ঢাকা, বুধবার, ১১ মাঘ ১৪২৪, ২৪ জানুয়ারি ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

প্রোটোকল ভেঙে নেতানিয়াহুকে বরণ করলেন মোদি

রাসেল পারভেজ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০১-১৪ ৫:২৬:০৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০১-১৪ ১০:৩৩:৫৩ পিএম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ছয় দিনের ভারত সফরে আসা ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ও তার স্ত্রী সারা নেতানিয়াহুকে প্রোটোকল ভেঙে দিল্লির বিমানবন্দরে গিয়ে বরণ করে নিলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

বিদেশি সরকারপ্রধান বা রাষ্ট্রপ্রধানকে বিমানবন্দরে গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর স্বাগত জানানোর নিয়ম নেই ভারতে। এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকে বিমানবন্দরে গিয়ে স্বাগত জানিয়ে প্রোটোকল ভেঙেছিলেন মোদি।

এ যাবৎকাল ইসরায়েলের কোনো প্রধানমন্ত্রীর বিদেশ সফরের ইতিহাসে এবারই সবচেয়ে বড় ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদল নিয়ে ভারত এসেছেন নেতানিয়াহু।

উল্লেখ্য, গত ১৫ বছরের মধ্যে ইসরায়েলের কোনো প্রধানমন্ত্রী ভারত সফর করছেন। এর আগে ২০০৩ সালে ভারত সফর করেছিলেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী অ্যারিয়েল শ্যারন।

ছয় দিনের সফর শেষে দেশে ফেরার আগে ভারতের সঙ্গে অনেক ব্যবসায়িক চুক্তি স্বাক্ষরের প্রতিশ্রুতি আগেই দিয়ে রেখেছেন নেতানিয়াহু। নেতানিয়াহু বলেছেন, ‘ইসরায়েল ও গুরুত্বপূর্ণ এই বৈশ্বিক শক্তির সঙ্গে আমরা সম্পর্ক জোরদার করছি। এটি আমাদের নিরাপত্তা, অর্থনীতি, বাণিজ্য ও পর্যটনসহ আরো অনেক বিষয়ে স্বার্থ রক্ষা করবে। ইসরায়েল রাষ্ট্রের জন্য এটি বিশাল আশীর্বাদ।’

নেতানিয়াহুকে বরণ করার পর এক টুইটে মোদি লিখেছেন, ‘ভারতে স্বাগতম, আমার বন্ধু প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু। ভারতে আপনার এই সফর ঐতিহাসিক ও বিশেষ। এটি আমাদের দুই দেশের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরো মজবুত করবে।’ হিব্রু ভাষায়ও একই টুইট করেন মোদি। নেতানিয়াহুও মোদিকে তার ‘ভালো বন্ধু’ উল্লেখ করে টুইট করেছেন এবং উষ্ণ অভ্যর্থনার জন্য ধন্যবাদ দিয়েছেন।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নেতানিয়াহুর সফরকে দুই দেশের মধ্যে আনুষ্ঠানিক সম্পর্কের রজতজয়ন্তির মোক্ষম উপলক্ষ হিসেবে উল্লেখ করেছে।

সফরের শুরুতে নেতানিয়াহু ও মোদি দিল্লির তিন মূর্তি চক স্থাপনায় গিয়ে প্রথম বিশ্বযুদ্ধে ভারতীয় বীর শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় ইসরায়েলের হাইফা শহরে মিত্রবাহিনীর পঞ্চদশ ইমপেরিয়াল সার্ভিস ক্যাভালরি ব্রিগেডের অংশ হিসেবে ভারতের হায়দরাবাদ, যোধপুর ও মহীশূরের অশ্বারোহী সৈনিকদল আক্রমণ করে অক্ষ শক্তিকে পরাজিত করে। ওই তিন সৈনিকদলের বীরত্বপূর্ণ অবদানের স্মারক হিসেবে তিন মূর্তি চক তৈরি করা হয়। রোববার স্থাপনটি পরির্দশনের সময় দর্শনার্থীর স্বাক্ষর বইয়ে স্বাক্ষর করেন মোদি ও নেতানিয়াহু। নেতানিয়াহুর সফর উপলক্ষে তিন মূর্তি স্থাপনার নাম পাল্টে ‘তিন মূর্তি হাইফা চক’ নামকরণ করা হয়েছে।

নেতানিয়াহুর সম্মানে আজ রাতে এক ভোজসভার আয়োজন করছেন মোদি।

তথ্যসূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইন



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৪ জানুয়ারি ২০১৮/রাসেল পারভেজ

Walton