ঢাকা, শনিবার, ১১ ফাল্গুন ১৪২৫, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

আরিফুল-আফিফদের থেকে ভয়ডরহীন ক্রিকেট চান অধিনায়ক

ইয়াসিন : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০২-১৪ ৬:০২:২৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০২-১৪ ৯:৪২:২১ পিএম

ক্রীড়া প্রতিবেদক : শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে সুযোগ পাওয়া নতুন ছয় ক্রিকেটারের থেকে বড় সাফল্যের প্রত্যাশা করছেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো পারফরম্যান্সের পুরস্কার হিসেবে জাতীয় দলে সুযোগ পেয়েছেন ছয় ক্রিকেটার। জাকির হাসান, আরিফুল হক, আবু জায়েদ রাহী, আফিফ হোসেন, নাজমুল ইসলাম অপু ও মেহেদী হাসান প্রথমবারের মতো এসেছেন জাতীয় দলে। সবশেষ বিপিএলে এই ছয় ক্রিকেটারের পারফরম্যান্স হয়েছিল প্রশংসিত। নিজ নিজ দলের একাধিক সাফেল্যের রূপকার ছিলেন তারা।

ভয়ডরহীন ক্রিকেট উপহার দিয়ে বিপিএল মাতিয়ে রেখেছিলেন। আন্তর্জাতিক মঞ্চেও তাদের থেকে একই পারফরম্যান্স প্রত্যাশা করছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ।



ম্যাচ-পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে আজ মিরপুরে মাহমুদউল্লাহ বলেছেন, ‘টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ভয়ডরহীন ক্রিকেট খেলা উচিত। ব্যর্থতা নিয়ে যদি চিন্তা করেন, তাহলে সাফল্যের পরিমাণটাও কমে যাবে। ভয়ডরহীন ক্রিকেট খেলতে পারলে ভালো ফল পাওয়া সম্ভব। দলে যারা এসেছে তাদেরকে এ তথ্যটাই দেওয়ার চেষ্টা করেছি। ভীতি বা ব্যর্থতার সম্ভবনা নিয়ে চিন্তা না করে ইতিবাচক ক্রিকেট খেলার চিন্তা করা ভালো।’

দলে প্রথমবারের মতো ডাক পাওয়া ক্রিকেটারদের চাপ দিতে রাজী নন অধিনায়ক। তাদেরকে ম্যাচ উপভোগের পরামর্শ দিয়েছেন, ‘যারা নতুন তাদের ওপর চাপ থাকবে, কিন্তু টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটাকে উপভোগ করতে হবে। পুরো পরিবেশটাকে উপভোগ করতে হবে। বিপিএলের পরিবেশ ভিন্ন, জাতীয় দলের পরিবেশ ভিন্ন। নিজের কাজটুকু ঠিকমতো করলে, যেমন ব্যাটিং হোক বা বোলিং অথবা ফিল্ডিং; সঠিক মুহূর্তে যেই কাজটুকু করতে যাচ্ছি, সেই কাজটুকু ঠিক মতো করতে পারলেই যথেষ্ট। তাহলেই দলগতভাবে ভালো ফলাফল করা সম্ভব।’

ত্রিদেশীয় সিরিজ এবং টেস্ট সিরিজের পর দলে একাধিক পরিবর্তন। নতুনদের নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানো এই মুহূর্তে কতটুকু যৌক্তিক, সেটা নিয়েও রয়েছে প্রশ্ন। তবে দলে নতুনদের সামর্থ্য নিয়ে নেই কোনো সংশয়। বরং অধিনায়ক জানালেন, তারাই বাংলাদেশ ক্রিকেটকে একধাপ এগিয়ে নিয়ে যাবেন।



আস্থা রেখে অধিনায়ক বলেছেন, ‘নতুন খেলোয়াড় যারা এসেছে, তারা সবাই জাতীয় দলে থাকার যোগ্য। যে পাঁচজন (আসলে ছয়) নতুন মুখ এসেছেন,  তারা সবাই প্রতিভাবান। তারা যদি ভালো পারফর্ম করতে পারে তাহলে অনেক দূর যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। ওদের জন্য ভালো সুযোগ আছে। যারা নিজেদের সেরা ক্রিকেট খেলতে পারবে, তারা দলে জায়গা করে নিতে পারবে।’

‘এখান থেকে যারা ভালো করবে তাদেরকে নিয়ে পরবর্তীতে পরিকল্পনা করতে হবে। সামনে আমাদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপও আছে। এই প্রক্রিয়া আমাদের দলের জন্যও ইতিবাচক। আমাদের একটা ভালোমানের টি-টোয়েন্টি দল বাছাই করতে হবে। যেহেতু আমরা এগিয়ে যাচ্ছি, আমাদেরকে এটা এখনই বেছে নিতে হবে’- যোগ করেন মাহমুদউল্লাহ।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/ইয়াসিন/পরাগ

Walton Laptop