ঢাকা, শুক্রবার, ৫ শ্রাবণ ১৪২৫, ২০ জুলাই ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

নয় বছর ধরে বেগুন চুরির মামলা

শাহিদুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৩-৩০ ৮:১৪:১০ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৩-৩০ ১১:৩৬:৩৬ এএম

শাহিদুল ইসলাম : সমাজে ঘটে যাওয়া নানা অন্যায়ের বিচার করা হয় আদালতে। সাধারণত বড় বড় অপরাধের বিচারের জন্য মানুষ আদালতের দ্বারস্থ হয়ে থাকেন। কিন্তু ইতালির একটি আদালতে নয় বছর ধরে চলেছে বেগুন চুরির মামলা।

বেগুন চুরির দায়ে অভিযুক্ত ব্যক্তির বসবাস ইতালির দক্ষিণাঞ্চালীয় লিস শহরের উপকণ্ঠে। স্ত্রী এবং এক সন্তান নিয়ে অত্যন্ত টানাটানির সংসার তার। একবেলা খাবার জোটে তো অন্য বেলা উপোস। ক্ষুধার তাড়নায় একদিন সাত পাঁচ না ভেবে একজনের বেগুনের জমিতে ঢুকে পড়েন। মালিকের অগোচরে কিছু বেগুন নিয়ে সটকেও পড়েন। তবে মালিকের কাছে ধরা না খেলেও পুলিশের কাছে ঠিকই ধরা খায় ওই ব্যক্তি।

ঘটনাটি ঘটেছিল আজ থেকে প্রায় নয় বছর আগে। ঘটনার পর পুলিশ বাদি হয়ে ওই ব্যক্তির নামে নিম্ন আদালতে মামলা করে। আদালতে দেওয়া জবানবন্দিতে এই ব্যক্তি তার কষ্টের জীবনের কথা উল্লেখ করেছিলেন। পাশাপাশি জানিয়েছিলেন, কর্মহীন হওয়ায় ও তার ঘরে কোনো খাবার না থাকায় তিনি সবজি চুরি করতে গিয়েছিলেন। কিন্তু বেগুন চুরি করেননি।

এই ব্যক্তির দুঃখের কথা শুনে মন গলে নিম্ন আদালতের বিচারকের। যদিও একশ বিশ ইউরো (১ইউরো=১০৫ টাকা) জরিমানা করা হয় তাকে সঙ্গে দেয়া হয় দুই মাসের জেল। তবে এই শাস্তিতে খুশি হয়নি স্থানীয় লিগ্যাল কাউন্সিল। তারা উচ্চ আদালতে এ বিষয়ে আপিল করে।

এরপর নানা প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে মামলাটি গড়িয়েছে নয় বছর। অবশেষে মামলাটির নিষ্পত্তি হয়েছে। অভিযুক্ত ব্যক্তিটি চুরির কথা স্বীকার করে নেওয়ার ফলে উচ্চ আদালত তার সাজা মওকুফ করে দিয়েছে। এছাড়া তার মানবিক দিকের কথা বিবেচনা না করে জনগণের করের টাকায় দীর্ঘদিন ধরে মামলা পরিচালনা করার জন্য নিম্ন আদালতকে তীব্র ভৎর্সনা করেছে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/৩০ মার্চ ২০১৮/মারুফ/ফিরোজ

Walton Laptop
 
     
Walton