ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩ আশ্বিন ১৪২৫, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

‘এসডিজি বাস্তবায়নে বেসরকারি অংশগ্রহণ বাড়াতে হবে’

নাসির উদ্দিন : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৯-১৩ ৬:১৭:৫১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৯-১৩ ৬:১৭:৫১ পিএম

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার (এসডিজি) লক্ষ্য বাস্তবায়নে বেসরকারি খাতের অংশগ্রহণ আরো বৃদ্ধি করতে হবে বলে মত দিয়েছে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই)।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর মতিঝিলে ডিসিসিআই অডিটোরিয়ামে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই) আয়োজিত টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে বেসরকারি খাতের সম্ভাবনা ও চ্যালেঞ্জ শীর্ষক আলোচনা সভায় এ মত দেয় ডিসিসিআই।

স্বাগত বক্তব্যে ঢাকা চেম্বারের সভাপতি আবুল কাসেম খান বলেন, ‘এসডিজির লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বাংলাদেশের জন্য কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি এবং প্রাতিষ্ঠানিক দক্ষতা বৃদ্ধি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। দেশে বেসরকারি খাত মূলত জ্বালানি অপ্রাপ্যতা এবং এর উচ্চমূল্য, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব, অপ্রতুল অবকাঠমো, ব্যবসা পরিচালনায় ব্যয় বৃদ্ধি, আইনগত দীর্ঘসূত্রিতা এবং সর্বোপরি ঋণ প্রাপ্তির অপ্রতুলতা প্রভৃতি সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছে। তাই এসজিডির লক্ষ্যমাত্রা বাস্তবায়নে বেসরকারি খাতের অংশগ্রহণ আরো বাড়ানোর পাশাপাশি দীর্ঘমেয়াদী নীতিমালার আওতায় এই খাতকে সহযোগিতা করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। বিশেষ করে এ বিষয়ক নীতিমালা প্রণয়নে বেসরকারি খাতের অংশগ্রহণ আরো বাড়ানো প্রায়োজন।’

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক প্রধান সমন্বয়কারী মোঃ আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘বর্তমান সরকার বিশেষ করে দেশের দক্ষিণাঞ্চলে বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলের আওতায় প্রায় ১ লাখ একরের ভূমি ব্যাংক তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং ইতোমধ্যে প্রায় ৩৫ হাজার একর জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে, যা বেজার নিকট হস্তান্তর করা হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি বাড়াতে দেশের বেসরকারি খাত গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে আসছে। সরকার এসডিজির লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ইতোমধ্যে মন্ত্রণালয় ভিত্তিক কর্মপরিকল্পণা চিহ্নিত করার পাশাপাশি তা যথাসময়ে বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিয়েছে এবং অর্থসংস্থান নিশ্চিত করার জন্য আন্তরিকভাবে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।’

তিনি দেশের মানুষ বিশেষ করে যুবসমাজের দক্ষতা উন্নয়নের উপর গুরুত্বারোপ করেন এবং এ কাজে বেসরকারি খাতকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। তিনি বেসরকারি খাতের প্রতি সরকার নির্ধারিত অর্থনৈতিক অঞ্চলসমূহে বিনিয়োগ করার জন্য আহ্বান জানান এবং অর্থনৈতিক অঞ্চলসমূহে স্থাপিত শিল্প-কারখানায় অগ্রাধিকার ভিত্তিতে গ্যাস ও বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার আশ্বাস দেন।

মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এমসিসিআই) সভাপতি ব্যারিস্টার নিহাদ কবির বলেন, ‘এসডিজির লক্ষ্যমাত্রা বাস্তবায়নে সরকার ও বেসরকারি খাতের অংশীদারিত্বমূলক অংশগ্রহণ একান্ত আবশ্যক। নতুন নতুন প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়াতে হবে। ব্যবসা-বাণিজ্য সংশ্লিষ্ট বিরোধ নিষ্পত্তিতে দীর্ঘসূত্রিতার বিষয়টি একটি অন্যতম প্রতিবন্ধকতা।’

দি চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (সিসিসিআই) সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, ‘এসডিজির সফল বাস্তবায়নের জন্য সরকার ও বেসরকারি খাতের পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট সকল স্টেকহোল্ডাদের সক্রিয় অংশগ্রহণ অত্যন্ত জরুরী। এ লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সরকারের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় নীতি সহায়তা দেওয়ার উপর জোর দিতে হবে।

সভায় বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজের (বিআইডিএস) সিনিয়র রিসার্চ ফেলো ড. নাজনীন আহমেদ মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনকালে বলেন, ‘এসডিজির ৩টি লক্ষ্য (৮, ৯ এবং ১২) সরাসরি বেসরকারি খাতের সঙ্গে সম্পর্কিত। আমাদের দেশীয় বাজার বেশ বড় এবং এ বাজার উন্নয়নে মনোযোগ দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বিনিয়োগ বাড়ানোর জন্য আমাদের আরো উদ্যোগী হতে হবে।’

তিনি বৈদেশিক বিনিয়োগ বাড়ানোর জন্য কর্পোরেট করের হার কমানো এবং দীর্ঘমেয়াদী নীতি সহায়তা প্রদানের আহ্বান জানান।

ডিসিসিআই-এর প্রাক্তন সভাপতি আসিফ ইব্রাহীমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগের (সিপিডি) সিনিয়র রিসার্চ ফেলো তওফিকুল ইসলাম খান, মাল্টিমোড গ্রুপের পরিচালক তাফসীর মোহাম্মদ আওয়াল, পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউট অফ বাংলাদেশ (পিআরআইবি)- এর গবেষণা পরিচালক ড. এম এ রাজ্জাক, ডিসিসিআই-এর প্রাক্তন সভাপতি হোসেন খালেদ, পাওয়ার সেলের পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ হোসেন।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮/নাসির/শাহনেওয়াজ

Walton Laptop
 
     
Walton