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

নগদ সহায়তার অর্থ ছাড়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের চিঠি

কেএমএ হাসনাত : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০১-১১ ৫:৫১:১৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০১-১১ ৫:৫১:১৭ পিএম

কেএমএ হাসনাত : নগদ সহায়তা/ভর্তুকি পরিশোধের জন্য চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরের তৃতীয় কিস্তির অর্থ ছাড় করতে অর্থ মন্ত্রণালয়ে চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

এ অর্থ রপ্তানিমুখী দেশীয় বস্ত্র, হিমায়িত চিংড়ি ও অন্যান্য মাছ, চামড়াজাত দ্রব্য, ও পাটজাত দ্রব্যসহ অনুমোদিত অন্যান্য খাতে রপ্তানির বিপরীতে বরাদ্দ দেওয়া হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানসমূহকে নগদ সহায়তা দেওয়ার জন্য চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরের দ্বিতীয় কিস্তির পাট খাতে ১২৫ কোটি টাকা এবং পাট ছাড়া অন্যান্য খাতে এক হাজার কোটি টাকাসহ মোট এক হাজার ১২৫ কোটি টাকা বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুকূলে ছাড় করা হয়। ছাড় করা উক্ত অর্থের পুরোটাই এরই মধ্যে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে দেওয়া হয়েছে।

সূত্র জানায়, এর আগে গত বছর ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর অপরিশোধিত দাবির পরিমাণ প্রায় এক হাজার ৪৮৬ কোটি ৯৯ লাখ টাকা। যার মধ্যে পাট খাতে অপরিশোধিত দাবির পরিমাণ ১২ কোটি ৫৩ লাখ টাকা এবং পাট ছাড়া অন্যান্য খাতে অপরিশোধিত দাবির পরিমাণ প্রায় এক হাজার ৪৭৭ কোটি ৪৬ লাখ টাকা।

সূত্র জানায়, বিগত মাসগুলোতে ব্যাংকগুলোর আবেদন অর্থের ধারা পর্যালোচনা করে অনুমিত হয় যে, চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরের তৃতীয় কিস্তিতে (৩১ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত) পাট খাতে প্রায় ১৩০ কোটি টাকা এবং পাট ছাড়া অন্যান্য খাতে দুই হাজার ৪৩০ কোটিসহ মোট দুই হাজার ৫৮০ কোটি টাকার প্রয়োজন হবে।

সূত্র জানায়, পাট খাতসহ রপ্তানি খাতে অন্যান্য খাতেরু বিপরীতে নগদ সহায়তা/ভর্তুকির জন্য উক্ত পরিমাণ অর্থ বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুকূলে ছাড় করার অনুরোধ জানিয়েছে। এ বিষয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা জানান। অর্থ ছাড়ের বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের চিঠি অর্থ মন্ত্রণালয়ে এসেছে বিষয়টি পর্যালোচনা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ জানুয়ারি ২০১৮/হাসনাত/সাইফ

Walton
 
   
Marcel