ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৪ মাঘ ১৪২৫, ১৭ জানুয়ারি ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

ঘরে বসেই অনলাইনে কিনুন গুড়-পাটালি

খালেদ সাইফুল্লাহ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৯-০১-১২ ৩:৩০:১৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০১-১২ ৪:৩০:০১ পিএম

খালেদ সাইফুল্লাহ : চাকরির সুবাদে দীর্ঘদিন যশোর থেকেছেন আব্দুল মালেক হাওলাদার। ঢাকা ব্যাংকের ব্যবস্থাপক হিসেবে যশোর থাকাকালীন প্রতিবছরই শীত আসলে কিনতেন খেজুরের গুড় ও পাটালি। কিন্তু কয়েকবছর আগেই বদলি হয়ে তাকে চলে আসতে হয় ঢাকায়। কর্মস্থল বদলালেও ছাড়তে পারেননি যশোরের সেই গুড়-পাটালির স্বাদ। আগের মতোই শীত আসলে তিনি বের হন যশোরের খেজুরের পাটালির সন্ধানে। কিন্তু বাজার থেকে পাটালি কিনে প্রতিবছরই ভেজালের শিকার হয়েছেন। আবার যশোর থেকে বিশুদ্ধ নলেন গুড়ের পাটালি কেনার উপায়ও করতে পারেননি তিনি।

খেজুরের গুড় ও পাটালির জন্য বেশ সুখ্যাতি রয়েছে যশোর জেলার। চারিদিকে হলুদ সরিষা ক্ষেত, তার মাঝ দিয়ে সারি সারি খেজুর গাছ যেমন দক্ষিণাঞ্চলের এই জেলাটির সৌন্দর্য বৃদ্ধি করেছে, তেমনি এখানকার খেজুরের গুড়-পাটালি দেশব্যাপী খ্যাতি পেয়েছে। এমনকি দেশের গন্ডি পেরিয়ে বিদেশেও রয়েছে এই খাদ্যপণ্যটির চাহিদা।

গত দু’দশক পূর্বেও দেখা যেত কুয়াশার চাদর ছিঁড়ে ভোররাতে বাক কাঁধে রস নিয়ে ঘরে ফিরছেন গাছিরা। তবে দিন দিন বিরল হতে চলেছে এই দৃশ্য। কারণ হিসেবে অনেকেই মনে করেন, গাছিদের পেশা পরিবর্তন। গাছ কাটা এবং রস সংগ্রহ বেশ কষ্টসাধ্য কাজ এবং এটির জন্য অনেক বেশি সময়ানুবর্তী হতে হয়। অন্যদিকে শিল্পায়ন ও নগরায়নের ফলে নতুন নতুন কাজের ক্ষেত্র সৃষ্টি হওয়ায় অনেক জাদরেল গাছিও লেজ গুটিয়েছেন এই কাজ থেকে। তাই এখন আর শীতের সকালে রস নিয়ে ঘরে ফিরতে দেখা যায় না গ্রামের গাছিদেরকে। তাই রস-গুড়ের সেই প্রাচুর্যও এখন আর নেই। কিন্তু চাহিদা কমেনি শীতকালীন নলেন গুড়ের পাটালির। চাহিদার সঙ্গে তাল মিলিয়ে বেড়েছে ভেজাল পাটালির ছড়াছড়ি।

সাধারণ ক্রেতাদেরকে ভেজালের হাত থেকে রক্ষা করে বিশুদ্ধ পাটালির নিশ্চয়তা দেওয়ার জন্য এগিয়ে এসেছে যশোররোড ডটকম নামের একটি ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান। ইতিমধ্যে দেশব্যাপী বেশ জনপ্রিয়তাও অর্জন করেছে অনলাইন সাইটটি। দেশের বিভিন্ন প্রান্তের যেসব মানুষ এতদিন খেজুরের গুড়-পাটালি কিনে চরমভাবে ঠকেছেন তাদের জন্য যশোররোড ডটকম আস্থার প্রতীক হয়ে উঠেছে।

ঢাকার বাসিন্দা আফসানা ইয়াসমিন বলেন, অনেকদিন থেকেই তিনি খেজুরের পাটালির সন্ধান করছেন। হঠাৎ করেই সন্ধান পান যশোররোড ডটকম এর। সেখানে চট করে অর্ডার করে ফেললেন খেজুরের পাটালি, কুমড়ার বড়ি এবং মধু। প্রথমদিকে মনে খানিকটা সংশয় থাকলেও পণ্য হাতে পাওয়ার পর স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেন। যেমনটি ভেবেছিলেন তার চাইতেও অনেক সহজে পেয়ে যান অর্ডারকৃত পণ্যগুলো। পণ্যের মান নিয়েও তিনি সন্তুষ্ট।

আফসানা ইয়াসমিন কিংবা আব্দুল মালেকের মতো যারা দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বিশুদ্ধ গুড়-পাটালির সন্ধান করছেন তাদের সকল দুশ্চিন্তার অবসান ঘটিয়েছে যশোররোড ডটকম। প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বহী আহসান কবীর বলেন, ‘এই অঞ্চলের যেসব ঐতিহ্য হারিয়ে যাওয়ার পথে, সেগুলোকে টিকিয়ে রাখার জন্য আমরা এই ভিন্নধর্মী উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। সারাদেশের মানুষের কাছে এগুলোকে তুলে ধরার এবং তাদের চাহিদানুযায়ী বিশুদ্ধতা রক্ষা করাই আমাদের উদ্দেশ্য। আবার যেসব গাছিরা গুড়-পাটালি উৎপাদন করেন তারা যেন ন্যায্যমূল্য পান এবং সেগুলোকে কোনোরূপ ভোগান্তি ছাড়াই বিক্রয় করতে পারেন সেজন্য আমরা সবসময়ই সচেষ্ট। ইতিমধ্যেই আমরা বেশ সাড়া পেয়েছি এবং দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পণ্যের অর্ডার পেয়েছি।’

প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইট www.jessoreroad.com থেকে গুড় ও পাটালির দামসহ বিস্তারিত বর্ণনা দেখে প্রতিষ্ঠানটির ফেসবুক পাতা facebook/amarjessoreroad তে গিয়ে অথবা হটলাইন নম্বর ০১৯৮০১৭১৭১৭ এ সরাসরি যোগাযোগ করে অর্ডার করা যাবে পাটালিসহ স্থানীয় বিভিন্ন পণ্যের। বিকাশ কিংবা রকেটের মাধ্যমে মূল্য পরিশোধ করা যাবে। অর্ডার করলেই নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে পণ্য পৌঁছে যাবে আপনার ঘরে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১২ জানুয়ারি ২০১৯/ফিরোজ

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC