ঢাকা, সোমবার, ১২ আষাঢ় ১৪২৫, ২৫ জুন ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

ওয়ালটন এসি কুইজে রাশিয়ার টিকিট পেলেন ইমরান

একরাম হোসেন পলাশ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০৫-২৮ ৬:১৭:০৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৬-০৪ ৭:৩৪:৫০ পিএম
ওয়ালটন স্মার্ট ইনভার্টার এসি কুইজ প্রতিযোগিতায় ঢাকা-রাশিয়া-ঢাকার বিমান টিকিট বিজয়ী ইমরান হোসেন

নিজস্ব প্রতিবেদক : সারা দেশে শুরু হয়েছে ওয়ালটন স্মার্ট ইনভার্টার এসি কুইজ প্রতিযোগিতা। এরই মধ্যে অনুষ্ঠিত হয়েছে এ প্রতিযোগিতার প্রথম পর্ব। যেটিতে অংশ নিয়ে সঠিক উত্তর দাতাদের মধ্য থেকে ঢাকা-রাশিয়া-ঢাকার বিমান টিকিট উপহার পেয়েছেন শ্রীপুর মাওনার ‘অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম একাডেমি অ্যান্ড কলেজ’ এর দশম শ্রেণির ছাত্র মো. ইমরান হোসেন।

উল্লেখ্য, প্রতিযোগিতার প্রথম পর্বে স্মার্টফোনে নিয়ন্ত্রণযোগ্য আইওটি বেজড ওয়ালটন স্মার্ট ইনভার্টার এসিতে ব্যবহৃত ধূলো-ময়লা ও ব্যাকটেরিয়ামুক্ত আয়োনাইজার প্রযুক্তির পাশাপাশি ৬০ শতাংশ পর্যন্ত বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ইনভার্টার প্রযুক্তির ব্যবহার, উৎপাদন প্রক্রিয়াসহ বিভিন্ন বিশেষ দিক উল্লেখপূর্বক চারটি অপশন রেখে একটি কুইজের  আয়োজন করা হয়। যা কি না বেশ কয়েকটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশ করা হয়েছিল। পাশাপাশি প্রচার চালানো হয়েছিল ওয়ালটনবিডির ফেসবুক পেজেও। কুইজে  অংশগ্রহণকারীদের জন্য মোবাইল ফোনের ম্যাসেজ অপশনের মাধ্যমে সঠিক উত্তর পাঠানো মেয়াদ ছিল চলতি মাসের ১০ থেকে ১৭ তারিখ পর্যন্ত।

সূত্রমতে, ‘ওয়ালটন স্মার্ট ইনভার্টার এসি কুইজ’ প্রতিযোগিতার প্রথম পর্বে অংশ নেন সর্বমোট ৯,১৩৫ জন। এদের মধ্যে কুইজের সঠিক উত্তর দিয়ে ম্যাসেজ পাঠিয়েছিলেন ৭,৩১৮ জন। সঠিক উত্তর দাতাদের মধ্যে থেকে ডিজিটাল লটারির মাধ্যমে কুইজের পুরস্কার হিসেবে ঢাকা-রাশিয়া-ঢাকার ফ্রি বিমান টিকিট প্রদান করা হয়েছে একজনকে।

আর এই কুইজ প্রতিযোগিতার প্রথম পর্বে অংশ নিয়ে সঠিক উত্তর দাতাদের মধ্যে থেকে পুরস্কারটি পেয়েছেন গাজীপুরের ইমরান হোসেন। তিনি বাবা, মা ও ছোট ভাইসহ পরিবারের সাথে বসবাস করছেন গাজীপুর জেলার শ্রীপুরে মাওনার কপাটিয়া পাড়ায়। তার বাবা কাজী ফার্মস গ্রুপের একজন হ্যাচারি অফিসার। ইমরান পড়াশোনা করছেন মাওনা চৌরাস্তায় ‘অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম একাডেমি অ্যান্ড কলেজ’ এর দশম শ্রেণিতে।

 



ওয়ালটন স্মার্ট ইনভার্টার এসি কুইজ প্রতিযোগিতার প্রথম পর্বে অংশ নিয়ে রাশিয়া ভ্রমণের ফ্রি বিমান টিকিট প্রাপ্তির প্রতিক্রিয়ায় রাইজিংবিডির এই প্রতিবেদককে ইমরান হোসেন বলেন, ‘কুইজে অংশ নিয়েছি ঠিকই, কিন্তু এতজন প্রতিযোগির মধ্য থেকে আমি পুরস্কার পাবো বলে স্বপ্নেও ভাবিনি। এতো বড় পুরস্কার পাওয়ায় শুধু আমার বাবা-মা’ই নন; আমার স্কুলের বন্ধু-বান্ধবসহ ফেসবুক ও ইন্সট্রাগ্রাম ফ্রেন্ডরাও খুবই আনন্দিত। এসব পেজের বন্ধুরা সবাই ‘অভিনন্দন’, ‘যাও বন্ধু এগিয়ে’সহ বিভিন্ন উৎসাহমূলক কমেন্টস করছে। এজন্য ওয়ালটন কোম্পানির কাছে আমি কৃতজ্ঞ। ধন্যবাদ ওয়ালটনকে।’

ইমরান আরো বলেন, ম্যাসেজটি পেয়ে প্রথমে বিশ্বাস করিনি। পরবর্তীতে ওয়ালটনের একজন কর্মকর্তা ফোন করে পুরস্কার পাওয়ার কথা জানালে বিশ্বাস করি।

প্রতিযোগিতা সম্পর্কে কিভাবে জেনেছেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে ইমরান জানান, সে তার ফেসবুক পেজের মাধ্যমে এই কুইজ প্রতিযোগিতা সম্পর্কে জানতে পারেন।

তিনি বলেন, আমার ফেসবুক পেজে ওয়ালটনবিডির ফেসবুক পেইজ লাইক দেওয়া থাকায়, কুইজ প্রতিযোগিতার বিজ্ঞাপনটি তার হোম পেজে দেখি। এরপর কৌতূহলবশতঃ মোবাইল ফোন থেকে সঠিক উত্তর লিখে নির্ধারিত ৬৯৬৯ নম্বরে ম্যাসেজ পাঠাই। তখন পুরস্কার পাবো বলে আশা করিনি।

 



সঠিক উত্তর দেওয়া প্রসঙ্গে ইমরান বলেন, আমার এক প্রতিবেশী কিছুদিন আগেই ওয়ালটনের স্মার্ট ইনভার্টার এসি কিনেছেন। তাদের কাছ থেকেই ওয়ালটনের ফিচার সম্পর্কে জানতে পারি।

ওয়ালটন কর্তৃপক্ষ জানান, শুরু হয়ে গেছে ওয়ালটন স্মার্ট ইনভার্টার এসি কুইজ প্রতিযোগিতার দ্বিতীয় পর্ব। এই পর্বের কুইজে অংশগ্রহণকারীদের চলতি মাসের ৩১ তারিখের মধ্যে সঠিক উত্তর দিয়ে মোবাইল ফোন থেকে ৬৯৬৯ নম্বরে ম্যাসেজ পাঠাতে হবে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৮ মে ২০১৮/সাইফ

Walton Laptop
 
   
Walton AC