ঢাকা, বুধবার, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

ট্রাম্পের সিদ্ধান্ত যুদ্ধ ঘোষণার শামিল : হানিয়া

রাসেল পারভেজ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-১২-০৭ ৫:০২:২২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-১২-০৭ ৯:০২:২২ পিএম
হামাস নেতা ইসমাইল হানিয়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকা শাসনকারী গোষ্ঠী হামাসের নেতা ইসমাইল হানিয়া বলেছেন, জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের স্বীকৃতি দেওয়া ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার শামিল। এর বিরুদ্ধে নতুন ইন্তিফাদার (বিপ্লব) ডাক দিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার গাজা শহরে এক বক্তব্যে হানিয়া বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এই স্বীকৃতি ইসরায়েলি-ফিলিস্তিনি শান্তি প্রক্রিয়া হত্যা করেছে। তিনি আরো বলেছেন, ‘এই সিদ্ধান্ত শান্তি প্রক্রিয়া হত্যা করেছে, অসলোকে (অ্যাকর্ড) খুন করেছে এবং বন্দোবস্ত প্রক্রিয়াকে হত্যা করেছে।’

ইসমাইল হানিয়া (৫৪) দাবি করেছেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্ত একটি আগ্রাসন, এটি মুসলিম ও খ্রিষ্টানদের অন্যতম পবিত্র ধর্মীয় স্থান ফিলিস্তিনের হৃদয় জেরুজালেমে আমাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা।’ এই পরিস্থিতিতে ‘ইহুদি শুত্রুতার মুখে নতুন বিপ্লবী আন্দোলন ঘোষণায় সবাইকে কাজ করতে হবে’ বলে উল্লেখ করেন তিনি।

হানিয়া দৃঢ়তার সঙ্গে বলেন, জেরুজালেমকে ফিলিস্তিনের ‘অখণ্ড’ ভূখণ্ড হিসেবে দেখে ফিলিস্তিনিরা এবং এটি হবে ভবিষ্যৎ ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের রাজধানী।

তিনি বলেন, ‘ফিলিস্তিনি ইস্যুতে ইতিহাসের এক গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে আজ আমরা এখানে এসেছি এবং এই ইস্যুর কেন্দ্রবিন্দু জেরুজালেম। যুক্তরাষ্ট্র প্রশাসনের অন্যায্য ও উসকানিমূলক সিদ্ধান্তের পর আরব ও মুসলিম জাতিগুলোর ইতিহাসেও এটি একটি ‍গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্ত।’ ফিলিস্তিন অঞ্চলে মার্কিন প্রশাসনের নীতি ও অধিগ্রহণের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য ফিলিস্তিনের সব বিভক্ত গোষ্ঠীকে একত্রিত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

হানিয়া বলেছেন, ‘ভয়াবহ এই ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য ও যুক্তরাষ্ট্রের অন্যায্য, উসকানিমূলক সিদ্ধান্তের মুখে আমাদের দাবিগুলোকে প্রধান্য দেওয়ার জন্য ফিলিস্তিন পরিস্থিতির পুনর্বিন্যাস করতে আমরা সবার প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি, অনুরোধ করছি।’ 

হুঁশিয়ারি উপেক্ষা
আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বুধবার জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছেন এবং দীর্ঘদিনের পররাষ্ট্রনীতি উল্টে দিয়ে তেল আবিব থেকে জেরুজালেমে দূতাবাস সরানোর প্রক্রিয়া শুরু করতে নির্দেশ দিয়েছেন।

ফিলিস্তিনি ন্যাশনাল ইনিশিয়েটিভের মহাসচিব মুস্তাফা বারগোউতি বৃহস্পতিবার আলজাজিরা বলেছেন, ইসরায়েলের সঙ্গে যুদ্ধাপরাধে জড়াচ্ছেন ট্রাম্প এবং অধিগৃহীত ফিলিস্তিন অঞ্চল ছিনিয়ে নেওয়া নিশ্চিত করছেন।’

তিনি আরো বলেছেন, ‘আমি আশা করব, এই আমেরিকান টিমের (ট্রাম্প প্রশাসন) সঙ্গে বৈঠক করার প্রস্তাব গ্রহণ করবে না ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষ।’ ইহুদিদের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘ইসরায়েল সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তারা সব কিছু চায়। তারা সবই চায়? তো ভালো। আমরাও সব কিছুর জন্য লড়াই করব।’

ন্যাশনাল ইনিশিয়েটিভের মহাসচিব অসিহংস ইন্তিফাদার মাধ্যমে অধিকার আদায়ের ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেছেন, এটিই আমাদের দরকার। ইসরায়েলিরা সব জায়গায় ফিলিস্তিনিদের প্রতিরোধ দেখবেই।’

তথ্যসূত্র : আলজাজিরা অনলাইন



রাইজিংবিডি/ঢাকা/৭ ডিসেম্বর ২০১৭/রাসেল পারভেজ

Walton
 
   
Marcel