ঢাকা, শনিবার, ২ পৌষ ১৪২৪, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

দশ বছর পর সম্পত্তি বুঝে পেলেন দিলীপ কুমার

মারুফ খান : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৯-১৩ ২:১৮:৩৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৯-১৩ ২:১৮:৩৭ পিএম

বিনোদন ডেস্ক : দশ বছর পর পুনরায় তার পালি হিলের সম্পত্তির মালিকানা বুঝে পেলেন বলিউডের বর্ষীয়ান অভিনেতা দিলীপ কুমার। মঙ্গলবার মুম্বাই পুলিশের উপস্থিতিতে দিলীপ কুমারের স্ত্রী অভিনেত্রী সায়রা বানুর হাতে চাবি ফিরিয়ে দেন প্রজিতা ডেভেলপারস লিমিটেড। এতদিন এই রিয়েল স্টেট ফার্মের অধীনেই ছিল এ সম্পত্তি। প্রকাশিত প্রতিবেদনে এমনটাই জানিয়েছে ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যম।

মুম্বাইয়ের বান্দ্রার পালি হিলের এই সম্পত্তির পরিমাণ প্রায় ২৪১২ বর্গগজ। এতদিন পর এই সম্পত্তির মালিকানা ফিরে পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন সায়রা বানু। এছাড়া চাবির গোছা হাতে নিয়ে সাংবাদিকদের ক্যামেরার সামনে পোজও দেন তিনি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের তথ্যমতে, সম্প্রতির উন্নয়নবাবদ রিয়েল স্টেট ফার্মটি দিলীপ কুমারের কাছে ২০ কোটি রুপি রেজিস্ট্রেশন অর্থ দাবি করেছিল। কিন্তু প্রজিতা ডেভেলপার্স লিমিটেড পরিকল্পনা অনুযায়ী কোনো কাজ করেনি এবং কোনো কাজ না করে জায়গাটি খালি ফেলে রেখেছে অভিযোগ করে আদালতে মামলা দায়ের করা হয়।

গত আগস্টে সুপ্রিম কোর্ট দিলীপ কুমারকে চার সপ্তাহের মধ্যে অর্থ হস্তান্তর করার এবং এক সপ্তাহের মধ্যে আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর উপস্থিতিতে সম্পত্তিটি বুঝে নেয়ার নির্দেশ দেন।

দিলীপ কুমার অভিনয় জীবনে ৮ বার ফিল্মফেয়ার শ্রেষ্ঠ অভিনেতা পুরস্কারসহ ১৯ বার ফিল্মফেয়ার মনোনয়ন ছাড়াও অনেক পুরস্কার পেয়েছেন। ১৯৮০ সালে মুম্বাই শহরের সম্মানজনক শেরিফ পদটি অলংকৃত করেন তিনি। ভারত সরকার ১৯৯১ সালে তাকে পদ্মভূষণ পুরস্কার পদক দিয়ে সম্মানিত করে। দিলীপ কুমারকে ১৯৯৩ সালে ফিল্মফেয়ার আজীবন সম্মাননা পুরস্কার দিয়ে সম্মানিত করা হয়। ১৯৯৪ সালে ভারত সরকার দিলীপ কুমারকে দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কার পদকে ভূষিত করে। ২০১৫ সালের ২৫ জানুয়ারি ভারত সরকার তাকে পদ্মবিভূষণ দেওয়ার ঘোষণা দেয়, আর তা ২০১৫ সালের ১৩ ডিসেম্বর তার জন্মদিন উপলক্ষে তাকে প্রদান করা হয়। এ ছাড়া পাকিস্তান সরকার তাকে ভূষিত করেছে ‘নিশান-এ-ইমতিয়াজ’ সম্মাননায়।

১৯৪৪ সালে জোয়ার ভাটা সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় দিলীপ কুমারের। দীর্ঘ ছয় দশকের বলিউড জীবনে ৬০টিরও বেশি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন এ অভিনেতা। দিলীপ কুমার অভিনীত উল্লেখযোগ্য সিনেমা হলো- নয়া দৌড়, মধুমতি, গঙ্গা যমুনা, রাম অউর শ্যাম, দাগ, আজাদ, দেবদাস, মুঘল-ই-আজম, কোহিনূর, পয়গাম, আদমি, শক্তি, লিডার  ইত্যাদি। ১৯৯৮ সালে কিলা সিনেমায় তাকে শেষবার রুপালি পর্দায় দেখা গেছে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭/মারুফ/শান্ত

Walton
 
   
Marcel