ঢাকা, বুধবার, ৫ পৌষ ১৪২৫, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

ইপিজেড থেকে রপ্তানিকারকদেরও ট্রফি দেওয়া হবে : বাণিজ্যমন্ত্রী

মোহাম্মদ নঈমুদ্দীন : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৭-১৫ ৮:৪৩:২২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৭-১৫ ৮:৪৩:২২ পিএম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, ‘দেশের রপ্তানি ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখার জন্য জাতীয় রপ্তানি ট্রফি প্রদান করা হয়। আগামীতে ইপিজেড থেকে রপ্তানিকারকদেরও জাতীয় রপ্তানি ট্রফি প্রদান করা হবে।’

রোববার ঢাকায় ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো আয়োজিত জাতীয় রপ্তানি ট্রফি ২০১৪-২০১৫ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ইপিজেড থেকে রপ্তানিকারকদের কখনো জাতীয় রপ্তানি ট্রফি দেওয়া হতো না। অথচ দেশের রপ্তানি ক্ষেত্রে তাদেরও বিশেষ অবদান রয়েছে।

তিনি বলেন,  অর্থনৈতিক সফলতার জন্য দেশের ব্যবসায়ীদের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ও প্রশংসনীয়। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যুদ্ধবিধস্ত বাংলাদেশের হাল ধরে ছিলেন শুন্য হাতে। ১৯৭২-৭৩ অর্থ বছরে দেশের পাট, চা ও চামড়া রপ্তানি করে আয় হয়েছিল ৩৪৮ কোটি টাকা। আজ ১৯৯টি দেশে বাংলাদেশের ৭৭২টি পণ্য রপ্তানি করে আয় হচ্ছে প্রায় ৩৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। ২০২১ সালে এ রপ্তানি ৬০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ছাড়িয়ে যাবে।

তোফায়েল বলেন, শুধু তৈরি পোশাক রপ্তানি করে আয় হবে ৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। তৈরি পোশাক রপ্তানি থেকে গত বছর ৩০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হলেও আয় হয়েছে ৩৩ দশমিক ৬৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, রপ্তানি বাণিজ্য বৃদ্ধির জন্য সরকার সব ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। রপ্তানিকারকদের পলিসি সাপোর্ট ও নগদ আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে। উৎপাদনের সাথে জড়িত শ্রমিকদের স্বার্থ রক্ষায় সরকার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করছে। বাংলাদেশের শ্রমিকরা এখন নিরাপদ ও কর্মবান্ধব পরিবেশে কাজ করছে। দেশের তৈরি পোশাক কারখানাগুলো এখন গ্রিন ফ্যাক্টরিতে পরিণত হয়েছে।

দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে অসামান্য অবদানের জন্য রপ্তানি বাণিজ্য উন্নয়নে মূখ্য ভূমিকা পালনের জন্য ২০১৪-২০১৫ অর্থ বছরে ২৯টি পণ্য ও ২৯টি সেবার ৩২টি খাতের রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানকে জাতীয় রপ্তানি ট্রফি প্রদান করা হয়।

এবছর সর্বমোট ২৯টি স্বর্ণ, ২০ রৌপ্য এবং ১৪টি ব্রোঞ্চ পদক প্রদান করা হয়। এবার মোট ৬৩টি রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানকে জাতীয় রপ্তানি ট্রফি ও সনদ প্রদান করা হয়। বাণিজ্যমন্ত্রী অনুষ্ঠানে রপ্তানিকারকদের মাঝে এ ট্রফি ও সনদ তুলে দেন।

দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে অসামান্য অবদানের জন্য রপ্তানি বাণিজ্য উন্নয়নে মূখ্য ভূমিকা পালনকারী ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান ও সংস্থাসমুহকে প্রতিবছর জাতীয় রপ্তানি ট্রফি ও সনদপত্র প্রদান করা হয়।

বাণিজ্য সচিব শুভাশীষ বসুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মো. তাজুল ইসলাম চৌধুরী এমপি, এফবিসিসিআই-এর প্রেসিডেন্ট সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর ভাইস-চেয়ারম্যান বিজয় ভট্রাচার্য্য।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৫ জুলাই ২০১৮/নঈমুদ্দীন/শাহেদ

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC