ঢাকা, শুক্রবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ২৫ মে ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

গাজীপুরে স্বামী হত্যার দায়ে স্ত্রী ও প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড

হাসমত আলী : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০২-১৩ ৪:২৭:৪৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০২-১৩ ৪:২৭:৪৮ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর : গাজীপুরে পরকীয়ার জেরে স্বামীকে হত্যার দায়ে স্ত্রী ও তার প্রেমিককে মৃত্যুদণ্ডদেশ দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার দুপুরে গাজীপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালতের বিচারক মো. ইকবাল হোসেন এ রায় দেন। রায়ে একই সঙ্গে দণ্ডপ্রাপ্তদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- ঝিনাইদহ সদরের সনাতনপুর মধ্যপাড়া এলাকার আ. বারেজ বিশ্বাসের ছেলে মান্নান হোসাইন (৪০) ও সিরাজগঞ্জের একডালা গ্রামের মোজাহার আলী মাস্টারের মেয়ে নাজমা বেগম (৩১)।

গাজীপুর আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট হারিছ উদ্দিন আহমেদ জানান, সিরাজগঞ্জের একডালা গ্রামের আব্দুল হান্নান একই এলাকার নাজমা বেগমকে বিয়ে করেন। হান্নান চাকরির সুবাদে টঙ্গীর সাতাইশ এলাকার জনৈক মোসলেম উদ্দিন বেপারীর দোতলা বাসায় ভাড়া থাকতেন। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি মান্নান হোসাইন একই বাসায় সাবলেট হিসেবে বসবাস করার সুবাদে হান্নানের স্ত্রী নাজমা বেগমের সঙ্গে তার পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিষয়টি হান্নান টের পেয়ে মান্নান হোসাইনকে বাসা ছেড়ে দিতে এবং স্ত্রীকে সংশোধন হওয়ার জন্য বলে। মান্নান বাসা না ছেড়ে উল্টো হান্নানকে খুন করার হুমকি প্রদান করে।

এক পর্যায়ে ২০১২ সালের ২৫ জানুয়ারি নাজমা বেগম বাপের বাড়ি যাওয়ার কথা বলে ভাড়া বাসা থেকে চলে যায়। হান্নান ২৭ জানুয়ারি রাতে ভাড়া বাসায় ফিরে ঘুমিয়ে পড়ে। ওই রাতে মান্নান হোসাইন সাবলেট হিসেবে ওই ভাড়া বাসায় ছিল। পর দিন সকালে হান্নানের দুই হাত বাঁধা, নাক-মুখে রক্তাক্ত অবস্থায় ঘরের বিছানার ওপর মরদেহ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় নিহত হান্নানের বড় ভাই আব্দুল মান্নান বাদি হয়ে ওই দুজনের নামে টঙ্গী থানায় মামলা দায়ের করেন।

এ ঘটনায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মনোয়ার হোসেন তদন্ত শেষে ওই দুজনকে অভিযুক্ত করে ওই বছরের ১১ জুন আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। সাক্ষ্যগ্রহণ ও শুনানি শেষে মঙ্গলবার দুপুরে বিচারক ওই দুজনকে মৃত্যুদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা করে জরিমানার আদেশ দেন।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এপিপি অ্যাডভেকেট ফরিদা ইয়াসমিন এবং আসামি পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট ওয়াহিদুজ্জামান (তমিজ) ও আবুল বাশার।



রাইজিংবিডি/গাজীপুর/১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/হাসমত আলী/মুশফিক

Walton Laptop
 
   
Walton AC