ঢাকা, শুক্রবার, ৬ বৈশাখ ১৪২৬, ১৯ এপ্রিল ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

‘দুঃখ তো হবেই’

আমিনুল ইসলাম শান্ত : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৩-২৩ ৮:৩৬:১১ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৩-২৩ ৮:৩৬:১১ এএম

বিনোদন ডেস্ক : অভিনয় থেকে রাজনীতিতে নাম লিখিয়েছেন ভারতীয় বাংলা সিনেমার অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। এবারের ভারতের লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী হিসেবে অংশ নিবেন তিনি। কিন্তু রাজনীতিতে নাম লিখিয়েই সিনেমার কাজ ছেড়ে দিতে হলো এই অভিনেত্রকে।

বর্তমানে নির্বাচনের প্রচার নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন মিমি। এজন্য নতুন সিনেমা ‘বিবাহ অভিযান’ ছাড়তে হয়েছে তাকে। এ নিয়ে তার দুঃখবোধ আছে কিনা? এমন প্রশ্নের উত্তরে ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে মিমি বলেন, ‘দুঃখ তো হবেই, আমাকে ঘিরেই সিনেমাটির গল্প লেখা হয়েছিল। তবে এখন আমার মাথায় শুধু নির্বাচন। আমি  ভালো কাজ করতে চাই, সেটা ক্যামেরার  সামনে হোক কিংবা ক্যামেরার পেছনে।’

নিন্দুকেরা বলছেন আপনি রাজনীতির কিছু জানেন না। যাদবপুরের মতো অঞ্চলের শিক্ষিত মানুষদের আপনি কীভাবে নিজের পক্ষে আনবেন? জবাবে মিমি চক্রবর্তী বলেন, ‘আমি শর্তহীন ভালোবাসায় আস্থা রাখি। মানুষকে ভালোবেসে তাদের উপকারে এলে মানুষ নিশ্চয়ই আমার পাশে থাকবেন। এটা আমার দৃঢ় বিশ্বাস। আর আমি তো কাজ পাগল মানুষ। দলের নির্দেশে কাজ করব। আগেও তো বহু ফিল্মস্টার রাজনীতিতে এসেছেন। দেবকে দেখুন। ঘাটালে ফাটিয়ে কাজ করেছে। সিনেমা করছে, প্রযোজনা সংস্থায় মন দিয়েছে। চাইলে মানুষ সব পারে। রাজনীতিতে দেব আমার অনুপ্রেরণা।’

গত ১২ মার্চ লোকসভা নির্বাচনের জন্য রাজ্যের ৪২টি আসনে প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জি। সেই তালিকায় রয়েছেন কলকাতার আরেক জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত জাহান। তিনি বসিরহাট আসন থেকে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। ব্যক্তিগত জীবনে নুসরাত ও মিমি খুব ভালো বন্ধু। নির্বাচনী প্রচারে নুসরাত মিমির সঙ্গে থাকবেন বলে জানা গেছে।

মঞ্চ-টেলিভিশন নাটকে অভিনয় করে খ্যাতি লাভ করেন মিমি চক্রবর্তী। ‘বোঝেনা সে বোঝেনা’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে বড় পর্দায় নিজের শক্ত জায়গার কথা জানান দেন এই অভিনেত্রী। পরবর্তী সময়ে ‘যোদ্ধা-দ্য ওয়ারিয়র’, ‘খাদ’, ‘জামাই ৪২০’, ‘পোস্ত’, ধনঞ্জয়’, ‘টোটাল দাদাগিরি’-এর মতো বেশকিছু দর্শকপ্রিয় সিনেমা উপহার দেন মিমি।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৩ মার্চ ২০১৯/শান্ত

Walton Laptop
     
Walton AC
Marcel Fridge