ঢাকা, শনিবার, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪, ২৭ মে ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

বিবাহ বন্ধন শক্তিশালী করার পাঁচ উপায়

জামশেদ আলম রনি : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৪-১৫ ৫:৩৩:২৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৪-১৫ ৫:৩৩:২৭ পিএম
প্রতীকী ছবি

জামশেদ আলম রনি : পরিবার এবং বন্ধুদের সঙ্গে উদযাপন করার জন্য বিবাহ একটি চমৎকার সুযোগ হতে পারে। কিন্তু বাস্তব কাজ শুরু হয় অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পর।

বিবাহ বন্ধন শক্তিশালী করার জন্য সচেতন প্রচেষ্টা প্রয়োজন, যা সবসময় সহজ নয়। কিন্তু এটি নিরাপদেই বলা যায়, কঠোর পরিশ্রমের ফলেই সুখ আসে।

রাসেল সুসান নামে নিউ ইয়র্কের এক সম্পর্ক এবং দাম্পত্য বিশেষজ্ঞ বিবাহকে শক্তিশালী করার জন্য পাঁচটি উপায়ের পরামর্শ দিয়েছেন।

ছোট ছোট কাজগুলো উদারতার সঙ্গেই করুন
বাসায় ফেরার সময় সঙ্গীর পছন্দের কোনো খাবার কিনুন কিংবা বাসায় ফিরে টুকটাক কিছু কাজে সহায়তা করুন। এটা সত্যি সেই বিষয় যার জন্য সঙ্গী বোধ করবে, বাহ! এই ব্যক্তিটি আমার যত্ন নিচ্ছে। সবসময় আমার পাশেই রয়েছে।

আপনার সেরাটা হবার চেষ্টা করুন
সুসান বলেন, অনেক মানুষ তাদের সঙ্গীদের মেনে নেওয়ার জন্য গ্রহণ করে, যা অনুভূতিতে আঘাত পাবার পথে নিয়ে যেতে পারে।

‘দম্পত্তিদের বলছি আপনারা খুব ভাগ্যবান যে, যাকে আপনি খুঁজে পেলেন তাকে আপনি ভালোবাসেন এবং তাকে আগলে রাখতে হবে। ভালোবাসাকে একটি পছন্দের কাজ হিসেবে আপনি করবেন- আপনি যদি বহিস্কার হতে না চান তবে, আপনাকে প্রতিদিনই কাজে যেতে হবে এবং নিজের সম্ভাব্য সর্বোত্তম হবার চেষ্টা করতে হবে।

কোথাও যাওয়ার পর যোগাযোগ রাখুন
আপনার বন্ধু এবং কার্যক্রম গুরুত্বপূর্ণ হয়ে থাকতে পারে কিন্ত সঙ্গীনিকে আপনি সম্পূর্ণ দূরে সরিয়ে দিতে পারেন না।

সুসান বলেন- লোকজনের কাছ থেকে আমি অনেক অভিযোগ শুনেছি যে, যখন সঙ্গী তার কোনো বন্ধুর সঙ্গে ঘুরতে যায় তখন তারা অদৃশ্য হয়ে যান। এর মানে এই না যে, আপনি তাকে প্রতি সেকেন্ডে টেক্সট করবেন। আপনি বলতে পারেন, তোমাকে আমি মিস করবো, আশা করি ভালো সময় কাটবে কিংবা মধ্যরাতের আগে বাড়ি ফিরে আসবে।

দ্বিমত পোষণ করুন শ্রদ্ধার সঙ্গেই
তর্ক হবেই। মূল কথা হলো তর্কের সময় সঙ্গীর মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হোন।

দম্পত্তিদের কোনো বিষয়ে নিশ্চিতভাবেই ভিন্নমত থাকতে পারে-আপনি কেবল শ্রদ্ধাশীল হবেন বলে জানান সুসান। ‘বাহ, সত্যিই আমি এর আগে কখনো এমন করে ভাবিনি, এটা একটা মজার দৃষ্টিকোণ, এটি আমার দৃষ্টিকোণ থেকে যদিও গুরুত্বপূর্ণ নয় তবুও আমি বিষয়টি নিয়ে চিন্তা করবো, আমি চাই তুমিও আমার বিষয়টি নিয়ে ভাববে।’

খারাপ পরিস্থিতির সময় সাহায্য নিন
আপনি যদি কোনো কিছুকে কাজে পরিণত করতে না পারেন এবং এটি আপনার সম্পর্কের ক্ষেত্রে মাশুল দিতে হয় তবে তৃতীয় কোনো নিরপেক্ষ ব্যক্তির সাহায্যে সমস্যার সমাধান করতে পারেন।

খারাপ পরিস্থতি দূর হবে না, যদি না আপনি এটি নিয়ে কাজ করেন। এটি কেবল খারাপ থেকে খারাপতর হতে থাকবে বলে জানান সুসান। যদি মনে করেন আপনি খারাপ অবস্থার মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন তাহলে তখন কোনো পরামর্শদাতার কাছে সেশন নিতে পারেন। পরামর্শদাতা খুঁজে বের করবেন কি হচ্ছে এবং সঠিক পথে যেতে আপনাকে সাহায্য করবেন।

তথ্যসূত্র : বিজনেস ইনসাইডার



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৫ এপ্রিল ২০১৭/ফিরোজ

Walton Laptop