ঢাকা, শনিবার, ১১ ফাল্গুন ১৪২৫, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

পরকীয়ায় বাধা দেওয়ায় নাতির হাতে নানা খুন

কাঞ্চন কুমার : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৯-০২-১১ ২:১৪:৩০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০২-১১ ২:১৪:৩০ পিএম

কুষ্টিয়া সংবাদদাতা : কুষ্টিয়ার খোকসায় মামির সাথে পরকীয়ায় বাধা দেওয়ায় মজিবুর রহমান (৭০) নামের এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করেছে তার নাতি ও পুত্রবধূ। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত নাতি নাঈম (২১) ও নিহতের পুত্রবধূ সামিয়াকে (৩৪) আটক করেছে।

রোববার দিবাগত মধ্যরাতে খোকসা উপজেলার শমসপুর ইউনিয়নের সন্তোষপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত মজিবুর রহমান ওই এলাকার মৃত গোসাই শেখের ছেলে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নাঈম সব ঘটনা স্বীকার করেছে বলে নিশ্চিত করেছেন খোকসা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এ বি এম মেহেদী মাসুদ।

তিনি জানান, বেশ কিছুদিন ধরেই নিহত মজিবুর রহমানের বড় মেয়ের বড় ছেলে নাঈমের সাথে মেজ ছেলের স্ত্রী সামিয়ার মধ্যে পরকীয়ার সম্পর্ক চলছিল। রোববার রাতে ঢাকা থেকে এসে নাঈম নানা বাড়ি যায়। মেজ মামা মাসুদের অনুপস্থিতিতে নাঈম মামার স্ত্রী সামিয়ার সাথে পরকীয়ায় লিপ্ত হয়। এ সময় নানা মজিবুর রহমান দেখে ফেলেন। বিষয়টি প্রকাশ হয়ে যাবে এই ভয়ে নাঈম তার নানাকে ঘর থেকে বারান্দায় বের করে এনে বুকে ধারালো ছুরি দিয়ে আঘাত করে পালিয়ে যান। অন্যরা মজিবুর রহমানকে উদ্ধার করে খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবর পেয়ে পুলিশ রাতেই নাঈমের নিজবাড়ী কুমারখালী থেকে তাকে আটক করে এবং তার স্বীকারোক্তিতে নিহত মজিবুর রহমানের বাড়ি থেকে তার পুত্রবধূ সামিয়াকে আটক করে থানায় নেয়।

লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান ওসি।

 

 

 

রাইজিংবিডি/কুষ্টিয়া/১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯/কাঞ্চন কুমার/সাইফুল

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC