ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

মার্সেল ফ্রিজ কিনে এসিসহ ১৫ পণ্য পেলেন বাবুর্চি আমিন

জাকির হুসাইন : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-১১-২৬ ১২:১৭:১৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-১১-২৬ ২:৪৮:৫২ পিএম
মার্সেলের লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার ও সেই টাকায় কেনা পণ্যসহ মো. আমিন

জাকির হুসাইন : গাজীপুরের কোনাবাড়ির বাসিন্দা মো. আমিন। স্থানীয় একটি হোটেলে বাবুর্চির কাজ করেন।  এখন তার ঘরেই এয়ার কন্ডিশনার, ফ্রিজ, এলইডি টেলিভিশনসহ অসংখ্য ইলেকট্রনিক্স পণ্য।

গল্প নয়, বাস্তবেই ঘটেছে এমন ঘটনা। আর তা সম্ভব হয়েছে দেশীয় ব্র্যান্ড মার্সেলের ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের বিশেষ অফারে। এই অফারে মার্সেল ফ্রিজ কিনে লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার পেয়েছেন আমিন। সেই টাকায় কিনেছেন এসিসহ ১৫টি ইলেকট্রনিক্স পণ্য।

মো. আমিনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দুই মেয়ে ও এক ছেলের জনক তিনি। বাবা-মা কেউ বেঁচে নেই। এখন ছেলে-মেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়েই গাজিপুরে নিজ বাড়িতে বসবাস করছেন তিনি। তিন বছর আগে বড় মেয়েকে টাঙ্গাঈলের ভূয়াপুরে বিয়ে দিয়েছেন। সেই মেয়ের জন্যই মার্সেল ফ্রিজ কিনে লাখ টাকা পেয়েছেন তিনি।

মো. আমিন বলেন, ‘গত কোরবানির ঈদে আমাদের ব্যবহারের জন্য একটি মার্সেলের ফ্রিজ কিনি। সেটা দেখে বড় মেয়ের দাবি তাকেও একটি ফ্রিজ দিতে হবে। গরিব হলেও পিতা হিসেবে মেয়ের আবদার ফেলে দিতে পারি না। মেয়েকে আশ্বাস দিয়েছিলাম, হাতে একটি বড় কাজ আছে। সেখান থেকে টাকা পেলেই তার আবদার পূরণ করব। কয়েক দিন আগে টাকা হাতে পাই। টাকা পাওয়ার পর দেরি করিনি।’

মো. আমিন ও তার স্ত্রীর হাতে লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার ও অন্যান্য পণ্য তুলে দেওয়া হচ্ছে


তিনি বলেন, ‘মার্সেল কোম্পানির ফ্রিজ কিনব তা আগে থেকেই ঠিক করা ছিল। কারণ আমার বাসায় একই কোম্পানির ফ্রিজ ব্যবহার হচ্ছে। গত বুধবার মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে কোনাবাড়ি মার্সেলের শোরুম জসিম ইলেক্ট্রনিক্সে যাই। দেখে-শুনে ১২ সিএফটির একটি ফ্রিজ পছন্দ হয়। ২২ হাজার ৯০০ টাকা দিয়ে ফ্রিজটি কিনি। তখনো জানতাম না যে ফ্রিজ কিনলে পুরস্কার পাওয়া যাবে। কারণ কিছুদিন আগে যখন ফ্রিজ কিনেছিলাম তখন এমন সুযোগ ছিল না। শুধু মেয়েকে উপহার দেব বলে কিনতে যাওয়া।’ 

তিনি জানান, ফ্রিজ কেনার সময় বিক্রয়কর্মীরা তাদের এই অফারের বিষয়ে জানান। তারাই আমিনের মোবাইল নম্বর নিয়ে ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন করে দেন। ফ্রিজ নিয়ে বাড়ি যাওয়ার পর শোরুম থেকে ফোন করে তার মোবাইলে কোনো মেসেজ গেছে কিনা তা জানতে চাওয়া হয়। তিনি মোবাইল খুলে দেখেন যে একটি মেসেজে এসেছে। তখন মার্সেল শোরুম থেকে তাকে জানানো হয় যে তিনি ১ লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার পেয়েছেন।

আমিন বলেন, ‘ফোনে তাদের সব কথা স্পষ্টভাবে বুঝতে পারিনি। তাই সঙ্গে সঙ্গে শোরুমে চলে যাই। তারা মেসেজটি পড়ে আমাকে নিশ্চিত করেন যে আমি এক লাখ টাকার ভাউচার পেয়েছি। তখন অবাক হয়ে যাই। আমার মতো গরিব মানুষের কপালে এক লাখ টাকা পুরস্কার! এ খবর বাড়িতে জানালে ছেলে-মেয়ে সবাই এত খুশি হয়, যা ভাষায় প্রকাশ করতে পারব না। সবচেয়ে খুশি হয়েছে আমার ছোট মেয়ে।’

আমিন জানান, এক লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার দিয়ে তিনি দেড় টনের একটি এসি, ৩২ ইঞ্চির একটি এলইডি টিভি, রাইস কুকার, ফ্যানসহ মোট ১৫টি পণ্য কিনেছেন।

মার্সেলের লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার পাওয়া মো. আমিনকে নিয়ে আনন্দ মিছিল


তিনি বলেন, ‘যেহেতু মেয়ের জন্য ফ্রিজ কিনেই পুরস্কার পেয়েছি। তাই তার অধিকার আগে। তার পছন্দের পণ্য দেওয়ার পর বাকিগুলো আমরা ব্যবহার করব।’

মার্সেল পণ্যের দাম, মান ও গুণাগুণ সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘মার্সেল পণ্য খুব ভালো। পুরস্কার পেয়েছি বলে বলছি না। ব্যবহার করেই বলছি। আমাদের ঘরের ফ্রিজটি খুব ভালো চলছে। কখনো কোনো সমস্যা মনে হয়নি। আমি মার্সেলের সাফল্য কামনা করছি।’

এদিকে জসিম ইলেক্ট্রনিক্সের স্বত্ত্বাধিকারী মো. জসিমউদ্দীন  বলেন, ‘লাখ টাকা ক্যাশ ভাউচার পাওয়া মো. আমিন গরিব হলেও একজন ভালো মানুষ। তিনি এই অফারের বিষয়ে আগে থেকে জানতেন না। মেয়ের দাবি পূরণ করতে এসে লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার পেলেন। পরের দিন তার প্রাপ্য সব পণ্য বুঝিয়ে দেওয়া হয়। পরে সেই পণ্যসহ তাকে নিয়ে ট্রাকে করে গাজীপুর চৌরাস্তা, আমবাগানসহ স্থানীয় কয়েকটি বাজার এবং এলাকা ঘুরানো হয়। এমনকি সন্ধ্যার দিকে তার বাড়িতে ছোটখাটো একটি অনুষ্ঠানও করা হয়। তৈরি হয় একটি উৎসবমুখর পরিবেশ। সব মিলিয়ে মো. আমিনের এ প্রাপ্তিতে গাজীপুরে ব্যাপক সাড়া পড়েছে।

উল্লেখ্য, ক্রেতাদের দোরগোড়ায় অনলাইনে দ্রুত ও সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা দিতে ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম চালু করেছে মার্সেল। এই কার্যক্রমে ক্রেতাদের অংশগ্রহণকে উদ্বুদ্ধ করতে প্রতিদিন দেওয়া হচ্ছে নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচার। মার্সেল শোরুম থেকে ১০ হাজার টাকা বা তার বেশি মূল্যের পণ্য কিনে ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন করে সর্বনিম্ন ৩০০ থেকে সর্বোচ্চ এক লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার পাচ্ছেন ক্রেতারা। ক্যাশ ভাউচার পাওয়ার এই সুযোগ থাকবে আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৬ নভেম্বর ২০১৭/অগাস্টিন সুজন/ইভা

Walton
 
   
Marcel