ঢাকা, সোমবার, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

ব্যাংকের ঋণ অনুমোদনপত্র বাংলায় লিখতে হবে

হাসান মাহামুদ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০২-২৫ ১০:০৯:০৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০২-২৫ ১০:০৯:০৩ পিএম

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : ব্যাংকের ঋণ অনুমোদনপত্র (মঞ্জুরিপত্র) বাংলায় লেখার নির্দেশনা দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। তবে বাংলার পাশাপাশি ইংরেজিতেও লিখতে পারবে ব্যাংকগুলো।

রোববার বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করে দেশের সব তফসিলি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক/প্রধান নির্বাহীর কাছে পাঠিয়েছে। চলতি বছরের জুলাই থেকে এ নির্দেশনা কার্যকর হবে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বাংলায় ঋণ অনুমোদনপত্র লেখা হলে গ্রাহকের সুবিধা হবে। পাশাপাশি ব্যাংকিং কার্যক্রমেও স্বচ্ছতা বাড়বে। একই সঙ্গে বাংলা ভাষার প্রচলন হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলারে বলা হয়েছে, সংবিধানের ৩ নং অনুচ্ছেদের বিধান পূর্ণাঙ্গভাবে কার্যকর করার উদ্দেশ্যে প্রণীত বাংলা ভাষা প্রচলন আইন, ১৯৮৭ এর ৩(১) নং ধারায় বাংলাদেশের সর্বত্র তথা সরকারি অফিস, আদালত, আধা সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান কর্তৃক বিদেশের সঙ্গে যোগাযোগ ব্যতীত অন্যান্য সকল ক্ষেত্রে নথি ও চিঠিপত্র, আইন আদালতের সওয়াল-জবাব এবং অন্যান্য আইনানুগ কার্যাবলী আবশ্যিকভাবে বাংলায় লেখার নির্দেশনা রয়েছে।

লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, অধিকাংশ ব্যাংক তাদের চিঠিপত্র, ফরমের পাশাপাশি ঋণ মঞ্জুরিপত্রও ইংরেজি ভাষায় প্রণয়ন করছে। ঋণ মঞ্জুরিপত্র গ্রাহকের সঙ্গে সম্পাদিত ব্যাংকের একটি চুক্তিপত্র। চুক্তিপত্রের সব শর্ত পরিপালনে গ্রাহক আইনত অঙ্গীকারাবদ্ধ বিধায় গ্রাহকের স্বার্থ সংরক্ষণের লক্ষ্যে ঋণ মঞ্জুরিপত্রের শর্তসমূহ বোধগম্য হওয়া বাঞ্ছনীয়। ঋণ মঞ্জুরিপত্র বাংলা ভাষায় প্রণয়ন করা হলে সার্বজনীনভাবে গ্রাহকের জন্য সুবিধাজনক হবে এবং ব্যাংকিং কার্যক্রমেও স্বচ্ছতা বজায় থাকবে।

সংবিধানের আলোকে প্রণীত বাংলা ভাষা প্রচলন আইন, ১৯৮৭ এর উদ্দেশ্য পূরণকল্পে এবং গ্রাহকের স্বার্থ সংরক্ষণের লক্ষ্যে ঋণ মঞ্জুরিপত্র আবশ্যিকভাবে বাংলায় প্রণয়নের জন্য নির্দেশনা প্রদান করা হলো। তবে ঋণ মঞ্জুরিপত্র বাংলার পাশাপাশি ইংরেজি ভাষায়ও প্রণয়ন করা যেতে পারে। নির্দেশনা আগামী জুলাই থেকে কার্যকর হবে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/হাসান/রফিক

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC