ঢাকা, বুধবার, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

বন্যায় ২৪০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঠদান বন্ধ

মোয়াজ্জেম হোসেন : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৮-১৩ ৪:৩০:৫৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৮-১৪ ২:৫৫:২০ পিএম

লালমনিরহাট প্রতিনিধি : বন্যার পানিতে প্লাবিত হওয়ায় লালমনিরহাট জেলার ২৪০টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঠদান কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়েছে।

লালমনিরহাট জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, লালমনিরহাটের সদর উপজেলায় ৯১টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আদিতমারী উপজেলার সাতটি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কালীগঞ্জের ২০টি, হাতীবান্ধায় ২০টি ও পাটগ্রাম উপজেলায় ১০২টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পানি উঠার কারণে পাঠদান কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে।

জেলায় ১৫টি কলেজ, ১০টি মাদ্রাসা, ২০টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে পানি উঠেছে। এ সব বিদ্যালয়ে পাঠদান বন্ধ রয়েছে। 

লালমনিরহাট জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নবেজ উদ্দিন সরকার জানিয়েছেন, লালমনিরহাটে ২৪০টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বন্যার পানি উঠা এবং বন্যা কবলিত লোকজন আশ্রয় নেওয়ার কারণে সাময়িকভাবে এসব বিদ্যালয়ে পাঠদান বন্ধ রয়েছে। বন্যার পানি নেমে যাওয়ার পর এসব বিদ্যালয় পাঠদানের জন্য খুলে দেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক সফিউল আরিফ বলেন, তিস্তা, ধরলা ও সানিয়াজন নদী পথ ছাড়াও বিভিন্নভাবে ভারত থেকে বাংলাদেশে পানি ঢুকছে। উজানের ঢলের পানি ও গত চার দিনের টানা বর্ষণের পানিতে লালমনিরহাটের বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হওয়ায় বিদ্যালয় বন্ধ রাখা হয়েছে। ভয়াবহ এ বন্যা পরিস্থিতি সম্পর্কে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে।

লালমনিরহাট মজিদা খাতুন সরকারি মহিলা কলেজের ডিগ্রি পাস সার্টিফিকেট কোর্স পরীক্ষা কমিটির আহ্বায়ক প্রভাষক জাকির হোসাইন জানান, উত্তরাঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এক নোটিসে ১৩ আগস্টের ডিগ্রি পরীক্ষা স্থগিত করেছে। এ দিন পদার্থ বিজ্ঞান, মার্কেটিং ও সামাজিক বিজ্ঞান বিষয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। পরে পরীক্ষার তারিখ জানানো হবে।




রাইজিংবিডি/লালমনিরহাট/১৩ আগস্ট ২০১৭/মোয়াজ্জেম হোসেন/বকুল

Walton
 
   
Marcel