ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ২০ নভেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

৩০ জুন পর্যন্ত বিল নিষ্পত্তি ও চেক ইস্যু করা যাবে

কেএমএ হাসনাত : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৫-২৪ ৭:৫৭:১৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৫-৩১ ৩:৪৫:২৬ পিএম

বিশেষ প্রতিবেদক : নিরীক্ষক কর্তৃক যথাযথভাবে নিরীক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা ও শৃঙ্খলার স্বার্থে চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরের উন্নয়ন ও অনুন্নয়ন বাজেটের আওতায় অর্থ ছাড়ের জন্য সব মন্ত্রণালয় ও দপ্তরগুলোকে চলতি মাসের ৩১ তারিখ পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়েছে সরকার। এর বিপরীতে আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত উন্নয়ন ও অনুন্নয়ন বাজেটের আওতায় বিল নিষ্পত্তি ও চেক ইস্যু করা যাবে।

গত মঙ্গলবার অর্থ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

অর্থ বিভাগের যুগ্ম সচিব (বাজেট অনুবিভাগ-১) মো. হাবিবুর রহমান স্বাক্ষরিত ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, অর্থবছরের শেষের দিকে নিয়মিত ও ফেরত বিল, চেক ইস্যু ও চেক নগদায়ন ইত্যাদি দাখিলের পরিমাণ বেড়ে যায়। এ সময় নিরীক্ষা কর্তৃপক্ষ যাতে যথাযথভাবে নিরীক্ষা কার্যক্রম চালাতে পারে এবং বিল দাখিল, চেক ইস্যু ও চেক নগদায়নে শৃঙ্খলা বজায় রাখার স্বার্থে এ নির্দশনা জারি করা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, উন্নয়ন ও অনুন্নয়ন উভয় খাতে নতুন ব্যয় বিল সর্বশেষ ১২ জুন পর্যন্ত এবং এসব খাতে ফেরত বিল সর্বশেষ ১৮ জুন পর্যন্ত দাখিল করা যাবে। অন্যদিকে বিলের পিরীতে ১ জুন থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত ইস্যুকৃত চেকের মেয়াদ আগামী ১২ জুলাই পর্যন্ত এবং ১৬ জুন থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত যেসব চেক ইস্যু করা হবে সেগুলোর মেয়াদ ২২ জুলাই পর্যন্ত থাকবে।

এছাড়া ৩০ জুন পর্যন্ত বাজেট বরাদ্দের আওতায় বিদেশ থেকে পণ্য আমদানি ও আমদানির মূল্য পরিশোধ এবং বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক এলসি নিষ্পত্তি করা যাবে। আর যেসব ক্ষেত্রে ৩০ জুনের মধ্যে আমদানি ও মূল্য পরিশোধের প্রক্রিয়া শেষ করা যাবে না, সেসব ক্ষেত্রে অসুবিধার কারণ এবং চলতি অর্থবছরে খোলা হয়েছে এমন এলসি বাবদ আগামী অর্থবছরের পরিশোধযোগ্য অর্থের পরিমাণ ইত্যাদি উল্লেখ করে ২১ জুনের মধ্যে অর্থ বিভাগে বিস্তারিত প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

 

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৪ মে ২০১৮/হাসনাত/রফিক

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC