ঢাকা, সোমবার, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১১ ডিসেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

আরিফার খুনি শনাক্ত হলেও কারণ অজানা পুলিশের

মাকসুদুর রহমান : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৩-২০ ৫:৪৯:১৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৩-২০ ৬:০২:৫২ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রায় এক সপ্তাহ হতে চলল যমুনা ব্যাংক কর্মকর্তা আরিফুন্নেসা আরিফা হত্যাকাণ্ড। এ সময় খুনি শনাক্ত হলেও খুনের কারণ জানতে পারেনি পুলিশ।

তবে প্রধান সন্দেহভাজন খুনি ও আরিফার প্রাক্তন স্বামী ফখরুল ইসলাম রবিন গ্রেপ্তার হলে সব রহস্য বেরিয়ে আসবে বলে তদন্তসংশ্লিষ্টরা আশা করছেন। মঙ্গলবার খুনিকে গ্রেপ্তার দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে নিহতের স্বজনরা মানববন্ধন করবেন বলে জানা গেছে।

সোমবার বিকেলে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও কলাবাগান থানার ওসি (তদন্ত) সমির চন্দ্র সূত্রধর রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘রোববারও রবিনকে গ্রেপ্তার করতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। কিন্তু তাকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। সিসি ফুটেজে রবিনই আরিফাকে কুপিয়েছে দেখা গেলেও এর পেছনে কী কারণ আছে তারই তদন্ত চলছে। তার আগে রবিনকে গ্রেপ্তার করতে হবে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলেই হত্যার পেছনের কারণ জানা যাবে।’

রাইজিংবিডির প্রশ্নের জবাবে তদন্ত কর্মকর্তা বলেন, ‘তদন্তের স্বার্থে অনেক কিছুই মাথায় নিয়ে এগোতে হয়। এটির ক্ষেত্রেও তাই করা হচ্ছে। তবে সেগুলো এখনও বলার সময় হয়নি।’

একটি গোয়েন্দা সূত্র ধারণা করছে, ৭/৮ মাস আগে আরিফা এবং রবিনের ডিভোর্স হয়। পরিবারের ভাষ্যমতে, অত্যাচার সইতে না পেরে আরিফা নিজেই রবিনকে ডিভোর্স দেন। রবিন এটি সহজে নিতে পারেননি। এ কারণে আরিফাকে হত্যার পরিকল্পনা করতে পারে। আবার তারা একসঙ্গে বাসায় মালামাল তুলছিল। এটিও আরিফাকে হত্যার অংশ হতে পারে।

এদিকে নিহতের ভাই আল-আমিন বলেন, ‘তার বোন নিরপরাধ। অথচ তাকে হত্যা করা হলো। পুলিশ এখনো খুনিকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। এ কারণে এর প্রতিবাদে আগামীকাল মঙ্গলবার সকাল ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করব।’

তিনি ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্ত করে দোষীকে আইনের আওতায় আনার জোর দাবি জানান।

উল্লেখ্য, ১৬ মার্চ সেন্ট্রাল রোডসংলগ্ন ১৩ ওয়েস্ট অ্যান্ড স্ট্রিটের পাঁচতলা ভবনের নিচতলার বাসা থেকে সকালে কাজে বের হন। দরজার কাছে ছুরিকাঘাতে আহত আরিফা হাসপাতালে মারা যান। ঘটনার পর থেকেই রবিন আত্মগোপনে রয়েছে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২০ মার্চ ২০১৭/মাকসুদ/মুশফিক

Walton