ঢাকা, শনিবার, ১১ ফাল্গুন ১৪২৫, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

ঘুষ ও দুর্নীতিতে দুদকের হাতে ধরা ৩

এম এ রহমান : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৯-০১-২৩ ৪:২১:৫৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০১-২৩ ৪:২১:৫৫ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঘুষ ও দুর্নীতির দায়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সার্ভেয়ারসহ তিন জনকে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বুধবার তিন জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন-ঘুষের টাকাসহ গ্রেপ্তার হয়েছে কিশোরগঞ্জ ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার গিয়াস উদ্দিন, জালিয়াতির মাধ্যমে ঋণ বিতরণে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানি উপজেলার সোনালী ব্যাংকের ভাটিয়া পাড়া শাখার কর্মকর্তা মো. আকতার হোসেন ও সরকারি চাল আত্মসাৎ করার দায়ে বরিশাল সদর উপজেলার চাঁদপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আমানুল্লাহ।

দুদক জানায়, বুধবার সকাল ১১টায় কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর অফিস থেকে অফিসের সার্ভেয়ার মো. গিয়াস উদ্দিনকে ১০ হাজার টাকা ঘুষ গ্রহণকালে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করেছে দুদকের একটি বিশেষ টিম। কিশোরগঞ্জের বাসিন্দা এম এ হাকিম শাহর লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে দুদকের ময়মনসিংহের বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক মো. কামরুল হাসানের তত্ত্বাবধানে ওই কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ ঘটনায় দুদকের ময়মনসিংহ সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক সাধন চন্দ্র সূত্রধর বাদী হয়ে কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

অন্যদিকে সকাল ১০টায় গোপালগঞ্জের কাশিয়ানি উপজেলার সোনালী ব্যাংক লিঃ এর ভাটিয়া পাড়া শাখার কর্মকর্তা মো.  আকতার হোসেনকে বিভিন্ন ভুয়া ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের নামে জাল-জালিয়াতির মাধ্যমে ২ কোটি ৫৫ লাখ ৭ হাজার টাকা ঋণ দেখিয়ে আত্মসাতের অভিযোগে গ্রেপ্তার করেছে দুদকের অপর একটি বিশেষ টিম। ২০১৭ সালের ২৯ নভেম্বর ৬ জনকে আসামি করে এ বিষয়ে কাশিয়ানি (গোপালগঞ্জ) থানায় দুদক একটি মামলা দায়ের করে। মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা দুদকের ফরিদপুর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক রাজ কুমার সাহা।

সরকারি চাল আত্মসাৎ করায় বরিশাল সদর উপজেলার চাঁদপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আমানুল্লাহকে বরিশাল শহরের চৌমাথা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছে দুদকের আরো একটি টিম। তার বিরুদ্ধে দুদকের মামলায় ভিজিডি কার্ডধারী স্থানীয় ২৫১ জনকে ২০ কেজি করে কম চাল দিয়ে প্রায় ৫ মেট্রিক টন চাল আত্মসাৎ করে, যার মূল্য ১ কোটি ৮২ লাখ ৪২৬ হাজার টাকা৷ গত বছরের ২৭ নভেম্বর দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আবুল হাসেম কাজী বাদী হয়ে ২ জনকে আসামি করে মামলাটি দায়ের করেন।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৩ জানুয়ারি ২০১৯/এম এ রহমান/সাইফ

Walton Laptop