ঢাকা, মঙ্গলবার, ৪ আষাঢ় ১৪২৬, ১৮ জুন ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

ল্যাম্পপোস্টের আলো দেখালো ভাগ্যের রাস্তা

মারুফ খান : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৬-০৬ ১২:২৪:৪৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৬-০৬ ২:৫৫:০৮ পিএম
ভিক্টর অ্যাঙ্গুলো
Walton AC 10% Discount

অন্য দুনিয়া ডেস্ক: ল্যাম্পপোস্টের নিচে কখনো বসে, কখনো শুয়ে মনোযোগ দিয়ে পাঠ্যবই পড়ছে একটি বালক। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে এই দৃশ্য চোখে পড়ে বাহরাইনের ব্যবসায়ী ইয়াকুব মোবারকের। দৃশ্যটি তার মনে নাড়া দেয়। তিনি সেই বালকের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন।

বালকটির নাম ভিক্টর অ্যাঙ্গুলো। পেরুর রাজধানী লিমা থেকে প্রায় সাড়ে পাঁচশ কিলোমিটার দূরে মোচে শহরে তার বাস। তার বাড়িতে বিদ্যুৎ সুবিধা নেই। ফলে স্কুলের হোমওয়ার্কের জন্য ল্যাম্পপোস্টই ভরসা। গত মার্চে সেভাবেই পড়ছিল সে। তখন সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়া সেই দৃশ্য ভার্চুয়াল জগতে ছড়িয়ে পড়ে।

সম্প্রতি ভিক্টরের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেছেন ইয়াকুব মোবারক। ভিক্টরের জন্য একটি নতুন বাড়ি তৈরির ব্যবস্থা করেছেন তিনি। স্কাইনিউজের প্রতিবেদনে এমনটাই জানানো হয়েছে। এজন্য ইয়াকুব মোবারককে বিশেষ সম্মাননা দেয়া হয়েছে। এ উপলক্ষে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে মোচের মেয়র আর্টুরো ফার্নান্দেজ বলেন, ‘কার্লোস ভিলানুয়েভা (স্থানীয় বাসিন্দা) ইনস্টাগ্রামে ভিক্টরের ভিডিওটি পোস্ট করেছিলেন এবং ইয়াকুব সেটি বাহরাইন থেকে দেখেন। এই মেসেজটি তার মনে নাড়া দিয়েছে। তাকে এজন্য ধন্যবাদ।’ ইয়াকুব মোবারক বলেন, ‘এই শিশুটি একটি বড় গল্প তৈরি করবে, একটি সাফল্যের গল্প যা বিশ্বের অন্য শিশুদের কাছে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।’

ভিক্টর বলেন, ‘ইয়াকুব মোবারক, আপনি আমাদের জন্য, স্কুলের শিশুদের জন্য যা করেছেন আপনাকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। সবকিছুর জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।’

এখানেই শেষ নয়, নতুন ব্যবসা চালুর জন্য ভিক্টরের পরিবারকে আর্থিক সাহায্য করেছেন ইয়াকুব মোবারক। স্কুলের জন্য দিয়েছেন ১৫টি নতুন কম্পিউটার। ভিক্টরের এক প্রতিবন্ধী বন্ধুকে দিয়েছেন হুইলচেয়ার। এছাড়া ভিক্টর ও তার পরিবারকে চলতি বছরের শেষের দিকে বাহরাইন নেয়ার প্রতিজ্ঞা করেছেন তিনি।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/৬ জুন ২০১৯/মারুফ/তারা

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge