ঢাকা, শনিবার, ১১ ফাল্গুন ১৪২৫, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

বাণিজ্য মেলায় নজর কেড়েছে ওয়ালটনের লিফট

নাসির উদ্দিন : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৯-০১-২২ ৬:৪১:২৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০১-২৩ ৩:৫৮:৪৩ পিএম
ছবি : শাহীন ভূইয়া

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় অত্যাধুনিক প্রযুক্তি সম্বলিত সম্পূর্ণ দেশে তৈরি লিফট প্রদর্শন ও বিক্রি করছে দেশের শীর্ষস্থানীয় ইলেকট্রনিক্স ও ইলেকট্রিক্যাল পণ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন।

একই সঙ্গে তিন তলা পর্যন্ত ওঠানামা ও পণ্য বহনের জন্য অত্যাধুনিক লিফট স্থাপন করা হয়েছে ওয়ালটনের প্যাভিলিয়নে। প্যাভিলিয়নের লিফটে চড়েও দেখা যায়, তা কোনো রকম ঝাঁকি ছাড়াই সহজেই ওঠানামা করে। মেলায় আসা দর্শনার্থীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তারা ওয়ালটন লিফট দেখে অভিভূত ও আনন্দিত। এছাড়া প্যাভিলিয়নের দ্বিতীয় তলায় দর্শনার্থী ও ক্রেতাদের জন্য প্রদর্শনের জন্য রাখা হয়েছে আরো একটি লিফট। এখানে কেউ লিফট সম্পর্কে জানতে চাইলে তাদের বিস্তারিত তথ্য প্রদান করা হচ্ছে।

ওয়ালটন প্যাভিলিয়ন সমন্বয়ক মোস্তফাজ্জামান বলেন, লিফট তৈরিতে ওয়ালটন অনুসরণ করছে ইউরোপীয় প্রযুক্তি ও মান। দেশেই উচ্চমানের লিফট তৈরির জন্য ২০১৪ সালে উদ্যোগ গ্রহণ করে ওয়ালটন। তখন থেকে লিফট তৈরির অবকাঠামো নির্মাণ, গবেষণা এবং মান উন্নয়ন বিভাগ, ইউরোপিয়ান প্রযুক্তির অত্যাধুনিক মেশিনারিজ স্থাপন ওয়ালটন। লিফট বা এলিভেটরের ডিজাইন, উৎপাদন এবং স্থাপনে নিযুক্ত আছে প্রযুক্তিতে দক্ষ এক ঝাঁক প্রকৌশলী, ডিজাইনার এবং টেকনিশিয়ান।

 



ওয়ালটন বাণিজ্য মেলায় লিফট ডিসপ্লে করেছে এবং দেশে প্রথম ওয়ালটনই লিফট তৈরি করছে এবং বাজারজাত করছে। আমরা প্যাসেঞ্জার ও কার্গো দুই ধরনের লিফটই তৈরি করছি। লিফট তৈরিতে ব্যবহার করা হয়েছে সর্বাধিক উন্নত প্রযুক্তি। ওয়ালটনের ৩০০ কেজি থেকে শুরু করে ২৫০০ কেজি ধারণ ক্ষমতার লিফট আছে। এ সকল লিফটে ৪ থেকে ৩৩ জন মানুষ বহন করার সক্ষমতা রয়েছে। আর কার্গো লিফটের ধারণ ক্ষমতা ৮০০ কেজি থেকে ৪৫০০ কেজি পর্যন্ত।

বিক্রয়োত্তর সেবায় ওয়ালটনের রয়েছে নিজস্ব সার্ভিস টিম। লিফট কেনার এক বছরের মধ্যে কোনো যন্ত্রাংশে সমস্যা হলে রিপ্লেস করে দেওয়া হয়। এছাড়াও আছে এক বছরের ফ্রি মেইনটেনেন্স সুবিধা। লিফটের যেকোনো সমস্যায় তাৎক্ষণিক সার্ভিস টিম পৌঁছে যাবে। ওয়ালটন ফ্যাক্টরি ও ওয়ালটনের বিভিন্ন অফিসে এরই মধ্যে ওয়ালটনের নিজস্ব তৈরি কার্গো ও প্যাসেঞ্জার লিফট ব্যবহার করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

মেলায় আসা অনিক রহমান নামে এক দর্শনার্থী বলেন, মেলায় অন্য কোথায় লিফট চোখে পড়েনি। মেলায় এক মাসের জন্য ওয়ালটনের লিফট স্থাপন ও লিফট ডিসপ্লে-এটা সত্যি একটা চমক। আমার খুবই ভালো লেগেছে। আমি অত্যন্ত আনন্দিত যে আমাদের দেশে লিফটও তৈরি হচ্ছে। এতেই বোঝা যায় দিন দিন দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দেশীয় প্রতিষ্ঠান হিসেবে ওয়ালটনের কাছে আমাদের প্রত্যাশা অনেক। আর যা দেখছি ওয়ালটন আমাদের সেই প্রত্যাশা পূরণে কাজ করে যাচ্ছে।

 



রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের পাশে ৯ জানুয়ারি থেকে চলছে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা। চলবে ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। বাণিজ্য মেলার প্রধান ফটক দিয়ে ঢুকে একটু সামনে এগোলেই ডান দিকে চোখে পরবে সুদৃশ্য ওয়ালটন প্যাভিলিয়নটি।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২২ জানুয়ারি ২০১৯/নাসির/সাইফ

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC