ঢাকা, শুক্রবার, ৫ শ্রাবণ ১৪২৫, ২০ জুলাই ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

অবসর নিতে লিঙ্গ পরিবর্তন?

রাশিদা নূর : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৩-২৬ ৮:০৮:৫৮ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৩-২৬ ৯:২৯:০৯ এএম

রাশিদা নূর: বর্তমান বিশ্বে লিঙ্গ পরিবর্তন নতুন কিছু নয়। এমন ঘটনা ঘটছে অহরহ। কিন্তু এবার আর্জেন্টিনায় ঘটেছে এক অদ্ভুত কাণ্ড। দক্ষিণ আমেরিকার দেশটিতে এক ব্যক্তি সরকারি চাকরি থেকে তাড়াতাড়ি অবসর নিতে লিঙ্গ পরিবর্তন করে নারীতে রূপান্তরিত হয়েছেন।

ওই ব্যক্তির নাম সার্জিও লাজারোভিচ। লিঙ্গ পরিবর্তনের পর নাম রেখেছেন সার্জিয়া লাজারোভিচ। আর্জেন্টিনায় সরকারি অনুমোদন সাপেক্ষে লিঙ্গ পরিবর্তন আইনগতভাবে বৈধ।

জানা গেছে, আর্জেন্টিনায় চাকরিজীবী পুরুষদের অবসরের বয়সসীমা ৬৫ বছর। আর নারীদের জন্য তা ৬০ বছর। পাঁচ বছর আগে অবসর নিতেই লিঙ্গ পরিবর্তন করেছেন এই ব্যক্তি, যা দেশটিতে রীতিমতো হইচই ফেলে দিয়েছে।

বিষয়টি গণমাধ্যমের নজরে এনেছেন সার্জিয়ার একজন আত্মীয়। নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় এক পত্রিকায় এই আত্মীয় বলেন, ‘লিঙ্গ পরিবর্তনের আগে কখনই সে (সার্জিয়া) পুরুষদের প্রতি আকৃষ্ট ছিল না। তার জীবনে অনেকের সঙ্গেই সম্পর্কে জড়িয়েছে সে। এগুলোর সবই ছিল নারী। এমন কি স্ত্রীর সঙ্গে ২৫ বছরের সংসার জীবনের ইতি টানার আগে তাদের কোলজুড়ে এসেছে দুটি কন্যা সন্তান। বিচ্ছেদের পরও সে অনেকের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছে। এরাও সবাই নারী ছিল। তাছাড়া জীবনে সে বহুবার সমকামী ও তৃতীয় লিঙ্গের বিরুদ্ধে নানা ধরনের কটুক্তিও করেছে।’

তিনি বলেন, ‘সার্জিয়ার মতে নারীরা পুরুষদের চেয়ে ৫ বছর আগে অবসর পাবে, এটা অন্যায়। সে সব সময়ই বন্ধু ও আত্মীয়দের কাছে এমন অভিযোগ করে আসছিল। এটি এক ধরনের বৈষম্য। এর বিরুদ্ধে আইনজীবীর পরামর্শে আদালতে মামলাও করেছে। কিন্তু মামলায় জয়ী হবে কি না তার কোনো নিশ্চিয়তা নেই। ফলে এই সুবিধা নিতে সে নিজের লিঙ্গ পরিবর্তন করেছে।’

তবে অবসরে সুবিধার নেয়ার বিষয়টি নাকচ করে দিয়েছেন সার্জিয়া। তিনি বলেছেন, ‘চাকরি থেকে তাড়াতাড়ি অবসর নেয়ার জন্য তিনি লিঙ্গ পরিবর্তন করেননি। এটি করেছেন সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত কারণে, যা তিনি প্রকাশ্যে আনতে চাইছেন না।’

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৬ মার্চ ২০১৮/মারুফ/ফিরোজ

Walton Laptop
 
     
Walton