ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ ভাদ্র ১৪২৪, ২৪ আগস্ট ২০১৭
Risingbd
শোকাবহ অগাস্ট
সর্বশেষ:

একই সঙ্গে ঝরেছিল দুই ফুল

শাহ মতিন টিপু : রাইজিংবিডি ডট কম
প্রকাশ: ২০১৭-০৮-১৩ ১১:৪৯:৩৯ এএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৮-১৩ ১১:৪৯:৩৯ এএম
মিশুক মুনীর ও তারেক মাসুদ

শাহ মতিন টিপু : আজ আরেকটি কালো দিন। ২০১১ সালের এই দিনে দেশ একই সঙ্গে দু’টি প্রতিভা হারিয়েছিল। কেউ বলেন, একই সঙ্গে ঝরে গেছে দুই ফুল।এই দিনে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার জোকা এলাকায় মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছিলেন তারেক মাসুদ, মিশুক মুনীরসহ পাঁচজন।

নতুন ছবির স্যুটিং স্পট দেখতে ১৩ আগস্ট ভোরে ঢাকা থেকে তারা মানিকগঞ্জের সালজানা গ্রামে গিয়েছিলেন। ছবির লোকেশন দেখে সেদিনই ঢাকা ফেরার পথে ঘটে সেই মর্মান্তিক ঘটনা।

সেদিন দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে প্রচন্ড বৃষ্টির মধ্যে তারেক মাসুদ-মিশুক মুনীরদের বহনকারী মাইক্রোবাসের সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা চুয়াডাঙ্গাগামী চুয়াডাঙ্গা ডিলাক্স পরিবহনের একটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই চিত্রপরিচালক তারেক মাসুদ ও এটিএন নিউজের তৎকালীন প্রধান নির্বাহী ও চিত্রগ্রাহক মিশুক মুনীর, মাইক্রোবাসের চালক মোস্তাফিজুর রহমান, প্রোডাকশন সহকারী মোতাহার হোসেন ওয়াসিম ও জামাল হোসেন নিহত হন।

আজ নেই তারেক মাসুদ, নেই মিশুক মুনীর। কিন্তু তাদের প্রতিভা আজো অনেক কথা মনে করিয়ে যায় আমাদের।তাদেরকে হারানোর ব্যথা জাগিয়ে তোলে বেদনার পাহাড়। তাদেরকে হারানোর ৬ষ্ঠ বার্ষিকী আজ।

‘মুক্তির গান’নির্মাণের জন্য এদেশের ইতিহাসে অনেক অনেক দিন বেঁচে থাকবেন তারেক মাসুদ। যার চোখে অনাবিল চেতনায় ধরা পড়েছিলো একাত্তরের রণাঙ্গণ। তার ‘মুক্তির গান’ এর কাজ অসাধারণ। বিশ্ববিদ্যালয় জীবন থেকেই তারেক মাসুদ বাংলাদেশের চলচ্চিত্র আন্দোলনের সাথে সক্রিয়ভাবে যুক্ত থেকেছেন এবং দেশে-বিদেশে চলচ্চিত্র বিষয়ক অসংখ্য কর্মশালা এবং কোর্সে অংশ নিয়েছিলেন।

১৯৮২ সালের শেষ দিকে তিনি জীবনের প্রথম ডকুমেন্টারি চলচ্চিত্র নির্মাণ শুরু করেন। ১৯৮৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত এই ডকুমেন্টারিটি ছিল শিল্পী এস এম সুলতানের জীবনের উপর। এরপর বেশ কিছু ডকুমেন্টারি, এনিমেশন এবং স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন। ২০০২ সালে তার প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘মাটির ময়না’ মুক্তি পায়। এই চলচ্চিত্রটি কান চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হয় এবং দেশে-বিদেশে বিশেষ প্রশংসা অর্জন করে। ১৯৮৮ সালে ঢাকায় অনুষ্ঠিত প্রথম আন্তর্জাতিক স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র উৎসবের কো-অডিঁনেটর হিসেবে কাজ করেন।

তারেক মাসুদের স্ত্রী ক্যাথরিন মাসুদ একজন মার্কিন নাগরিক। ক্যাথরিন এবং তারেক মিলে ঢাকায় একটি চলচ্চিত্র নির্মাতা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছিলেন যার নাম অডিওভিশন। চলচ্চিত্র নির্মাণ ছাড়া তারেক মাসুদের আগ্রহের বিষয় ছিল লোকসঙ্গীত এবং লোকজ ধারা। এই দম্পতির মাসুদ নিশাদ' নামে এক ছেলে আছে।

একই দিনে হারিয়ে ফেলা আরেক প্রতিভাবান মিশুক মুনীর এর বড় পরিচয়টি হচ্ছে, তিনি শহিদ বুদ্ধিজীবী মুনীর চৌধুরীর ছেলে। আশফাক মুনীর মিশুক দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বিভিন্ন দেশে বিবিসির ভিডিওগ্রাহক হিসেবে কাজ করেছেন দীর্ঘদিন। বাংলাদেশের প্রথম ব্যক্তিমালিকানাধীন টেলিভিশন একুশে টিভিতে হেড অব নিউজ অপারেশনস হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। দীর্ঘদিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগে শিক্ষকতাও করেছেন। বাবার মতোই তিনি দিতে চেয়েছিলেন আদর্শ- কোনো পুস্তক থেকে নয়; জীবন থেকে, জীবনের আয়না থেকে। সর্বশেষ তিনি এটিএন নিউজে প্রধান নির্বাহি কর্মকর্তা (সিইও) হিসেবে যোগ দেন। মিশুক মুনীরের অনেক বড়ো একটি অংশগ্রহণ ছিলো যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবির আন্দোলনে। তিনি এ বিষয়ে নানা ধরণের প্রতিবেদনও প্রচার করেছিলেন সম্প্রচার মাধ্যমে।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৩ আগস্ট ২০১৭/টিপু

Walton Laptop