ঢাকা, রবিবার, ৭ শ্রাবণ ১৪২৪, ২৩ জুলাই ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

মাটির এতো নিচে মেট্রো স্টেশন!

গোবিন্দ তরফদার : রাইজিংবিডি ডট কম
প্রকাশ: ২০১৭-০৩-১৭ ৮:৩২:২৯ এএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৩-১৭ ৯:৪৬:৩৫ এএম

গোবিন্দ তরফদার : সাধারণত মেট্রোরেল স্টেশন মাটির খুব বেশি গভীরে বানানো হয়না। তবে মাঝে মাঝে পারিপার্শ্বিক নানা জটিলতার কারণে প্রকৌশলীদের একটু অন্য ভাবে ভাবতে হয়। দেশের ভৌগলিক অবস্থান, প্রস্তাবিত এলাকায় নদী, খাল, বিল, ইত্যাদি থাকার ফলে প্রকৌশলীরা অনেক সময় ভূগর্ভের অনেক গভীরে গিয়ে মেট্রোরেল স্টেশন তৈরি করতে বাধ্য হন। ‘আর্সেনালনা’ এরকম একটি ব্যতিক্রমধর্মী মেট্রোরেল স্টেশন যেটা ইউক্রেনের কিয়েভ মেট্রোর সিয়াটোহিনিস্কো-ব্রোভার্স্কা লাইনে অবস্থিত।

এটি চালু হয় ১৯৬০ সালের ৬ নভেম্বর। আর্সেনালনা স্টেশন ভূপৃষ্ঠ থেকে ১০৫.৫ মিটার (৩৪৬ ফুট) নিচে অবস্থিত। আর এটা পৃথিবীর সবচেয়ে গভীর মেট্রো স্টেশন। যদি আপনি মাটির উপর থেকে স্টেশন বরাবর একদম খাঁড়া করে একটি গর্ত করেন, তাহলে আপনি চাইলে এর মধ্যে পুরো স্ট্যাচু অব লিবার্টি বসিয়ে দিতে পারবেন। শুধু তাই নয়, এর পরেও উপরের দিকে আরো ১২ মিটারের মতো বাকি পরে থাকবে, আর সেখানে আপনি চাইলে অন্য কিছু রাখতে পারবেন।

এই স্টেশন থেকে একটি সাবওয়ে ট্রেনে চড়তে চাইলে যাত্রীদের একটি লম্বা স্কেলেটরে করে নামতে হবে। আর এই পথ পাড়ি দিতে সময় লাগে পাঁচ মিনিট।

আর্সেনালনা’র অস্বাভাবিক গভীরতা হয়েছে কিয়েভের ভৌগলিক অবস্থানের কারণে। এই স্টেশনের প্রবেশ পথটি দিনেইপার নদীর খাড়া উপত্যকার উপরে অবস্থিত, যা শহরের অন্যান্য অংশের চেয়ে অনেক উপরে। আর্সেনালনা স্টেশনের নিকটবর্তী স্টেশন দিনিপ্রো। এই দিনিপ্রো স্টেশন ভূপৃষ্ঠের উচ্চতা থেকে সামান্য উঁচুতে অবস্থিত। মেট্রোট্রেন এই দিনিপ্রো স্টেশন থেকে যাত্রা শুরু করে সোজা মাটির নিচ দিয়ে আর্সেনালনা স্টেশনে গিয়ে থামে। খাড়া উপত্যকাটিকে এড়ানোর জন্যে লাইনটি একই স্তরে বানাতে হয়েছে। কিন্তু তার প্রবেশ পথ তৈরি করা হয়েছে শত মিটার উঁচুতে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৭ মার্চ ২০১৭/মারুফ

Walton Laptop