ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪, ৩০ মে ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

অপহরণকারীদের কৌশল পরিবর্তন

আহমদ নূর : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৫-১৯ ৭:১৮:৪২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৫-২৬ ৯:৫৮:৩৮ এএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) দাবি করছে, অপহরণকারীরা আগের চেয়ে অনেক কৌশলী হয়ে গেছে। তারা এ তাদের পুরাতন কৌশল পরিবর্তন করে নতুন পদ্ধতিতে অপহরণ করছে।

র‌্যাব বলছে, আগে অপহরণকারীরা বিত্তশালীদের অপহরণ করতো। তাদের কাছে মুক্তিপণ দাবি করতো। এতে তারা বিশাল অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নিতে পারত। তবে বিত্তবানদের ক্ষেত্রে কিছুটা ঝুঁকি নিতে হতো অপহরণকারীদের। বেশিরভাগ সময়ই অপহৃতের স্বজনরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে বিষয়টি জানান। এর ভিত্তিতে বিরুদ্ধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালায়। এতে তাদের নেটওয়ার্ক অনেকটা ধ্বংস হয়ে গেছে। এ কারণে তারা ভিন্ন কৌশল অবলম্বন করছে।

র‌্যাব বলছে, কৌশলে অংশ হিসেবে অপহরণকারীদের একটি অংশ গ্রাম থেকে আসা সহজ সরল মানুষদের টার্গেট করছে। অপহরণকারীরা যাদের টার্গেট করছে তারা খুব বিত্তশালীও নয়।  সুযোগ পেলে তাদের অপহরণ করে পরিবারের কাছে মুক্তিপণ দাবি করছে।

শুক্রবার ভোরে গাজীপুরের টেশনপাড়া এলাকা থেকে এ ধরনের  অপহরণকারী চক্রের পাঁচ সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব-১। আটকৃতরা হলেন-মো. রাব্বি হাসান নিলয় (২২), মো. রাকিব (২০),  মো. শাকিল মোল্লা (২১), মো. সোহেল রানা (২০) এবং মো. সোহাগ (২৩)। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি বিদেশী পিস্তল, দুই রাউন্ড গুলি, তিনটি চাকু, ছয়টি মোবাইল; যার মধ্যে দুটি ভিকটিমের, ভিকটিমের একটি ডেবিট কার্ড উদ্ধার করা হয়। ওই সময় অপহৃত দুই ভিকটিম মো. মিরাজুল ইসলাম (২৫),   মো. রাকিবুল ইসলামকে (১৯) উদ্ধার করা হয়।

এ বিষয়ে শুক্রবার বিকেলে ঢাকার কারওয়ান বাজারে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-১ এর কমান্ডিং অফিসার লে. কর্নেল সারোয়ার বিন কাশেম বলেন, ‘গ্রাম থেকে ঢাকায় আসা সহজ সরল মানুষদের টার্গেট করে এরা অপহরণ করতো। পরে তাদের স্বজনদের মোবাইলে ফোন দিয়ে যোগাযোগ করত এবং মুক্তিপণের টাকা দাবি করতো।’

তিনি বলেন, আটকৃতরা অপহরণের একটি চক্র। তারা দীর্ঘদিন ধরে এ কাজে সম্পৃক্ত ছিল। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৯ মে ২০১৭/নূর/সাইফ

Walton Laptop