ঢাকা, বুধবার, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

‘আমি মুসলিমদের হত্যা করতে চাই’

রাসেল পারভেজ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৬-১৯ ২:৫৬:৪৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৬-১৯ ৪:১০:৩৪ পিএম
এই গাড়ি দিয়ে মুসল্লিদের চাপা দেওয়ার চেষ্টা করেন গাড়িটির চালক

আন্তর্জাতি ডেস্ক : লন্ডনে আবারও হামলা হলো। সম্প্রতি লন্ডন ব্রিজে গাড়িচাপা দিয়ে যেভাবে মানুষ মারার চেষ্টা করা হয়েছিল, এবারের ঘটনাও তেমন।

তবে এবার হামলা হয়েছে শুধু মুসলিমদের ওপর। রোববার দিবাগত রাতে নামাজ আদায় শেষে মসজিদ থেকে বেরিয়ে আসা মুসল্লিদের গাড়ির নিচে চাপা দিয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, গাড়ি থেকে নেমে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করার সময় হামলাকারী গাড়িচালক চিৎকার করে বলছিলেন, ‘আমি সব মুসলিমকে হত্যা করতে চাই।’

উত্তর লন্ডনের ফিনসবারি পার্ক মসজিদের কাছে সেভেন সিস্টার্স রোডে দুটি মসজিদ থেকে বেরিয়ে আসা মুসল্লিদের ওপর গাড়ি চালিয়ে দেয় ওই চালক। এ ঘটনায় একজন নিহত ও কমপক্ষে ১০ আহত হয়েছেন।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে বলেছেন, একে পুলিশ ‘সন্ত্রাসী ঘটনা’ হিসেবে দেখছে। এর তদন্ত ভার পড়েছে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের ওপর। এ হামলার নিন্দা জানিয়েছেন বিরোধী নেতা করবিন ও লন্ডন মেয়র সাদিক খান।

পুলিশ জানিয়েছে, এ ঘটনায় হতাহত সবাই মুসলিম। ৪৮ বছর বয়সি সন্দেহভাজন হামলাকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শী আবদুল রহমান বলেছেন, তিনি মুসলিমদের হত্যা করতে চাইছিলেন।

বিবিসিকে রহমান বলেছেন, তিনি লোকটিকে (গাড়িচালক) আঘাত করেন এবং যাতে পালিয়ে যেতে না পারেন, সেজন্য অন্যদের সঙ্গে তাকে ঝাঁপটে ধরেন।

‘যখন লোকটি তার ভ্যান গাড়ি থেকে নেমে এলেন, তখন তিনি পালিয়ে যেতে চাইছিলেন, দৌড় দিয়েছিলেন এবং বলছিলেন, ‘আমি সব মুসলিমকে হত্যা করতে চাই... আমি সব মুসলিমকে খুন করতে চাই।’

রহমান বলেন, ‘আমি তাকে পেটে আঘাত করি... তারপর আমি ও অন্যরা মিলে... আমরা তাকে মাটির সঙ্গে চেপে ধরি, যাতে তিনি নড়াচড়া করতে না পারেন। পুলিশ আসা পর্যন্ত আমরা তাকে ধরে রাখি।’ তবে এখনো গাড়িচালকের পরিচয় প্রকাশ করেনি পুলিশ।

মেট্রোপলিটন পুলিশের ডেপুটি সহকারী কমিশনার নিল বসু বলেছেন, ‘সন্ত্রাসী হামলা তখনই শুরু হয়, যখন গাড়িচালক পথচারীদের ওপর দিয়ে গাড়ি উঠিয়ে দেয়।’ প্রথম যে লোককে গাড়িচাপা দেওয়া হয়, তিনিই মারা গেছেন। তবে ঠিক গাড়িচাপাতেই তার মৃত্যু হয়েছি কি না, তা নিয়ে সংশয় থেকে গেছে।

কমিশনার নিল বসু আরো বলেছেন, ‘যারা আহত-নিহত হয়েছেন, তারা সবাই মুসলিম। আপাতত গাড়িচালক ছাড়া এ ঘটনার জন্য আর কোনো সন্দেহভাজন নেই তাদের কাছে।’

লন্ডন মেয়র সাদিক খান জানিয়েছেন, রোজাদাররা যেন শঙ্কিত না হন, সে কথা ভেবে নিরাপত্তার জন্য অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

জরুরি নিরাপত্তাবিষয়ক কোবরা কমিটির সঙ্গে শিগগিরই বৈঠকে বসার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মের।

 

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৯ জুন ২০১৭/রাসেল পারভেজ

Walton
 
   
Marcel