ঢাকা, বুধবার, ৯ ফাল্গুন ১৪২৪, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮
Risingbd
অমর একুশে
সর্বশেষ:

বাণিজ্য মেলায় ব্লেজারে আখেরি অফার

হাসিবুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০১-২৪ ৬:৩৫:২৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০১-২৪ ৬:৩৫:২৮ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : আখেরি অফারে সুলভ মূল্যে স্যুট, কোট, ব্লেজার মিলছে ২৩তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায়।

বিভিন্ন ফ্যাশন হাউজের কোট-ব্লেজার দাম হাতের নাগালে থাকায় সব বয়সী মানুষ ভিড় জমাচ্ছে এসব স্টলে।

মেলা ঘুরে দেখা গেছে, কোট-ব্লেজার বিক্রেতাদের হাঁক-ডাক। ক্রেতাদের আকৃষ্ট করতে কেউ দিচ্ছেন মূল্যছাড়, আবার কেউ কেউ দিচ্ছেন আখেরি, গোল্ডেন ও বাম্পার অফার।

মেলায় পছন্দসই যেকোনো স্যুট, কোট, ব্লেজার পাওয়া যাচ্ছে ১ হাজার ৫০০ থেকে ২ হাজার ২০০ টাকার মধ্যে। অর্ধশতাধিক স্টল নানা রঙ ও সাইজের এসব কোট-ব্লেজারের পসরা সাজিয়েছে। মনকাড়া রঙ আর ডিজাইনের সঙ্গে নিজের সাইজটি শুধু মিলিয়ে নিতে হবে আপনাকে।

এসব দোকানে ব্লেজারের পাশাপাশি স্যুট, মুজিব কোট, মোদি কোটসহ প্রয়োজনীয় জিনিস পাবেন  ৬০০ থেকে ৮০০ টাকায়।

 



উত্তরা থেকে মেলায় ঘুরতে আসা একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া হামিম খান জানান, ‘ব্লেজার কেনার শখ অনেক দিনের। কিন্তু বাইরে থেকে বানাতে গেলে ৫ হাজার টাকার উপরে খরচ পড়ে যায় বলে বানানো হয়নি। বাণিজ্য মেলায় কম দামে পাওয়া যায় বলে কিনতে আসলাম।

তিনি বলেন, দিন যত গড়াবে ব্লেজারের দাম ততো কমবে। যে ব্লেজার এখন ১ হাজার ৫০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, একই ব্লেজার ১ হাজার টাকা বা তারও কম দামে পাওয়া যাবে মেলা শেষ হওয়ার দুই-তিন দিন আগে। এমনকি শেষ দিন বিকেলে ৫০০ টাকাতেও ব্লেজার বিক্রি করার রেকর্ড আছে বাণিজ্য মেলায়।

রাইহান ফ্যাশন ওয়্যারের বিক্রেতা মোহাম্মদ ইমন বলেন, বিক্রি খুব একটা ভালো হচ্ছে না। অনেকে মনে করেন, মেলার শেষের দিকে দাম কমে। তাই অনেকেই মেলার শেষের দুই দিন ব্লেজার কেনেন।

তিনি আরো বলেন, ক্রেতারা তারা আসলে ভুল মনে করছে। ব্লেজার মানের ওপর দাম নির্ধারণ হয়। এখন দোকানে যে কোট-ব্লেজার আছে সেগুলোর দাম কমার সম্ভাবনা নেই।

তবে আরেকজন বিক্রেতা বলেন, মেলা থেকে আমরা কোনো মাল ফেরত নেই না। এখন যে মালগুলো দোকানে আছে সেগুলো মেলা শেষ হওয়ার দুই দিন আগে স্টোরে নিয়ে যাব। আর নতুন ব্লেজার আনব। ওই ব্লেজারগুলো কম দামে বিক্রি হয় মেলার শেষের দিকে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৩ জানুয়ারি ২০১৮/হাসিবুল/রফিক

Walton
 
   
Marcel